যশোরে অবৈধ ক্লিনিক সিলগালা, জরিমানা
jugantor
যশোরে অবৈধ ক্লিনিক সিলগালা, জরিমানা

  বেনাপোল (যশোর) প্রতিনিধি  

২০ জানুয়ারি ২০২১, ১৪:৫২:২০  |  অনলাইন সংস্করণ

যশোরে অবৈধ ক্লিনিক সিলগালা, জরিমানা

যশোরের শার্শা উপজেলায় বাগআঁচড়ায় অভিযান চালিয়ে নানা অনিয়মের অভিযোগে একটি অবৈধ ক্লিনিক সিলগালা করে দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। একই সঙ্গে ক্লিনিক মালিক ডা. আবদুল মজিদকে এক লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

মঙ্গলবার রাতে এ অভিযান পরিচালনা করেন উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট রাসনা শারমিন মিথী।

শার্শা উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ও পরিবার কল্যাণ কর্মকর্তা ডা. মো. ইউসুফ আলী জানান, এলাকাবাসীর অভিযোগের ভিত্তিতে বাগআঁচড়া বাজারের একটি মার্কেটে অভিযান চালানো হয়। সেখানে মার্কেটের করিডরে লাইসেন্স ছাড়া গ্রাম্য ডাক্তার ও গ্রাম্য নার্স দিয়ে চলছিল একটি ক্লিনিক।

স্বাস্থ্য বিভাগের অনুমোদন নেই। তার পরও গ্রাম্য ডাক্তার ও নার্স দিয়ে প্রতিদিন রোগী দেখা এবং প্যাথলজিক্যালে পরীক্ষা-নিরীক্ষার জন্য ভর্তি করা হচ্ছে রোগী।

অভিযানের সময় এমন অনিয়মের চিত্র ওঠে আসায় ক্লিনিক মালিক ডা. আবদুল মজিদকে এক লাখ টাকা জরিমানা এবং ক্লিনিকটি সিলগালা করে দেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।

সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট রাসনা শারমিন বলেন, লাইসেন্সবিহীন, গ্রাম্য ডাক্তার ও গ্রাম্য নার্স দিয়ে অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে অবৈধ ক্লিনিক পরিচালনা করায় এলাকার মানুষ স্বাস্থ্যঝুঁকিতে ছিল।

খবর পেয়ে আমরা অভিযান চালিয়ে নামবিহীন ক্লিনিকের মালিককে এক লাখ টাকা জরিমানা ও ক্লিনিকটি সিলগালা করে দিয়েছি।

যশোরে অবৈধ ক্লিনিক সিলগালা, জরিমানা

 বেনাপোল (যশোর) প্রতিনিধি 
২০ জানুয়ারি ২০২১, ০২:৫২ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
যশোরে অবৈধ ক্লিনিক সিলগালা, জরিমানা
ফাইল ছবি

যশোরের শার্শা উপজেলায় বাগআঁচড়ায় অভিযান চালিয়ে নানা অনিয়মের অভিযোগে একটি অবৈধ ক্লিনিক সিলগালা করে দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। একই সঙ্গে ক্লিনিক মালিক ডা. আবদুল মজিদকে এক লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

মঙ্গলবার রাতে এ অভিযান পরিচালনা করেন উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট রাসনা শারমিন মিথী।

শার্শা উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ও পরিবার কল্যাণ কর্মকর্তা ডা. মো. ইউসুফ আলী জানান, এলাকাবাসীর অভিযোগের ভিত্তিতে বাগআঁচড়া বাজারের একটি মার্কেটে অভিযান চালানো হয়। সেখানে মার্কেটের করিডরে লাইসেন্স ছাড়া গ্রাম্য ডাক্তার ও গ্রাম্য নার্স দিয়ে চলছিল একটি ক্লিনিক।

স্বাস্থ্য বিভাগের অনুমোদন নেই। তার পরও গ্রাম্য ডাক্তার ও নার্স দিয়ে প্রতিদিন রোগী দেখা এবং প্যাথলজিক্যালে পরীক্ষা-নিরীক্ষার জন্য ভর্তি করা হচ্ছে রোগী।

অভিযানের সময় এমন অনিয়মের চিত্র ওঠে আসায় ক্লিনিক মালিক ডা. আবদুল মজিদকে এক লাখ টাকা জরিমানা এবং ক্লিনিকটি সিলগালা করে দেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।

সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট রাসনা শারমিন বলেন, লাইসেন্সবিহীন, গ্রাম্য ডাক্তার ও গ্রাম্য নার্স দিয়ে অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে অবৈধ ক্লিনিক পরিচালনা করায় এলাকার মানুষ স্বাস্থ্যঝুঁকিতে ছিল।

খবর পেয়ে আমরা অভিযান চালিয়ে নামবিহীন ক্লিনিকের মালিককে এক লাখ টাকা জরিমানা ও ক্লিনিকটি সিলগালা করে দিয়েছি।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন