বিএসএফের গুলিতে প্রাণ গেল বাংলাদেশি যুবকের
jugantor
বিএসএফের গুলিতে প্রাণ গেল বাংলাদেশি যুবকের

  লালমনিরহাট প্রতিনিধি   

১৫ জানুয়ারি ২০২১, ১৭:৪৮:৪০  |  অনলাইন সংস্করণ

বিএসএফ

লালমনিরহাটের পাটগ্রাম উপজেলায় ভারতীয় সীমান্ত রক্ষী বাহিনীর (বিএসএফ) ছোড়া গুলিতে আবুল কালাম (৩০) নামে এক যুবক নিহত হয়েছেন।

শুক্রবার সকালে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়ার পথে গুলিবিদ্ধ আবুল কালামের মৃত্যু হয় বলে জানান স্থানীয় ইউপি সদস্য হোসেন আলী।

শুক্রবার ভোরে উপজেলার শ্রীরামপুর ইউনিয়নের ঝালঙ্গী পকেট এলাকায় সীমান্তের ৮৪৮ নম্বর মেইন পিলারের ৭নং সাব-পিলারের কাছে এ ঘটনা ঘটে। নিহত আবুল কালাম ওই ইউনিয়নের ঝালঙ্গী পকেট এলাকার বাসিন্দা জয়নুল আবেদীনের ছেলে।

বিজিবি সূত্রে জানা গেছে, শুক্রবার ভোরে আবুল কালামসহ ৫-৬ জন গরু আনতে যায় ভারতীয় গ্রাম ডোরাডাবরীতে। পরে গরু নিয়ে ফেরত আসার সময় ভারতের কোচবিহার ১৪০ বিএসএফ ব্যাটালিয়নের ডোরাডাবরী ক্যাম্পের টহল দলের সদস্যরা তাদের লক্ষ্য করে কয়েকটি গুলি ছুড়ে।

এ সময় অন্যরা পালিয়ে আসতে সক্ষম হলেও আবুল কালামের গলা ও মাথায় গুলিবিদ্ধ হয়ে আহত হন। পরে তার সঙ্গীরা তাকে উদ্ধার করে রংপুরে মেডিকেল কলেজ হাসাপাতালে নেয়ার পথেই মারা যান আবুল কালাম।

৬১ বিজিবি ব্যাটালিয়নের ঝালঙ্গী বিজিবি ক্যাম্পের নায়েক সুবেদার জালাল সর্দার ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন।

পাটগ্রাম থানার ওসি সুমন কুমার মোহন্ত ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য লালমনিরহাট জেলা সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

বিএসএফের গুলিতে প্রাণ গেল বাংলাদেশি যুবকের

 লালমনিরহাট প্রতিনিধি  
১৫ জানুয়ারি ২০২১, ০৫:৪৮ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
বিএসএফ
বিএসএফ। ফাইল ছবি

লালমনিরহাটের পাটগ্রাম উপজেলায় ভারতীয় সীমান্ত রক্ষী বাহিনীর (বিএসএফ) ছোড়া গুলিতে আবুল কালাম (৩০) নামে এক যুবক নিহত হয়েছেন। 

শুক্রবার সকালে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়ার পথে গুলিবিদ্ধ আবুল কালামের মৃত্যু হয় বলে জানান স্থানীয় ইউপি সদস্য হোসেন আলী।

শুক্রবার ভোরে উপজেলার শ্রীরামপুর ইউনিয়নের ঝালঙ্গী পকেট এলাকায় সীমান্তের ৮৪৮ নম্বর মেইন পিলারের ৭নং সাব-পিলারের কাছে এ ঘটনা ঘটে। নিহত আবুল কালাম ওই ইউনিয়নের ঝালঙ্গী পকেট এলাকার বাসিন্দা জয়নুল আবেদীনের ছেলে।

বিজিবি সূত্রে জানা গেছে, শুক্রবার ভোরে আবুল কালামসহ ৫-৬ জন গরু আনতে যায় ভারতীয় গ্রাম ডোরাডাবরীতে। পরে গরু নিয়ে ফেরত আসার সময় ভারতের কোচবিহার ১৪০ বিএসএফ ব্যাটালিয়নের ডোরাডাবরী ক্যাম্পের টহল দলের সদস্যরা তাদের লক্ষ্য করে কয়েকটি গুলি ছুড়ে।

এ সময় অন্যরা পালিয়ে আসতে সক্ষম হলেও আবুল কালামের গলা ও মাথায় গুলিবিদ্ধ হয়ে আহত হন। পরে তার সঙ্গীরা তাকে উদ্ধার করে রংপুরে মেডিকেল কলেজ হাসাপাতালে নেয়ার পথেই মারা যান আবুল কালাম।  

৬১ বিজিবি ব্যাটালিয়নের ঝালঙ্গী বিজিবি ক্যাম্পের নায়েক সুবেদার জালাল সর্দার ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন। 

পাটগ্রাম থানার ওসি সুমন কুমার মোহন্ত ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য লালমনিরহাট জেলা সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। 

 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন