হাজীগঞ্জে যুবকের রহস্যজনক মৃত্যু
jugantor
হাজীগঞ্জে যুবকের রহস্যজনক মৃত্যু

  হাজীগঞ্জ (চাঁদপুর) প্রতিনিধি  

১০ জানুয়ারি ২০২১, ১৮:৩১:৪১  |  অনলাইন সংস্করণ

মৃত্যু

হাজীগঞ্জে মামুন মির্জা নামে এক ব্যক্তির রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে। রোববার ভোরে হাজীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে তার লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

হাজীগঞ্জ উপজেলার ৮নং হাটিলা পূর্ব ইউনিয়নের গঙ্গানগর গ্রামের নজরুল ইসলাম মির্জার মেজো ছেলে মামুন মির্জা। তিনি বিবাহিত। গত ৭ মাস আগে শাহরাস্তির দেবকরায় তিনি বিয়ে করেন।

এলাকাবাসী জানান, হঠাৎ রাতে তিনি অসুস্থ হয়ে পড়েন। পরে তাকে রাত সাড়ে ১০টায় হাসপাতালে নেয়া হয়। ভোরে তিনি মারা যান। পরে পুলিশে খবর দিলে লাশ উদ্ধার করে চাঁদপুর মর্গে পাঠায়।

রোববার বিকালে মৃতদেহ ময়নাতদন্ত শেষে পারিবারি গোরস্তানে দাফন করা হয়।

পরিবারের ধারণা, কয়েক দিন ধরে স্বামী-স্ত্রীর মাঝে ঝগড়া হচ্ছিল। তবে তার গলায় ও শরীরের বিভিন্ন জায়গায় আঘাতের ছিন্ন রয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে দুজনের ঝগড়া থেকে এ ঘটনা ঘটতে পারে।

হাজীগঞ্জ থানার ওসি আলমগীর হোসেন রনি যুগান্তরকে জানান, খবর পেয়ে মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্ত শেষে পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। তবে কেউ মামলা করলে আইনানুযায়ী ব্যবস্থা নেয়া হবে।

হাজীগঞ্জে যুবকের রহস্যজনক মৃত্যু

 হাজীগঞ্জ (চাঁদপুর) প্রতিনিধি 
১০ জানুয়ারি ২০২১, ০৬:৩১ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
মৃত্যু
মৃত্যু

হাজীগঞ্জে মামুন মির্জা নামে এক ব্যক্তির রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে। রোববার ভোরে হাজীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে তার লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

 

হাজীগঞ্জ উপজেলার ৮নং হাটিলা পূর্ব ইউনিয়নের গঙ্গানগর গ্রামের নজরুল ইসলাম মির্জার মেজো ছেলে মামুন মির্জা। তিনি বিবাহিত। গত ৭ মাস আগে শাহরাস্তির দেবকরায় তিনি বিয়ে করেন।

 

এলাকাবাসী জানান, হঠাৎ রাতে তিনি অসুস্থ হয়ে পড়েন। পরে তাকে রাত সাড়ে ১০টায় হাসপাতালে নেয়া হয়। ভোরে তিনি মারা যান। পরে পুলিশে খবর দিলে লাশ উদ্ধার করে চাঁদপুর মর্গে পাঠায়।

 

রোববার বিকালে মৃতদেহ ময়নাতদন্ত শেষে পারিবারি গোরস্তানে দাফন করা হয়।

 

পরিবারের ধারণা, কয়েক দিন ধরে স্বামী-স্ত্রীর মাঝে ঝগড়া হচ্ছিল। তবে তার গলায় ও শরীরের বিভিন্ন জায়গায় আঘাতের ছিন্ন রয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে দুজনের ঝগড়া থেকে এ ঘটনা ঘটতে পারে।

 

হাজীগঞ্জ থানার ওসি আলমগীর হোসেন রনি যুগান্তরকে  জানান, খবর পেয়ে মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্ত শেষে পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। তবে কেউ মামলা করলে আইনানুযায়ী ব্যবস্থা নেয়া হবে।

 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন