নোয়াখালীর নতুন পাগলকে পাবনায় পাঠানো উচিত: নিক্সন চৌধুরী
jugantor
নোয়াখালীর নতুন পাগলকে পাবনায় পাঠানো উচিত: নিক্সন চৌধুরী

  ভাঙ্গা (ফরিদপুর) প্রতিনিধি  

১৮ জানুয়ারি ২০২১, ২১:৫৭:১২  |  অনলাইন সংস্করণ

ফরিদপুর-৪ আসনের সংসদ সদস্য ও আওয়ামী যুবলীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য মজিবর রহমান চৌধুরী নিক্সন বলেছেন, নোয়াখালীর জনৈক পাগল নেতা (কাদের মির্জা) বলেছেন, ফরিদপুর-৪ আসনে নাকি ভোট ডাকাতি করে আমি এমপি হয়েছি। নোয়াখালীর নতুন পাগলকে বাহিরে রাখা উচিত নয়, একে পাবনায় পাঠানো উচিত।

রোববার সন্ধ্যায় পৌর এলাকার ৭নং ওয়ার্ড রায়পাড়া স্কুলমাঠে আয়োজিত এক সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এমপি নিক্সন চৌধুরী এসব কথা বলেন।

তিনি আরও বলেন, আমি ওই পাগলকে চ্যালেঞ্জ করে বলব- গত দুইবার সংসদ নির্বাচনে এলাকার জনগণ উৎসবমুখর পরিবেশে ভোট দিয়ে আমাকে এমপি বানিয়েছে। এখানে তারা নৌকার বিপক্ষে নয়। দুর্নীতিবাজ পানামা কেলেঙ্কারির সঙ্গে জড়িত কাজী জাফরউল্লাহর বিরুদ্ধে আমাকে ভোট দিয়ে জয়যুক্ত করেছে।

নোয়াখালীর ওই নেতাকে উদ্দেশ করে নিক্সন চৌধুরী বলেন, আপনি কীভাবে জানলেন এখানে ভোট চুরি হয়েছে। কথায় আছে না ‘পুরনো পাগলে ভাত পায় না, নতুন পাগলের আমদানি’। আপনার দশাও হয়েছে তাই।

তিনি বলেন, আমি জীবনে কোনো দিন নোয়াখালী যাইনি। ভাইরাল হয়ে নেতা হতে চান। এসব পাগলামি ছাড়ুন, নয়তো জনগণ এমন ধোলাই দেবে আপনার চেহারা চেনা যাবে না।

তিনি আরও বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা উন্নয়ন দিয়ে বাংলাদেশকে বিশ্ব দরবারে রোল মডেল হিসেবে পরিচিত করিয়েছেন। আমি ফরিদপুর-৪ আসনে আমার নেতাকর্মীদের সঙ্গে নিয়ে ব্যাপক উন্নয়নের মডেল হিসেবে রূপ দিতে সক্ষম হয়েছি।

জনসভায় নিক্সন চৌধুরীর হাতে নৌকা তুলে দিয়ে তার রাজনীতির সাথে একাত্মতা প্রকাশ করেন ৭নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর বাকি মাতুব্বর।

সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে উপস্থিত হয়ে বক্তব্য রাখেন- থানার ওসি সৈয়দ লুৎফর রহমান, উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এসএম হাবিবুর রহমান, সাবেক উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শাহাদাৎ হোসেন, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ফাইজুর রহমান, ভাঙ্গা বাজার বণিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক আবু জাফর মুন্সী, আওয়ামী লীগ নেতা এ্যাপোলো নওরোজ, যুবলীগ নেতা জাহিদ মুন্সী প্রমুখ।

নোয়াখালীর নতুন পাগলকে পাবনায় পাঠানো উচিত: নিক্সন চৌধুরী

 ভাঙ্গা (ফরিদপুর) প্রতিনিধি 
১৮ জানুয়ারি ২০২১, ০৯:৫৭ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

ফরিদপুর-৪ আসনের সংসদ সদস্য ও আওয়ামী যুবলীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য মজিবর রহমান চৌধুরী নিক্সন বলেছেন, নোয়াখালীর জনৈক পাগল নেতা (কাদের মির্জা) বলেছেন, ফরিদপুর-৪ আসনে নাকি ভোট ডাকাতি করে আমি এমপি হয়েছি। নোয়াখালীর নতুন পাগলকে বাহিরে রাখা উচিত নয়, একে পাবনায় পাঠানো উচিত।

রোববার সন্ধ্যায় পৌর এলাকার ৭নং ওয়ার্ড রায়পাড়া স্কুলমাঠে আয়োজিত এক সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এমপি নিক্সন চৌধুরী এসব কথা বলেন।

তিনি আরও বলেন, আমি ওই পাগলকে চ্যালেঞ্জ করে বলব- গত দুইবার সংসদ নির্বাচনে এলাকার জনগণ উৎসবমুখর পরিবেশে ভোট দিয়ে আমাকে এমপি বানিয়েছে। এখানে তারা নৌকার বিপক্ষে নয়। দুর্নীতিবাজ পানামা কেলেঙ্কারির সঙ্গে জড়িত কাজী জাফরউল্লাহর বিরুদ্ধে আমাকে ভোট দিয়ে জয়যুক্ত করেছে।

নোয়াখালীর ওই নেতাকে উদ্দেশ করে নিক্সন চৌধুরী বলেন, আপনি কীভাবে জানলেন এখানে ভোট চুরি হয়েছে। কথায় আছে না ‘পুরনো পাগলে ভাত পায় না, নতুন পাগলের আমদানি’। আপনার দশাও হয়েছে তাই।

তিনি বলেন, আমি জীবনে কোনো দিন নোয়াখালী যাইনি। ভাইরাল হয়ে নেতা হতে চান। এসব পাগলামি ছাড়ুন, নয়তো জনগণ এমন ধোলাই দেবে আপনার চেহারা চেনা যাবে না।

তিনি আরও বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা উন্নয়ন দিয়ে বাংলাদেশকে বিশ্ব দরবারে রোল মডেল হিসেবে পরিচিত করিয়েছেন। আমি ফরিদপুর-৪ আসনে আমার নেতাকর্মীদের সঙ্গে নিয়ে ব্যাপক উন্নয়নের মডেল হিসেবে রূপ দিতে সক্ষম হয়েছি।

জনসভায় নিক্সন চৌধুরীর হাতে নৌকা তুলে দিয়ে তার রাজনীতির সাথে একাত্মতা প্রকাশ করেন ৭নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর বাকি মাতুব্বর।

সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে উপস্থিত হয়ে বক্তব্য রাখেন- থানার ওসি সৈয়দ লুৎফর রহমান, উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এসএম হাবিবুর রহমান, সাবেক উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শাহাদাৎ হোসেন, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ফাইজুর রহমান, ভাঙ্গা বাজার বণিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক আবু জাফর মুন্সী, আওয়ামী লীগ নেতা এ্যাপোলো নওরোজ, যুবলীগ নেতা জাহিদ মুন্সী প্রমুখ।

 

ঘটনাপ্রবাহ : আবদুল কাদের মির্জা

২২ ফেব্রুয়ারি, ২০২১
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন