খুবির দুই শিক্ষার্থীর বহিষ্কার প্রত্যাহারের দাবি
jugantor
খুবির দুই শিক্ষার্থীর বহিষ্কার প্রত্যাহারের দাবি

  খুলনা ব্যুরো  

১৬ জানুয়ারি ২০২১, ১৯:২৭:০৫  |  অনলাইন সংস্করণ

বহিষ্কার প্রত্যাহারের দাবিতে শনিবার সকালে খুলনা প্রেস ক্লাবে সংবাদ সম্মেলন

খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের (খুবি) পাঁচ দফা দাবির আন্দোলনে যুক্ত দুই শিক্ষার্থীর অন্যায়ভাবে করা বহিষ্কার প্রত্যাহারের দাবিতে শনিবার সকালে খুলনা প্রেস ক্লাবে সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন খুবির শিক্ষার্থী মোহাম্মদ মোবারক হোসেন নোমান।

তিনি বলেন, খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীদের ৫ দফা আন্দোলনে যুক্ত থাকার কারণে বাংলা ডিসিপ্লিনের মোহাম্মদ মোবারক হোসেন নোমান (১৮ ব্যাচ) এবং ইতিহাস ও সভ্যতা ডিসিপ্লিনের ইমামুল ইসলামকে (১৭ ব্যাচ) অসদাচরণের অভিযোগে বহিষ্কার করা হয়েছে। যার তীব্র প্রতিবাদ জানিয়েছেন শিক্ষার্থীরা।

জানা যায়, ২০১৯ সালের ১৩ নভেম্বর শিক্ষার্থীরা বেতন কমানো, আবাসন ব্যবস্থা নিশ্চিতকরণ, চিকিৎসা ব্যবস্থা উন্নত করা, অগ্রাধিকারের ভিত্তিতে অবকাঠামো নির্মাণ এবং ছাত্রবিষয়ক সিদ্ধান্ত গ্রহণে শিক্ষার্থীদের অংশগ্রহণ নিশ্চিত করাসহ ৫ দফা দাবি সংক্রান্ত স্মারকলিপি ছাত্রবিষয়ক পরিচালকের মাধ্যমে উপাচার্যের কাছে পেশ করেন। তাতেও কোনো সমাধান না পেয়ে গেল বছরের ১ জানুয়ারি শান্তিপূর্ণ আন্দোলনে নামেন শিক্ষার্থীরা। কিছুদিন পর আন্দোলন চলাকালীন দুজন শিক্ষকের সঙ্গে অসদাচরণের অভিযোগে খুবি প্রশাসন শিক্ষার্থীদের বক্তব্য জানতে চায়।

তদন্তের পর গত ১৩ জানুয়ারি বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রবিষয়ক পরিচালক ও শৃঙ্খলা বোর্ডের সদস্য সচিব মো. শরীফ হাসান লিমন বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছেন, আবাসিক হলে জুনিয়র শিক্ষার্থীদের রাতভর শারীরিকভাবে নির্যাতন ও গালিগালাজ করার অপরাধে পাঁচজন এবং তদন্ত ও একাডেমিক কার্যক্রমে বাধা সৃষ্টি করার দায়ে দুইজন শিক্ষার্থীকে বিভিন্ন মেয়াদে শাস্তি প্রদান করেছে খুলনা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।

সংবাদ সম্মেলন উপস্থিত খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা দুই ছাত্র বহিষ্কারের প্রতিবাদ জানিয়ে অবিলম্বে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন কর্তৃক বিষয়টি পুন:তদন্ত করে যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি জানান।

খুবির দুই শিক্ষার্থীর বহিষ্কার প্রত্যাহারের দাবি

 খুলনা ব্যুরো 
১৬ জানুয়ারি ২০২১, ০৭:২৭ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
বহিষ্কার প্রত্যাহারের দাবিতে শনিবার সকালে খুলনা প্রেস ক্লাবে সংবাদ সম্মেলন
বহিষ্কার প্রত্যাহারের দাবিতে শনিবার সকালে খুলনা প্রেস ক্লাবে সংবাদ সম্মেলন

খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের (খুবি) পাঁচ দফা দাবির আন্দোলনে যুক্ত দুই শিক্ষার্থীর অন্যায়ভাবে করা বহিষ্কার প্রত্যাহারের দাবিতে শনিবার সকালে খুলনা প্রেস ক্লাবে সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন খুবির শিক্ষার্থী মোহাম্মদ মোবারক হোসেন নোমান।

তিনি বলেন, খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীদের ৫ দফা আন্দোলনে যুক্ত থাকার কারণে বাংলা ডিসিপ্লিনের মোহাম্মদ মোবারক হোসেন নোমান (১৮ ব্যাচ) এবং ইতিহাস ও সভ্যতা ডিসিপ্লিনের ইমামুল ইসলামকে (১৭ ব্যাচ) অসদাচরণের অভিযোগে বহিষ্কার করা হয়েছে। যার তীব্র প্রতিবাদ জানিয়েছেন শিক্ষার্থীরা।

জানা যায়, ২০১৯ সালের ১৩ নভেম্বর শিক্ষার্থীরা বেতন কমানো, আবাসন ব্যবস্থা নিশ্চিতকরণ, চিকিৎসা ব্যবস্থা উন্নত করা, অগ্রাধিকারের ভিত্তিতে অবকাঠামো নির্মাণ এবং ছাত্রবিষয়ক সিদ্ধান্ত গ্রহণে শিক্ষার্থীদের অংশগ্রহণ নিশ্চিত করাসহ ৫ দফা দাবি সংক্রান্ত স্মারকলিপি ছাত্রবিষয়ক পরিচালকের মাধ্যমে উপাচার্যের কাছে পেশ করেন। তাতেও কোনো সমাধান না পেয়ে গেল বছরের ১ জানুয়ারি শান্তিপূর্ণ আন্দোলনে নামেন শিক্ষার্থীরা। কিছুদিন পর আন্দোলন চলাকালীন দুজন শিক্ষকের সঙ্গে অসদাচরণের অভিযোগে খুবি প্রশাসন শিক্ষার্থীদের বক্তব্য জানতে চায়।

তদন্তের পর গত ১৩ জানুয়ারি বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রবিষয়ক পরিচালক ও শৃঙ্খলা বোর্ডের সদস্য সচিব মো. শরীফ হাসান লিমন বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছেন, আবাসিক হলে জুনিয়র শিক্ষার্থীদের রাতভর শারীরিকভাবে নির্যাতন ও গালিগালাজ করার অপরাধে পাঁচজন এবং তদন্ত ও একাডেমিক কার্যক্রমে বাধা সৃষ্টি করার দায়ে দুইজন শিক্ষার্থীকে বিভিন্ন মেয়াদে শাস্তি প্রদান করেছে খুলনা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।

সংবাদ সম্মেলন উপস্থিত খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা দুই ছাত্র বহিষ্কারের প্রতিবাদ জানিয়ে অবিলম্বে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন কর্তৃক বিষয়টি পুন:তদন্ত করে যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি জানান।

 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন