দুর্নীতির দায়ে ফায়ার সার্ভিস কর্মকর্তার পদাবনতি, একদিন পর বদলি
jugantor
দুর্নীতির দায়ে ফায়ার সার্ভিস কর্মকর্তার পদাবনতি, একদিন পর বদলি

  নেত্রকোনা প্রতিনিধি  

০৭ জানুয়ারি ২০২১, ২২:২১:৩৫  |  অনলাইন সংস্করণ

দুর্নীতির দায়ে উপসহকারী পরিচালক থেকে সিনিয়র স্টেশন অফিসার হিসেবে পদাবনতি করা হয় নেত্রকোনা ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের কর্মকর্তা আবু আব্দুল্লাহ মো. ছায়দুল্লাকে।

মঙ্গলবার এ সংক্রান্ত একটি অফিস আদেশ পাঠানো হয়। এর একদিন পর বৃহস্পতিবার ওই কর্মকর্তাকে আবার রংপুরে বদলি করা হয়।

বৃহস্পতিবার ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের মহাপরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. সাজ্জাদ হোসাইন ও উপ-পরিচালক (প্রশাসন ও অর্থ) শামীম আহসান চৌধুরীর স্বাক্ষরিত এক চিঠিতে বদলির আদেশ জারি করা হয়।

উল্লেখ্য, জামালপুর ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সে উপসহকারী পরিচালক আবু আব্দুল্লাহ মো. ছায়দুল্লা ভারপ্রাপ্ত সহকারী পরিচালক থাকাকালে ৪ লাখ ১৩ হাজার টাকার দুর্নীতির দায়ে অভিযুক্ত হন। ওই সময় তার বিরুদ্ধে বিভাগীয় মামলা করা হয়। সেই মামলায় একাধিক তদন্ত কর্মকর্তা তদন্ত করার পর অভিযোগ প্রমাণিত হয়।

একপর্যায়ে তদন্তকারী কর্মকর্তার বিরুদ্ধে তিনি অনাস্থা দেন; কিন্তু এতেও শেষ রক্ষা হলো না তার।

দুর্নীতির দায়ে ফায়ার সার্ভিস কর্মকর্তার পদাবনতি, একদিন পর বদলি

 নেত্রকোনা প্রতিনিধি 
০৭ জানুয়ারি ২০২১, ১০:২১ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

দুর্নীতির দায়ে উপসহকারী পরিচালক থেকে সিনিয়র স্টেশন অফিসার হিসেবে পদাবনতি করা হয় নেত্রকোনা ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের কর্মকর্তা আবু আব্দুল্লাহ মো. ছায়দুল্লাকে।

মঙ্গলবার এ সংক্রান্ত একটি অফিস আদেশ পাঠানো হয়। এর একদিন পর বৃহস্পতিবার ওই কর্মকর্তাকে আবার রংপুরে বদলি করা হয়। 

বৃহস্পতিবার ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের মহাপরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. সাজ্জাদ হোসাইন ও উপ-পরিচালক (প্রশাসন ও অর্থ) শামীম আহসান চৌধুরীর স্বাক্ষরিত এক চিঠিতে বদলির আদেশ জারি করা হয়।

উল্লেখ্য, জামালপুর ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সে উপসহকারী পরিচালক আবু আব্দুল্লাহ মো. ছায়দুল্লা ভারপ্রাপ্ত সহকারী পরিচালক থাকাকালে ৪ লাখ ১৩ হাজার টাকার দুর্নীতির দায়ে অভিযুক্ত হন। ওই সময় তার বিরুদ্ধে বিভাগীয় মামলা করা হয়। সেই মামলায় একাধিক তদন্ত কর্মকর্তা তদন্ত করার পর অভিযোগ প্রমাণিত হয়। 

একপর্যায়ে তদন্তকারী কর্মকর্তার বিরুদ্ধে তিনি অনাস্থা দেন; কিন্তু এতেও শেষ রক্ষা হলো না তার।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন