সীতাকুণ্ডে ডাকাত সন্দেহে একজনকে পিটিয়ে হত্যা
jugantor
সীতাকুণ্ডে ডাকাত সন্দেহে একজনকে পিটিয়ে হত্যা

  সীতাকুণ্ডু (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি  

১৮ জানুয়ারি ২০২১, ১০:০০:৫৪  |  অনলাইন সংস্করণ

চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডে ডাকাত সন্দেহে এক ব্যক্তিকে পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছে। এ ছাড়া দুজনকে আটক করা হয়েছে।

সোমবার দিনগত রাত ৪টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

নিহতের বয়স আনুমানিক ৫৫ বছর। তাৎক্ষণিকভাবে তার পরিচয় জানাতে পারেনি পুলিশ।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, গভীর রাতে উপজেলার মুরাদপুর ইউনিয়নে দুই বাড়িতে বাড়িতে ডাকাতি করে এক দল ডাকাত। ডাকাতি শেষে পালানোর সময় দুজনকে আটক করেন এলাকাবাসী।

এর পর ডাকাতদের ওই দলটি পার্শ্ববর্তী বাড়বকুণ্ড ইউনিয়নের মান্দারিটোলা গ্রামের ঢুকে। এ সময় ওই এলাকার লোকজন আগে থেকেই ডাকাতি রোধে পাহারা দিচ্ছিলেন। এ সময় তারা এক ডাকাতকে ধরে ফেলেন। পরে মাইকে ঘোষণা করলে এলাকাবাসী এসে তাকে গণপিটুনি দেন।

খবর পেয়ে পুলিশ আহতাবস্থায় তাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিলে দায়িত্বরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

মুরাদপুর ইউনিয়নের জাহিদ হোসেন নিজামী মেম্বার যুগান্তরকে জানান, প্রফেসর আবুল কালাম টুটুল ও নুর নবীর বাড়িতে ডাকাতি শেষে পালানোর সময় দুজনকে আটক করে পুলিশে দেওয়া হয়েছে।

বাড়বকুণ্ড ইউনিয়নের জামালউল্লাহ মেম্বার বলেন, মুরাদপুর ইউনিয়নে ডাকাতি করে আমাদের এলাকায় ঢুকলে পাহারাদাররা একজনকে ধরে ফেলে। পরে এলাকাবাসীর গণপিটুনিতে ওই ব্যক্তি গুরুতর আহত হন। পরে তাকে হাসপাতালে নেওয়ার পথে মারা যায়।

সীতাকুণ্ড থানার পরিদর্শক (তদন্ত) সুমন বণিক ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

সীতাকুণ্ডে ডাকাত সন্দেহে একজনকে পিটিয়ে হত্যা

 সীতাকুণ্ডু (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি 
১৮ জানুয়ারি ২০২১, ১০:০০ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডে ডাকাত সন্দেহে এক ব্যক্তিকে পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছে। এ ছাড়া দুজনকে আটক করা হয়েছে। 

সোমবার দিনগত রাত ৪টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। 

নিহতের বয়স আনুমানিক ৫৫ বছর। তাৎক্ষণিকভাবে তার পরিচয় জানাতে পারেনি পুলিশ।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, গভীর রাতে উপজেলার মুরাদপুর ইউনিয়নে দুই বাড়িতে বাড়িতে ডাকাতি করে এক দল ডাকাত। ডাকাতি শেষে পালানোর সময় দুজনকে আটক করেন এলাকাবাসী। 

এর পর ডাকাতদের ওই দলটি পার্শ্ববর্তী বাড়বকুণ্ড ইউনিয়নের মান্দারিটোলা গ্রামের ঢুকে। এ সময় ওই এলাকার লোকজন আগে থেকেই ডাকাতি রোধে পাহারা দিচ্ছিলেন। এ সময় তারা এক ডাকাতকে ধরে ফেলেন। পরে মাইকে ঘোষণা করলে এলাকাবাসী এসে তাকে গণপিটুনি দেন। 

খবর পেয়ে পুলিশ আহতাবস্থায় তাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিলে দায়িত্বরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। 

মুরাদপুর ইউনিয়নের জাহিদ হোসেন নিজামী মেম্বার যুগান্তরকে জানান, প্রফেসর আবুল কালাম টুটুল ও নুর নবীর বাড়িতে ডাকাতি শেষে পালানোর সময় দুজনকে আটক করে পুলিশে দেওয়া হয়েছে। 

বাড়বকুণ্ড ইউনিয়নের জামালউল্লাহ মেম্বার বলেন, মুরাদপুর ইউনিয়নে ডাকাতি করে আমাদের এলাকায় ঢুকলে পাহারাদাররা একজনকে ধরে ফেলে। পরে এলাকাবাসীর গণপিটুনিতে ওই ব্যক্তি গুরুতর আহত হন। পরে তাকে হাসপাতালে নেওয়ার পথে মারা যায়। 

সীতাকুণ্ড থানার পরিদর্শক (তদন্ত) সুমন বণিক ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন