টেকনাফে আসামি ছিনিয়ে নিতে ‘হামলা’, গুলিতে যুবক নিহত
jugantor
টেকনাফে আসামি ছিনিয়ে নিতে ‘হামলা’, গুলিতে যুবক নিহত

  টেকনাফ (কক্সবাজার) প্রতিনিধি  

০৬ জানুয়ারি ২০২১, ১৩:১৬:৪৭  |  অনলাইন সংস্করণ

টেকনাফে আসামি ছিনিয়ে নিতে ‘হামলা’, গুলিতে যুবক নিহত

কক্সবাজারের টেকনাফ উপজেলায় খোরশেদ আলম নামে এক যুবক গুলিবিদ্ধ হয়ে নিহত হয়েছেন।

পুলিশের দাবি, মাদকসহ সাত মামলার আসামিকে ছিনিয়ে নিতে পুলিশের ওপর হামলা চালালে গুলিতে ওই যুবকের মৃত্যু হয়। নিহত যুবক সদর ইউনিয়নের মিঠাপানিরছড়া এলাকার হাজী গোলাম হোসেনের ছেলে।

মঙ্গলবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে মিঠাপানিরছড়া এলাকায় সড়কে এ ঘটনা ঘটে।

টেকনাফ থানার ওসি মো. হাফিজুর রহমান জানান, মঙ্গলবার রাতে টেকনাফ সদর ইউনিয়নের মিঠাপানিরছড়া এলাকা থেকে শামসুল আলম নামে মাদকসহ সাত মামলার পলাতক আসামিকে গ্রেপ্তার করে থানায় ফেরার পথে পুলিশের ওপর হামলা চালানো হয়।

এ সময় আসামিকে ছিনিয়ে নেয়ার চেষ্টা করেন তার ভাই খোরশেদ ও স্বজনরা। এসময় গুলিবিদ্ধ হয় খোরশেদ। ঘটনাস্থল থেকে খুরশেদকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

তবে তিনি পুলিশের গুলিতে নিহত হয়েছে কিনা তা তদন্ত শেষে বলা যাবে বলে জানান তিনি। এ ঘটনায় শামসুল পুলিশের হাতে আটক রয়েছে।
ঘটনাস্থল থেকে খোরশেদকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

টেকনাফ সদর হাসপাতালের চিকিৎসক ইস্কান্দার মির্জা জানান, গুলিবিদ্ধ খোরশেদ হাসপাতালে আনার আগেই মৃত্যু হয়েছে।

নিহতের ভাই নুরুল আলম জানান, রাতে শামসুলকে রাজারছড়া ফুটবল খেলার মাঠ থেকে অপহরণ করে নিয়ে যাচ্ছে বলে ফোনে খবর আসে। ফোন পেয়ে এলাকাবাসীর সহযোগিতায় মিঠাপানিরছড়া মাদ্রাসার সামনে সিএনজিচালিত অটোরিকশার গতিরোধ করা হয়।

এর পর অটোরিকশার ভেতর থেকে গুলি ছোড়ে। এতে খোরশেদ গুলিবিদ্ধ হয়ে মাটিতে লুটিয়ে পড়ে। ঘটনাস্থল থেকে তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণ করেন।

টেকনাফে আসামি ছিনিয়ে নিতে ‘হামলা’, গুলিতে যুবক নিহত

 টেকনাফ (কক্সবাজার) প্রতিনিধি 
০৬ জানুয়ারি ২০২১, ০১:১৬ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
টেকনাফে আসামি ছিনিয়ে নিতে ‘হামলা’, গুলিতে যুবক নিহত
খোরশেদ আলম। ছবি: যুগান্তর

কক্সবাজারের টেকনাফ উপজেলায় খোরশেদ আলম নামে এক যুবক গুলিবিদ্ধ হয়ে নিহত হয়েছেন।

পুলিশের দাবি, মাদকসহ সাত মামলার আসামিকে ছিনিয়ে নিতে পুলিশের ওপর হামলা চালালে গুলিতে ওই যুবকের মৃত্যু হয়। নিহত যুবক সদর ইউনিয়নের মিঠাপানিরছড়া এলাকার হাজী গোলাম হোসেনের ছেলে।

মঙ্গলবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে মিঠাপানিরছড়া এলাকায় সড়কে এ ঘটনা ঘটে।

টেকনাফ থানার ওসি মো. হাফিজুর রহমান জানান, মঙ্গলবার রাতে টেকনাফ সদর ইউনিয়নের মিঠাপানিরছড়া এলাকা থেকে শামসুল আলম নামে মাদকসহ সাত মামলার পলাতক আসামিকে গ্রেপ্তার করে থানায় ফেরার পথে পুলিশের ওপর হামলা চালানো হয়।

এ সময় আসামিকে ছিনিয়ে নেয়ার চেষ্টা করেন তার ভাই খোরশেদ ও স্বজনরা। এসময় গুলিবিদ্ধ হয় খোরশেদ। ঘটনাস্থল থেকে খুরশেদকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

তবে তিনি পুলিশের গুলিতে নিহত হয়েছে কিনা তা তদন্ত শেষে বলা যাবে বলে জানান তিনি। এ ঘটনায় শামসুল পুলিশের হাতে আটক রয়েছে।
ঘটনাস্থল থেকে খোরশেদকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

টেকনাফ সদর হাসপাতালের চিকিৎসক ইস্কান্দার মির্জা জানান, গুলিবিদ্ধ খোরশেদ হাসপাতালে আনার আগেই মৃত্যু হয়েছে।

নিহতের ভাই নুরুল আলম জানান, রাতে শামসুলকে রাজারছড়া ফুটবল খেলার মাঠ থেকে অপহরণ করে নিয়ে যাচ্ছে বলে ফোনে খবর আসে। ফোন পেয়ে এলাকাবাসীর সহযোগিতায় মিঠাপানিরছড়া মাদ্রাসার সামনে সিএনজিচালিত অটোরিকশার গতিরোধ করা হয়।

এর পর অটোরিকশার ভেতর থেকে গুলি ছোড়ে। এতে খোরশেদ গুলিবিদ্ধ হয়ে মাটিতে লুটিয়ে পড়ে। ঘটনাস্থল থেকে তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণ করেন।

 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন