আটকের একদিন পর বাংলাদেশিকে ফেরত দিল বিএসএফ
jugantor
আটকের একদিন পর বাংলাদেশিকে ফেরত দিল বিএসএফ

  আখাউড়া (ব্রাহ্মণবাড়িয়া) প্রতিনিধি  

০৪ জানুয়ারি ২০২১, ১২:০০:৪২  |  অনলাইন সংস্করণ

আটকের একদিন পর বাংলাদেশিকে ফেরত দিল বিএসএফ

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়া সীমান্ত দিয়ে অবৈধ অনুপ্রবেশের অভিযোগে আটক বাংলাদেশি যুবককে একদিন পর ফেরত দিয়েছে ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী (বিএসএফ)।

আটকের ঘটনায় বিজিবি-বিএসএফ চিঠি চালাচালির পর রোববার বেলা ২টার দিকে পতাকা বৈঠকের মাধ্যমে ওই যুবককে হস্তান্তর করা হয়। তাকে রাত ৮টায় আখাউড়া থানায় সোপর্দ করা হয়েছে।

আটক বাংলাদেশি যুবকের নাম দুলাল মিয়া (২২)। তিনি উপজেলার মনিয়ন্দ ইউনিয়নের সীমান্ত লাগোয়া মিনারকোট গ্রামের সানু মিয়ার ছেলে।

সোমবার তাকে ব্রাহ্মণবাড়িয়া আদালতে পাঠানোর প্রস্তুতি নেয় আখাউড়া থানা পুলিশ। তবে এর আগে রোববার রাত ৮টায় বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) ওই যুবককে আখাউড়া থানায় সোপর্দ করে।

ওই সীমান্তের বাসিন্দা হাসিনা আক্তার ও বিজিবি সূত্র জানান, শনিবার বিকাল সাড়ে ৪টার দিকে সীমান্তের আন্তর্জাতিক ২০২৬/৬ মেইন পিলারের পাশ দিয়ে ভুলে ভারতের শিবনগর এলাকায় ঢুকে পড়ে দুলাল মিয়া। এ সময় ১২০ বিএসএফ জি কোম্পানি কমান্ডার পিকে প্রসাদের নেতৃত্বে টহল জওয়ানরা তাকে আটক করে।

এ খবর আখাউড়া উপজেলার মনিয়ন্দ সদর ক্যাম্পের বিজিবির কাছে পৌঁছে। পরে বিজিবি-বিএসএফের মধ্যে চিঠি চালাচালি হলে পতাকা বৈঠকের মাধ্যমে একদিন পর রোববার বেলা ২টায় বাংলাদেশি যুবককে ফেরত দেয়া হয়।

বৈঠকে বাংলাদেশের পক্ষে নেতৃত্ব দেন ২৫ বিজিবি মনিয়ন্দ কোম্পানি সদরের জেওসি সুবেদার আলতাফ হোসেন অন্যদিকে ১২০ বিএসএফ ব্যাটালিয়নের অধীন জি কোম্পানি কমান্ডার পিকে প্রসাদ নেতৃত্ব দেন।

২৫ বিজিবি মনিয়ন্দ কোম্পানি সদরের সুবেদার আলতাফ হোসেন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, বিএসএফের কাছ থেকে ফেরত নিয়ে আসা যুবকের বিরুদ্ধে মামলা করে রাত ৮টায় আখাউড়া থানায় সোপর্দ করা হয়েছে।

আখাউড়া থানার ওসি (তদন্ত) মাসুদ আলম চৌধুরী জানান, ওই যুবককে ব্রাহ্মণবাড়িয়া আদালতে পাঠানোর প্রস্তুতি চলছে।

আটকের একদিন পর বাংলাদেশিকে ফেরত দিল বিএসএফ

 আখাউড়া (ব্রাহ্মণবাড়িয়া) প্রতিনিধি 
০৪ জানুয়ারি ২০২১, ১২:০০ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
আটকের একদিন পর বাংলাদেশিকে ফেরত দিল বিএসএফ
ছবি: যুগান্তর

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়া সীমান্ত দিয়ে অবৈধ অনুপ্রবেশের অভিযোগে আটক বাংলাদেশি যুবককে একদিন পর ফেরত দিয়েছে ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী (বিএসএফ)।

আটকের ঘটনায় বিজিবি-বিএসএফ চিঠি চালাচালির পর রোববার বেলা ২টার দিকে পতাকা বৈঠকের মাধ্যমে ওই যুবককে হস্তান্তর করা হয়। তাকে রাত ৮টায় আখাউড়া থানায় সোপর্দ করা হয়েছে।

আটক বাংলাদেশি যুবকের নাম দুলাল মিয়া (২২)। তিনি উপজেলার মনিয়ন্দ ইউনিয়নের সীমান্ত লাগোয়া মিনারকোট গ্রামের সানু মিয়ার ছেলে।

সোমবার তাকে ব্রাহ্মণবাড়িয়া আদালতে পাঠানোর প্রস্তুতি নেয় আখাউড়া থানা পুলিশ। তবে এর আগে রোববার রাত ৮টায় বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) ওই যুবককে আখাউড়া থানায় সোপর্দ করে।

ওই সীমান্তের বাসিন্দা হাসিনা আক্তার ও বিজিবি সূত্র জানান, শনিবার বিকাল সাড়ে ৪টার দিকে সীমান্তের আন্তর্জাতিক ২০২৬/৬ মেইন পিলারের পাশ দিয়ে ভুলে ভারতের শিবনগর এলাকায় ঢুকে পড়ে দুলাল মিয়া। এ সময় ১২০ বিএসএফ জি কোম্পানি কমান্ডার পিকে প্রসাদের নেতৃত্বে টহল জওয়ানরা তাকে আটক করে।

এ খবর আখাউড়া উপজেলার মনিয়ন্দ সদর ক্যাম্পের বিজিবির কাছে পৌঁছে। পরে বিজিবি-বিএসএফের মধ্যে চিঠি চালাচালি হলে পতাকা বৈঠকের মাধ্যমে একদিন পর রোববার বেলা ২টায় বাংলাদেশি যুবককে ফেরত দেয়া হয়।

বৈঠকে বাংলাদেশের পক্ষে নেতৃত্ব দেন ২৫ বিজিবি মনিয়ন্দ কোম্পানি সদরের জেওসি সুবেদার আলতাফ হোসেন অন্যদিকে ১২০ বিএসএফ ব্যাটালিয়নের অধীন জি কোম্পানি কমান্ডার পিকে প্রসাদ নেতৃত্ব দেন।

২৫ বিজিবি মনিয়ন্দ কোম্পানি সদরের সুবেদার আলতাফ হোসেন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, বিএসএফের কাছ থেকে ফেরত নিয়ে আসা যুবকের বিরুদ্ধে মামলা করে রাত ৮টায় আখাউড়া থানায় সোপর্দ করা হয়েছে।

আখাউড়া থানার ওসি (তদন্ত) মাসুদ আলম চৌধুরী জানান, ওই যুবককে ব্রাহ্মণবাড়িয়া আদালতে পাঠানোর প্রস্তুতি চলছে।

 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন