চান্দিনায় স্বতন্ত্র প্রার্থীর গণসংযোগে হামলার অভিযোগ, আহত ২০
jugantor
চান্দিনায় স্বতন্ত্র প্রার্থীর গণসংযোগে হামলার অভিযোগ, আহত ২০

  কুমিল্লা ব্যুরো  ও চান্দিনা প্রতিনিধি  

১১ জানুয়ারি ২০২১, ১৮:৩৬:৫১  |  অনলাইন সংস্করণ

কুমিল্লা

কুমিল্লার চান্দিনা পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র পদে জগ প্রতীকের স্বতন্ত্র প্রার্থী হাজী শামীম হোসেনের গণসংযোগে সন্ত্রাসী হামলার ঘটনা ঘটেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় তিনিসহ আহত হয়েছেন অন্তত ২০ জন। সোমবার দুপুরে পৌরসভার ছায়কোট এলাকায় ওই হামলার ঘটনা ঘটে।

স্বতন্ত্র মেয়র প্রার্থী শামীম হোসেন বলেন, সোমবার দুপুরে ছায়কোট এলাকায় কর্মী-সমর্থকদের নিয়ে আমি গণসংযোগ করছিলাম। এ সময় এমপি সাহেবের ছেলে উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মোন্তাকিম আশরাফ টিটু, ভাইস চেয়ারম্যান জহিরুল ইসলাম মুন্সি ও স্থানীয় ওয়ার্ড কাউন্সিলর প্রার্থী আব্দুস সালামের নির্দেশে আমাদের ওপর দেশীয় অস্ত্র নিয়ে অতর্কিত সন্ত্রাসী হামলা চালানো হয়। সন্ত্রাসীরা আমাদের ওপর দফায় দফায় হামলা চালায়। এতে আমিসহ ২০ জনের বেশি নেতাকর্মী আহত হয়েছেন। যার মধ্যে ৮ জন গুরুতর আহত হয়েছেন। তাদের ৪ জনকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় কুমিল্লা মেডিকেলে নেওয়া হয়েছে। হামলার পর আহত নেতাকর্মীদের উপজেলা স্বাস্থ্য কমপেক্সে ভর্তি করতে গেলে সেখানেও সন্ত্রাসীরা আমাদের বাধা দিয়েছে। ঘটনার পর পুলিশ এসে আমাকে উদ্ধার করেছে। এ ঘটনায় তিনি মামলা দায়েরের প্রস্তুতি নিচ্ছেন।

সোমবার বিকালে এ অভিযোগের বিষয়ে জানতে উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মোন্তাকিম আশরাফ টিটুর মুঠোফোনে বেশ কয়েকবার কল করা হলেও তিনি রিসিভ করেননি। তবে উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান জহিরুল ইসলাম মুন্সি এসব অভিযোগ সম্পূর্ণ অস্বীকার করেন। তিনি বলেন, আমি খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে দেখি পুলিশসহ প্রশাসনের লোকজন পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে এনেছে। আর হামলা আমাদের লোক করেনি, সে নিজেই বহিরাগত সন্ত্রাসী নিয়ে আমাদের নেতাকর্মীদের ওপর হামলা চালিয়েছে। এতে আমাদের ওয়ার্ড যুবলীগের সভাপতি আবুল কালামসহ ৩/৪ জন আহত হয়েছে।

চান্দিনা থানার ওসি শামস উদ্দীন মোহাম্মদ ইলিয়াছ বলেন, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। এখন পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে। এ ঘটনায় এখনো কোনো লিখিত অভিযোগ পাইনি। অভিযোগ পেলে তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

চান্দিনায় স্বতন্ত্র প্রার্থীর গণসংযোগে হামলার অভিযোগ, আহত ২০

 কুমিল্লা ব্যুরো  ও চান্দিনা প্রতিনিধি 
১১ জানুয়ারি ২০২১, ০৬:৩৬ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
কুমিল্লা
কুমিল্লা

কুমিল্লার চান্দিনা পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র পদে জগ প্রতীকের স্বতন্ত্র প্রার্থী হাজী শামীম হোসেনের গণসংযোগে সন্ত্রাসী হামলার ঘটনা ঘটেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় তিনিসহ আহত হয়েছেন অন্তত ২০ জন। সোমবার দুপুরে পৌরসভার ছায়কোট এলাকায় ওই হামলার ঘটনা ঘটে। 

স্বতন্ত্র মেয়র প্রার্থী শামীম হোসেন বলেন, সোমবার দুপুরে ছায়কোট এলাকায় কর্মী-সমর্থকদের নিয়ে আমি গণসংযোগ করছিলাম। এ সময় এমপি সাহেবের ছেলে উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মোন্তাকিম আশরাফ টিটু, ভাইস চেয়ারম্যান জহিরুল ইসলাম মুন্সি ও স্থানীয় ওয়ার্ড কাউন্সিলর প্রার্থী আব্দুস সালামের নির্দেশে আমাদের ওপর দেশীয় অস্ত্র নিয়ে অতর্কিত সন্ত্রাসী হামলা চালানো হয়। সন্ত্রাসীরা আমাদের ওপর দফায় দফায় হামলা চালায়। এতে আমিসহ ২০ জনের বেশি নেতাকর্মী আহত হয়েছেন। যার মধ্যে ৮ জন গুরুতর আহত হয়েছেন। তাদের ৪ জনকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় কুমিল্লা মেডিকেলে নেওয়া হয়েছে। হামলার পর আহত নেতাকর্মীদের উপজেলা স্বাস্থ্য কমপেক্সে ভর্তি করতে গেলে সেখানেও সন্ত্রাসীরা আমাদের বাধা দিয়েছে। ঘটনার পর পুলিশ এসে আমাকে উদ্ধার করেছে। এ ঘটনায় তিনি মামলা দায়েরের প্রস্তুতি নিচ্ছেন।

সোমবার বিকালে এ অভিযোগের বিষয়ে জানতে উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মোন্তাকিম আশরাফ টিটুর মুঠোফোনে বেশ কয়েকবার কল করা হলেও তিনি রিসিভ করেননি। তবে উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান জহিরুল ইসলাম মুন্সি এসব অভিযোগ সম্পূর্ণ অস্বীকার করেন। তিনি বলেন, আমি খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে দেখি পুলিশসহ প্রশাসনের লোকজন পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে এনেছে। আর হামলা আমাদের লোক করেনি, সে নিজেই বহিরাগত সন্ত্রাসী নিয়ে আমাদের নেতাকর্মীদের ওপর হামলা চালিয়েছে। এতে আমাদের ওয়ার্ড যুবলীগের সভাপতি আবুল কালামসহ ৩/৪ জন আহত হয়েছে।

 

চান্দিনা থানার ওসি শামস উদ্দীন মোহাম্মদ ইলিয়াছ বলেন, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। এখন পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে। এ ঘটনায় এখনো কোনো লিখিত অভিযোগ পাইনি। অভিযোগ পেলে তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন