মাধবপুর পৌরসভায় চলছে শান্তিপূর্ণ ভোট গ্রহণ
jugantor
মাধবপুর পৌরসভায় চলছে শান্তিপূর্ণ ভোট গ্রহণ

  মাধবপুর (হবিগঞ্জ) প্রতিনিধি  

১৬ জানুয়ারি ২০২১, ১৩:৫৬:০০  |  অনলাইন সংস্করণ

হবিগঞ্জের মাধবপুর পৌরসভায় শনিবার সকাল ৮টা থেকে শান্তিপূর্ণ ভাবে ভোটগ্রহণ চলছে। চলবে বিকেল ৪টা পর্যন্ত।

তীব্র শীত উপেক্ষা করে ভোটাররা ভোটকেন্দ্রে পৌঁছেছেন ভোট দেয়ার জন্য। সকালে কেন্দ্রগুলোতে ভোটার উপস্থিতি ছিল চোখে পড়ার মতো।

বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে ভোটার উপস্থিতির সংখ্যা আরও বাড়তে থাকে। দুপুর পর্যন্ত পৌর এলাকার কোথাও কোনো অনিয়ম বা নির্বাচনী সংঘর্ষের খবর পাওয়া যায়নি।

সরেজমিনে দেখা গেছে, সকাল থেকে ভোটকেন্দ্রগুলোতে পুরুষ ভোটারের চেয়ে নারী ভোটারের উপস্থিতি বেশি।

পৌরসভায় মোট ভোটার ১৫ হাজার ৯৮৭ জন। এর মধ্যে পুরুষ ৮ হাজার ১০৭ জন আর নারী ভোটার ৭ হাজার ৮৮০ জন। নির্বাচনে মেয়র পদে ৪ জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

এর মধ্যে আওয়ামী লীগ ও বিএনপির প্রার্থী বাইরে দুইজন স্বতস্ত্র প্রার্থী রয়েছেন। সকাল ১০টায় পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে গিয়ে দেখা যায় ভোটারদের দীর্ঘ লাইল। নারী ভোটার র উপস্থিতি ছিল বেশি।

আইনশৃঙ্খলা রক্ষার দায়িত্বে নিয়োজিত পুলিশ ইন্সপেক্টর শেখ নাজমুল বলেন, ভোটাররা যাতে সুষ্ঠুভাবে ভোট দিতে পারে এ জন্যেআমরা সর্তক আছি। জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা সাদেকুল ইসলাম বলেন, এখন পর্যন্ত কোথাও কোনো সমস্যা হয়নি।

মাধবপুর পৌরসভায় চলছে শান্তিপূর্ণ ভোট গ্রহণ

 মাধবপুর (হবিগঞ্জ) প্রতিনিধি 
১৬ জানুয়ারি ২০২১, ০১:৫৬ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

হবিগঞ্জের মাধবপুর পৌরসভায় শনিবার সকাল ৮টা থেকে শান্তিপূর্ণ ভাবে ভোটগ্রহণ চলছে। চলবে বিকেল ৪টা পর্যন্ত।

তীব্র শীত উপেক্ষা করে ভোটাররা ভোটকেন্দ্রে পৌঁছেছেন ভোট দেয়ার জন্য। সকালে কেন্দ্রগুলোতে ভোটার উপস্থিতি ছিল চোখে পড়ার মতো।

বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে ভোটার উপস্থিতির সংখ্যা আরও বাড়তে থাকে। দুপুর পর্যন্ত পৌর এলাকার কোথাও কোনো অনিয়ম বা নির্বাচনী সংঘর্ষের খবর পাওয়া যায়নি।

সরেজমিনে দেখা গেছে, সকাল থেকে ভোটকেন্দ্রগুলোতে পুরুষ ভোটারের চেয়ে নারী ভোটারের উপস্থিতি বেশি।

পৌরসভায় মোট ভোটার ১৫ হাজার ৯৮৭ জন। এর মধ্যে পুরুষ ৮ হাজার ১০৭ জন আর নারী ভোটার ৭ হাজার ৮৮০ জন। নির্বাচনে মেয়র পদে ৪ জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

এর মধ্যে আওয়ামী লীগ ও বিএনপির প্রার্থী বাইরে দুইজন স্বতস্ত্র প্রার্থী রয়েছেন। সকাল ১০টায় পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে গিয়ে দেখা যায় ভোটারদের দীর্ঘ লাইল। নারী ভোটার র উপস্থিতি ছিল বেশি।

আইনশৃঙ্খলা রক্ষার দায়িত্বে নিয়োজিত পুলিশ ইন্সপেক্টর শেখ নাজমুল বলেন, ভোটাররা যাতে সুষ্ঠুভাবে ভোট দিতে পারে এ জন্যেআমরা সর্তক আছি। জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা সাদেকুল ইসলাম বলেন, এখন পর্যন্ত কোথাও কোনো সমস্যা হয়নি।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন