শায়েস্তাগঞ্জে এবার হচ্ছে না ফুল শাহ (র.) মেলা
jugantor
শায়েস্তাগঞ্জে এবার হচ্ছে না ফুল শাহ (র.) মেলা

  শায়েস্তাগঞ্জ (হবিগঞ্জ) প্রতিনিধি  

০৫ জানুয়ারি ২০২১, ১৮:০৮:১০  |  অনলাইন সংস্করণ

হবিগঞ্জের শায়েস্তাগঞ্জের সুতাংয়ে হযরত শাহজালাল (র.) এর সফর সঙ্গী ও সিলেটের ৩৬০ আউলিয়াদের একজন হযরত শাহ কারার ফুল শাহ (র.) এর মাজার। তার মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে প্রতি বছর মাজার প্রাঙ্গণে তিনদিনব্যাপী ওরস অনুষ্ঠিত হয়।

ওরসে সারাদেশের বিভিন্ন অঞ্চল থেকে অগণিত ভক্ত এসে যোগ দিতেন। কিন্তু সারা দেশে করোনা ভাইরাস মহামারী আকারে ধারণ করায় এবার হচ্ছে না ফুল শাহ (র.) মেলা। সরকারের বিধিনিষেধ অনুযায়ী লোকসমাগম নিষেধ থাকায়ই প্রথমবারের মতো এবারই এ মেলাটি বসছে না।

জানা যায়, আনুমানিক প্রায় ৩৫০ বছর ধরে প্রতি বছর পৌষ মাসের ২২ তারিখ মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে মাজার প্রাঙ্গণে তিনদিনব্যাপী ওরস অনুষ্ঠিত হয়ে থাকে। আর ওরস উপলক্ষে এখানে বসে মেলা ও মুর্শেদি কাফেলা। সুতাং শাহজীবাজারে মেলা উপলক্ষে গড়ে উঠে শত শত দোকানপাট। আর হাজারো ভক্ত আশেকানের মিলনে মুখরিত হয়ে উঠত পুরো অঞ্চল।

এবার মেলা অনুষ্ঠিত না হওয়ায় লোকসানের সম্মুখীন হতে হচ্ছে স্থানীয় ব্যবসায়ীসহ বিভিন্ন অঞ্চল থেকে আসা হকারদের।

মেলা আয়োজক কমিটির সদস্য ও মাজারের খাদেম সৈয়দ জিয়াউর রহমান বিপ্লব বলেন, করোনাভাইরাসের কারণে এবার আমরা ওরসে কোনোরকম স্থাপনা না করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। পাশাপাশি এবার কোনো কাফেলা ও বসতে পারবে না। এবার খুব সীমিত আকারে ওরস উদযাপন করা হবে। মাজার জিয়ারত, দোয়া ও আখেরি মোনাজাতের মাধ্যমেই ওরসের সমাপ্তি হবে।

শায়েস্তাগঞ্জে এবার হচ্ছে না ফুল শাহ (র.) মেলা

 শায়েস্তাগঞ্জ (হবিগঞ্জ) প্রতিনিধি 
০৫ জানুয়ারি ২০২১, ০৬:০৮ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

হবিগঞ্জের শায়েস্তাগঞ্জের সুতাংয়ে হযরত শাহজালাল (র.) এর সফর সঙ্গী ও সিলেটের ৩৬০ আউলিয়াদের একজন হযরত শাহ কারার ফুল শাহ (র.) এর মাজার। তার মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে প্রতি বছর মাজার প্রাঙ্গণে তিনদিনব্যাপী ওরস অনুষ্ঠিত হয়।

ওরসে সারাদেশের বিভিন্ন অঞ্চল থেকে অগণিত ভক্ত এসে যোগ দিতেন। কিন্তু সারা দেশে করোনা ভাইরাস মহামারী আকারে ধারণ করায় এবার হচ্ছে না ফুল শাহ (র.) মেলা। সরকারের বিধিনিষেধ অনুযায়ী লোকসমাগম নিষেধ থাকায়ই প্রথমবারের মতো এবারই এ মেলাটি বসছে না।

জানা যায়, আনুমানিক প্রায় ৩৫০ বছর ধরে প্রতি বছর পৌষ মাসের ২২ তারিখ মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে মাজার প্রাঙ্গণে তিনদিনব্যাপী ওরস অনুষ্ঠিত হয়ে থাকে। আর ওরস উপলক্ষে এখানে বসে মেলা ও মুর্শেদি কাফেলা। সুতাং শাহজীবাজারে মেলা উপলক্ষে গড়ে উঠে শত শত দোকানপাট। আর হাজারো ভক্ত আশেকানের মিলনে মুখরিত হয়ে উঠত পুরো অঞ্চল। 

এবার মেলা অনুষ্ঠিত না হওয়ায় লোকসানের সম্মুখীন হতে হচ্ছে স্থানীয় ব্যবসায়ীসহ বিভিন্ন অঞ্চল থেকে আসা হকারদের।

মেলা আয়োজক কমিটির সদস্য ও মাজারের খাদেম সৈয়দ জিয়াউর রহমান বিপ্লব বলেন, করোনাভাইরাসের কারণে এবার আমরা ওরসে কোনোরকম স্থাপনা না করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। পাশাপাশি এবার কোনো কাফেলা ও বসতে পারবে না। এবার খুব সীমিত আকারে ওরস উদযাপন করা হবে। মাজার জিয়ারত, দোয়া ও আখেরি মোনাজাতের মাধ্যমেই ওরসের সমাপ্তি হবে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন