পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া: পারাপারের অপেক্ষায় ৫ শতাধিক গাড়ি
jugantor
পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া: পারাপারের অপেক্ষায় ৫ শতাধিক গাড়ি

  মানিকগঞ্জ প্রতিনিধি  

১৭ জানুয়ারি ২০২১, ১৩:০১:০৮  |  অনলাইন সংস্করণ

পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া: পারাপারের অপেক্ষায় ৫ শতাধিক গাড়ি

পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া নৌরুটে ফেরি চলাচল স্বাভাবিক হয়েছে। তবে দীর্ঘ সময় ফেরি বন্ধ থাকায় ঘাট এলাকায় পাঁচ শতাধিক বিভিন্ন ধরনের যানবাহন ফেরি পারের অপেক্ষায় আটকে রয়েছে।

কুয়াশা কমে গেলে রোববার সকাল ১০টা থেকে ওই রুটে ফেরি চলাচল স্বাভাবিক হয়।

এর আগে ঘন কুয়াশার কারণে দুর্ঘটনা এড়াতে শনিবার দিবাগত রাত দেড়টা থেকে ফেরি চলাচল বন্ধ করে কর্তৃপক্ষ।

বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন কর্পোরেশনের (বিআইডব্লিউটিসি) আরিচা কার্যালয়ের ব্যবস্থাপক (বাণিজ্য) সালাম হোসেন জানান, শনিবার সন্ধ্যার পর থেকে নদী এলাকায় কুয়াশা পড়তে শুরু করে। পরে রাত দেড়টার দিকে ঘন কুয়াশায় তীব্রতা এতটাই প্রকোপ ছিল যে, নিকটবর্তী কোনো বস্তুও দেখা সম্ভব ছিল না। পরে নৌরুটে দুর্ঘটনা এড়াতে ফেরি চলাচল সাময়িকভাবে বন্ধ রাখা হয়।

পরে রোববার সকাল ১০টার দিকে কুয়াশার ঘনত্ব কমে গেলে ফেরি চলাচল শুরু করা হয়। দীর্ঘ সময় ফেরি চলাচল বন্ধ থাকায় নৌরুটের উভয় ফেরিঘাট এলাকা মিলে পাঁচ শতাধিক যানবাহন নৌরুট পারাপারের অপেক্ষায় রয়েছে।

সিরিয়াল অনুযায়ী অপেক্ষমাণ যানবাহনগুলোকে পারাপার শুরু করা হয় বলে জানান ব্যবস্থাপক (বাণিজ্য) সালাম হোসেন।

পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া: পারাপারের অপেক্ষায় ৫ শতাধিক গাড়ি

 মানিকগঞ্জ প্রতিনিধি 
১৭ জানুয়ারি ২০২১, ০১:০১ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া: পারাপারের অপেক্ষায় ৫ শতাধিক গাড়ি
ফাইল ছবি

পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া নৌরুটে ফেরি চলাচল স্বাভাবিক হয়েছে। তবে দীর্ঘ সময় ফেরি বন্ধ থাকায় ঘাট এলাকায় পাঁচ শতাধিক বিভিন্ন ধরনের যানবাহন ফেরি পারের অপেক্ষায় আটকে রয়েছে।  

কুয়াশা কমে গেলে রোববার সকাল ১০টা থেকে ওই রুটে ফেরি চলাচল স্বাভাবিক হয়।

এর আগে ঘন কুয়াশার কারণে দুর্ঘটনা এড়াতে শনিবার দিবাগত রাত দেড়টা থেকে ফেরি চলাচল বন্ধ করে কর্তৃপক্ষ।

বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন কর্পোরেশনের (বিআইডব্লিউটিসি) আরিচা কার্যালয়ের ব্যবস্থাপক (বাণিজ্য) সালাম হোসেন জানান, শনিবার সন্ধ্যার পর থেকে নদী এলাকায় কুয়াশা পড়তে শুরু করে। পরে রাত দেড়টার দিকে ঘন কুয়াশায় তীব্রতা এতটাই প্রকোপ ছিল যে, নিকটবর্তী কোনো বস্তুও দেখা সম্ভব ছিল না। পরে নৌরুটে দুর্ঘটনা এড়াতে ফেরি চলাচল সাময়িকভাবে বন্ধ রাখা হয়।

পরে রোববার সকাল ১০টার দিকে কুয়াশার ঘনত্ব কমে গেলে ফেরি চলাচল শুরু করা হয়। দীর্ঘ সময় ফেরি চলাচল বন্ধ থাকায় নৌরুটের উভয় ফেরিঘাট এলাকা মিলে পাঁচ শতাধিক যানবাহন নৌরুট পারাপারের অপেক্ষায় রয়েছে।

সিরিয়াল অনুযায়ী অপেক্ষমাণ যানবাহনগুলোকে পারাপার শুরু করা হয় বলে জানান ব্যবস্থাপক (বাণিজ্য) সালাম হোসেন।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন