মেয়ের মৃত্যুর ২ ঘণ্টা পর চলে গেলেন বাবাও
jugantor
মেয়ের মৃত্যুর ২ ঘণ্টা পর চলে গেলেন বাবাও

  ভেড়ামারা (কুষ্টিয়া) প্রতিনিধি  

১২ জানুয়ারি ২০২১, ১৮:৪১:৪৬  |  অনলাইন সংস্করণ

কুষ্টিয়ার মিরপুরে মেয়ের আত্মহত্যার ২ ঘণ্টা পর হৃদযন্ত্র ক্রিয়া বন্ধ হয়ে বাবার মৃত্যু হয়েছে। মঙ্গলবার দুপুরে মিরপুর পৌরসভার ১নং ওয়ার্ড সুলতানপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

তারা হলেন- সুলতানপুর গ্রামের মোস্তফার মেয়ে শান্তনা (২০) এবং তার বাবা মৃত রওশন মণ্ডলের ছেলে মোস্তফা (৪০)।

শান্তনার চাচাতো ভাই মতিন জানান, সকালে পারিবারিক বিষয় নিয়ে শান্তনার সঙ্গে তার মায়ের বাকবিতণ্ডা হয়। এতে মায়ের উপর অভিমান করে দুপুর ১২টার দিকে নিজ ঘরে গলায় ফাঁস দেয় শান্তনা।

পরে তাকে উদ্ধার করে মিরপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করে। মেয়ের শোক সইতে না পেরে এর ২ ঘণ্টা পর হৃদযন্ত্র ক্রিয়া বন্ধ হয়ে একই হাসপাতালে তার বাবা মোস্তফার মৃত্যু হয়।

মতিন আরও জানান, শান্তনার স্বামীর সঙ্গে বিচ্ছেদের পর তার চার বছরের একমাত্র ছেলে নিয়ে সে তার বাবার বাড়িতে থাকত।

মিরপুর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) শুভ্র প্রকাশ জানান, মেয়ের আত্মহত্যার পর তার বাবা অসুস্থ হয়ে পড়লে স্থানীয় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যাওয়া হয়। পরে সেখানে তার মৃত্যু হয়। আমরা খোঁজখবর নিয়ে ঘটনার তদন্ত করে দেখছি। পরবর্তীতে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।

মেয়ের মৃত্যুর ২ ঘণ্টা পর চলে গেলেন বাবাও

 ভেড়ামারা (কুষ্টিয়া) প্রতিনিধি 
১২ জানুয়ারি ২০২১, ০৬:৪১ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

কুষ্টিয়ার মিরপুরে মেয়ের আত্মহত্যার ২ ঘণ্টা পর হৃদযন্ত্র ক্রিয়া বন্ধ হয়ে বাবার মৃত্যু হয়েছে। মঙ্গলবার দুপুরে মিরপুর পৌরসভার ১নং ওয়ার্ড সুলতানপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

তারা হলেন- সুলতানপুর গ্রামের মোস্তফার মেয়ে শান্তনা (২০) এবং তার বাবা মৃত রওশন মণ্ডলের ছেলে মোস্তফা (৪০)।

শান্তনার চাচাতো ভাই মতিন জানান, সকালে পারিবারিক বিষয় নিয়ে শান্তনার সঙ্গে তার মায়ের বাকবিতণ্ডা হয়। এতে মায়ের উপর অভিমান করে দুপুর ১২টার দিকে নিজ ঘরে গলায় ফাঁস দেয় শান্তনা।

পরে তাকে উদ্ধার করে মিরপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করে। মেয়ের শোক সইতে না পেরে এর ২ ঘণ্টা পর হৃদযন্ত্র ক্রিয়া বন্ধ হয়ে একই হাসপাতালে তার বাবা মোস্তফার মৃত্যু হয়।

মতিন আরও জানান, শান্তনার স্বামীর সঙ্গে বিচ্ছেদের পর তার চার বছরের একমাত্র ছেলে নিয়ে সে তার বাবার বাড়িতে থাকত।

মিরপুর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) শুভ্র প্রকাশ জানান, মেয়ের আত্মহত্যার পর তার বাবা অসুস্থ হয়ে পড়লে স্থানীয় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যাওয়া হয়। পরে সেখানে তার মৃত্যু হয়। আমরা খোঁজখবর নিয়ে ঘটনার তদন্ত করে দেখছি। পরবর্তীতে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।

 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন