বিদ্রোহী দুই মেয়র প্রার্থী আওয়ামী লীগ থেকে বহিষ্কার
jugantor
বিদ্রোহী দুই মেয়র প্রার্থী আওয়ামী লীগ থেকে বহিষ্কার

  ঝিনাইদহ প্রতিনিধি  

১৮ জানুয়ারি ২০২১, ২২:২৭:০৩  |  অনলাইন সংস্করণ

দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গ করে মেয়র পদে নির্বাচনে বিদ্রোহী প্রার্থী হওয়ায় ঝিনাইদহের কোটচাঁদপুর পৌর আওয়ামী লীগের যুগ্ম আহ্বায়ক মো. সহিদুজ্জামান সেলিম ও বর্তমান মেয়র মো. জাহিদুল ইসলাম জিরেকে দল থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে।

ঝিনাইদহ জেলা আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক মো. আছাদুজ্জামান আছাদ স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে।

সোমবার বিকালে প্রেরিত বিজ্ঞপ্তিতে আরও উল্লেখ করা হয়েছে ওই দুই ব্যক্তির সঙ্গে আওয়ামী লীগের আর কোনো সম্পর্ক নেই।

এদিকে কোটচাঁদপুরের ভোটের মাঠ উত্তপ্ত হয়ে উঠছে। তৃতীয় ধাপের আগামী ৩০ জানুয়ারি এ পৌরসভার নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। ইতোমধ্যে ভোট চাওয়াকে কেন্দ্র করে সন্ত্রাসী হামলা ঘটনা ঘটেছে।

এ বিষয়ে কোটচাঁদপুর থানার ওসি মাহাবুবুল আলম গণমাধ্যমকে বলেন, দুটি অভিযোগ পেয়েছি। অভিযোগ দুটির বিষয়ে তদন্ত শুরু হয়েছে।

মেয়র পদে আওয়ামী লীগ ও বিএনপি মনোনীত প্রার্থীর সঙ্গে পাল্লা দিয়ে আওয়ামী লীগ থেকে দুজন বিদ্রোহী স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। মেয়র পদে যারা প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. শাহাজাহান আলী ( নৌকা প্রতীক) বিএনপি মনোনীত প্রার্থী (ধানের শীষ) পৌর বিএনপির আহ্বায়ক সালাহউদ্দীন বুলবুল সিডল এবং আওয়ামী লীগ থেকে বহিষ্কৃত স্বতন্ত্র প্রার্থী বর্তমান মেয়র জাহিদুল ইসলাম জিরে (নারকেল গাছ) এবং শহিদুজ্জামান সেলিম (মোবাইল ফোন)।

১১ জানুয়ারি প্রতীক বরাদ্দের প্রার্থীই প্রচারণা শুরু করেছেন। গত দুই দিনে সন্ত্রাসী হামলার শিকার হয়েছেন স্বতন্ত্র দুই প্রার্থীর কর্মীরা। গুরুতর আহত হয়ে রবিউল নামের একজন স্থানীয় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

নির্বাচনে সংরক্ষিত মহিলা আসনে ১২ জন এবং সাধারণ কাউন্সিলর পদে ৩৩ জন নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। মোট ভোটার সংখ্যা ২৭ হাজার ৪৯৩। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ১৩ হাজার ৪৮৫ জন এবং মহিলা ভোটার ১৪ হাজার আটজন। ৯টি ওয়ার্ডের ভোট কেন্দ্র রয়েছে ১৪টি।

বিদ্রোহী দুই মেয়র প্রার্থী আওয়ামী লীগ থেকে বহিষ্কার

 ঝিনাইদহ প্রতিনিধি 
১৮ জানুয়ারি ২০২১, ১০:২৭ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গ করে মেয়র পদে নির্বাচনে বিদ্রোহী প্রার্থী হওয়ায় ঝিনাইদহের কোটচাঁদপুর পৌর আওয়ামী লীগের যুগ্ম আহ্বায়ক মো. সহিদুজ্জামান সেলিম ও বর্তমান মেয়র মো. জাহিদুল ইসলাম জিরেকে দল থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে। 

ঝিনাইদহ জেলা আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক মো. আছাদুজ্জামান আছাদ স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে। 

সোমবার বিকালে প্রেরিত বিজ্ঞপ্তিতে আরও উল্লেখ করা হয়েছে ওই দুই ব্যক্তির সঙ্গে আওয়ামী লীগের আর কোনো সম্পর্ক নেই।

এদিকে কোটচাঁদপুরের ভোটের মাঠ উত্তপ্ত হয়ে উঠছে। তৃতীয় ধাপের আগামী ৩০ জানুয়ারি এ পৌরসভার নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। ইতোমধ্যে ভোট চাওয়াকে কেন্দ্র করে সন্ত্রাসী হামলা ঘটনা ঘটেছে।

এ বিষয়ে কোটচাঁদপুর থানার ওসি মাহাবুবুল আলম গণমাধ্যমকে বলেন, দুটি অভিযোগ পেয়েছি। অভিযোগ দুটির বিষয়ে তদন্ত শুরু হয়েছে।

মেয়র পদে আওয়ামী লীগ ও বিএনপি মনোনীত প্রার্থীর সঙ্গে পাল্লা দিয়ে আওয়ামী লীগ থেকে দুজন বিদ্রোহী স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। মেয়র পদে যারা প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. শাহাজাহান আলী ( নৌকা প্রতীক) বিএনপি মনোনীত প্রার্থী (ধানের শীষ) পৌর বিএনপির আহ্বায়ক সালাহউদ্দীন বুলবুল সিডল এবং আওয়ামী লীগ থেকে বহিষ্কৃত স্বতন্ত্র প্রার্থী বর্তমান মেয়র জাহিদুল ইসলাম জিরে (নারকেল গাছ) এবং  শহিদুজ্জামান সেলিম (মোবাইল ফোন)।

১১ জানুয়ারি প্রতীক বরাদ্দের প্রার্থীই প্রচারণা শুরু করেছেন। গত দুই দিনে সন্ত্রাসী হামলার শিকার হয়েছেন স্বতন্ত্র দুই প্রার্থীর কর্মীরা। গুরুতর আহত হয়ে রবিউল নামের একজন স্থানীয় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

নির্বাচনে সংরক্ষিত মহিলা আসনে ১২ জন এবং সাধারণ কাউন্সিলর পদে ৩৩ জন নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। মোট ভোটার সংখ্যা ২৭ হাজার ৪৯৩। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ১৩ হাজার ৪৮৫ জন এবং মহিলা ভোটার ১৪ হাজার আটজন। ৯টি ওয়ার্ডের ভোট কেন্দ্র রয়েছে ১৪টি।

 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন