আওয়ামী লীগের সভায় ১৪৪ ধারা
jugantor
আওয়ামী লীগের সভায় ১৪৪ ধারা

  লালপুর (নাটোর) প্রতিনিধি  

২১ জানুয়ারি ২০২১, ১৬:৪৯:৩৩  |  অনলাইন সংস্করণ

নাটোরের লালপুরে আওয়ামী লীগের দুই পক্ষ একই স্থানে সভা আহ্বান করায় ১৪৪ ধারা জারি করেছে স্থানীয় প্রশাসন। বৃহস্পতিবার বিকাল ৪টায় উপজেলার কদিমচিলান ইউনিয়নের সেকচিলান উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে এ সভার আহ্বান করা হয়।

সভাকে কেন্দ্র করে ওই এলাকায় নেতাকর্মীদের ও সাধারণ মানুষের মধ্যে উত্তেজনা দেখা দেয়। এলাকার আইন শৃঙ্খলা রক্ষার্থে ও শান্তিপূর্ণ পরিবেশ বজায় রাখার জন্য লালপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট উম্মুল বানীন দ্যূতি সভাস্থলে ১৪৪ ধারা জারির আদেশ প্রদান করেন।

আদেশে সভাস্থলে বৃহস্পতিবার দুপুর ১২টা থেকে সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত আইন শৃঙ্খলা নিয়ন্ত্রণকারী বাহিনীর সদস্য ব্যতীত অন্য কোনো ব্যক্তির প্রবেশ, সব প্রকার সভা, সমাবেশ, মিছিল, শোভাযাত্রা, আগ্নেয়াস্ত্র ও লাঠিসোটা বহন নিষিদ্ধ ঘোষণা করা হয়।

এ বিষয়ে কদিমচিলান ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি হাসান আলী বলেন, স্থানীয় সংসদ সদস্য শহিদুল ইসলাম বকুল গ্রুপের লোকজন অবৈধ ভাবে ১, ২ও ৩নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সম্মেলনের আহ্বান করেন। তারা এ বিষয়ে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের কাউকে না জানিয়ে এই সভার আহ্বান জানিয়েছে। অথচ সেকচিলান উচ্চ বিদ্যালয়ের মাঠে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের বর্ধিত সভার আহ্বান করা হয়।

লালপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আফতাব হোসেন ঝুলফু ও সাধারণ সম্পাদক ইসাহাক আলী বলেন, স্থানীয় সংসদ সদস্য শহিদুল ইসলাম বকুল গ্রুপ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের অনুমতি ছাড়া কদিমচিলান ইউনিয়নের ১, ২ ও ৩নং ওয়ার্ডের আওয়ামী লীগের সম্মেলনের আহ্বান জানান। দলের ভিতর কোন্দল ও বিশৃঙ্খলার সৃষ্টির উদ্দেশ্যে তারা এই সম্মেলনের আহ্বান জানান।

লালপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার উম্মুল বানীন দ্যূতি বিষয়টির সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, আইন শৃঙ্খলা রক্ষার্থে ও এলাকায় শান্তিপূর্ণ পরিবেশ বজায় রাখার জন্য এই আদেশ প্রদান করা হয়েছে।

এ বিষয়ে স্থানীয় সংসদ সদস্য শহিদুল ইসলাম বকুল বলেন, বিষয়টি আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা জানেন।

আওয়ামী লীগের সভায় ১৪৪ ধারা

 লালপুর (নাটোর) প্রতিনিধি 
২১ জানুয়ারি ২০২১, ০৪:৪৯ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

নাটোরের লালপুরে আওয়ামী লীগের দুই পক্ষ একই স্থানে সভা আহ্বান করায় ১৪৪ ধারা জারি করেছে স্থানীয় প্রশাসন। বৃহস্পতিবার বিকাল ৪টায় উপজেলার কদিমচিলান ইউনিয়নের সেকচিলান উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে এ সভার আহ্বান করা হয়।

সভাকে কেন্দ্র করে ওই এলাকায় নেতাকর্মীদের ও সাধারণ মানুষের মধ্যে উত্তেজনা দেখা দেয়। এলাকার আইন শৃঙ্খলা রক্ষার্থে ও শান্তিপূর্ণ পরিবেশ বজায় রাখার জন্য লালপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট উম্মুল বানীন দ্যূতি সভাস্থলে ১৪৪ ধারা জারির আদেশ প্রদান করেন।

আদেশে সভাস্থলে বৃহস্পতিবার দুপুর ১২টা থেকে সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত আইন শৃঙ্খলা নিয়ন্ত্রণকারী বাহিনীর সদস্য ব্যতীত অন্য কোনো ব্যক্তির প্রবেশ, সব প্রকার সভা, সমাবেশ, মিছিল, শোভাযাত্রা, আগ্নেয়াস্ত্র ও লাঠিসোটা বহন নিষিদ্ধ ঘোষণা করা হয়।

এ বিষয়ে কদিমচিলান ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি হাসান আলী বলেন, স্থানীয় সংসদ সদস্য শহিদুল ইসলাম বকুল গ্রুপের লোকজন  অবৈধ ভাবে ১, ২ও ৩নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সম্মেলনের আহ্বান করেন। তারা এ বিষয়ে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের কাউকে না জানিয়ে এই সভার আহ্বান জানিয়েছে। অথচ সেকচিলান উচ্চ বিদ্যালয়ের মাঠে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের বর্ধিত সভার আহ্বান করা হয়।
  
লালপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আফতাব হোসেন ঝুলফু ও সাধারণ সম্পাদক ইসাহাক আলী বলেন, স্থানীয় সংসদ সদস্য শহিদুল ইসলাম বকুল গ্রুপ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের অনুমতি ছাড়া কদিমচিলান ইউনিয়নের ১, ২ ও ৩নং ওয়ার্ডের আওয়ামী লীগের সম্মেলনের আহ্বান জানান। দলের ভিতর কোন্দল ও বিশৃঙ্খলার সৃষ্টির উদ্দেশ্যে তারা এই সম্মেলনের আহ্বান জানান।

লালপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার উম্মুল বানীন দ্যূতি বিষয়টির সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, আইন শৃঙ্খলা রক্ষার্থে ও এলাকায় শান্তিপূর্ণ পরিবেশ বজায় রাখার জন্য এই আদেশ প্রদান করা হয়েছে।

এ বিষয়ে স্থানীয় সংসদ সদস্য শহিদুল ইসলাম বকুল বলেন, বিষয়টি আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা জানেন।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন