বরগুনায় গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণে নিহত ১, আহত শতাধিক
jugantor
বরগুনায় গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণে নিহত ১, আহত শতাধিক

  পাথরঘাটা (বরগুনা) প্রতিনিধি  

২২ জানুয়ারি ২০২১, ১৩:১৫:২৭  |  অনলাইন সংস্করণ

হাসপাতাল

বরগুনার পাথরঘাটায় বরফমিলের অ্যামোনিয়া গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণে একজন নিহত হয়েছেন।

এ ছাড়া বিষাক্ত গ্যাসে ফায়ার সার্ভিসের দুই কর্মীসহ শতাধিক ব্যক্তি আহত হয়েছেন। বিস্ফোরণের পর অ্যামোনিয়া গ্যাস ছড়িয়ে পড়ায় আতঙ্কে রয়েছেন এলাকার মানুষ। আহতদের উপজেলা হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, বৃহস্পতিবার রাত ১২টার দিকে পৌর শহরের ৯নং ওয়ার্ডে মোল্লা আইচ ফ্যাক্টরিতে হঠাৎ গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণ হয়।

এতে ঘটনাস্থলেই মিলের মিস্ত্রি শাজাহান হোসেন সম্রাট মারা যান। তার বাড়ি পিরোজপুর জেলার বাদুরা গ্রামে।

বিস্ফোরণের পর প্রায় এক কিলোমিটার এলাকাজুড়ে বিষাক্ত অ্যামোনিয়া গ্যাস ছড়িয়ে পড়ে। এতে শতাধিক ব্যক্তি শ্বাসকষ্টে অসুস্থ হয়ে তাদের উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়।

এদের মধ্যে ফায়ার সার্ভিসের দুই কর্মীসহ সাতজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় তাদের বরিশাল শেরেবাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়।

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে বর্তমানে ৩০ জনকে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে, বাকিরা প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়ে বাড়িতে ফিরে গেছেন বলে জানিয়েছেন হাসপাতালের দায়িত্বরত চিকিৎসক আবুল ফাত্তহ।

পাথরঘাটা ফায়ার সার্ভিসের কর্মকর্তা খলিলুর রহমান যুগান্তরকে জানান, বিস্ফোরণের খবর পেয়ে দুটি ইউনিট ঘটনাস্থলে পৌঁছলে গ্যাসের তীব্রতায় কাছে যেতে পারেনি। আমাদের প্রয়োজনীয় সরঞ্জাম না থাকায় দুই কর্মীর শ্বাসকষ্ট অত্যধিক হওয়ায় বরিশালে পাঠানো হয়েছে।

বরগুনায় গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণে নিহত ১, আহত শতাধিক

 পাথরঘাটা (বরগুনা) প্রতিনিধি 
২২ জানুয়ারি ২০২১, ০১:১৫ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
হাসপাতাল
ছবি-যুগান্তর

বরগুনার পাথরঘাটায় বরফমিলের অ্যামোনিয়া গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণে একজন নিহত হয়েছেন। 

এ ছাড়া বিষাক্ত গ্যাসে ফায়ার সার্ভিসের দুই কর্মীসহ শতাধিক ব্যক্তি আহত হয়েছেন। বিস্ফোরণের পর অ্যামোনিয়া গ্যাস ছড়িয়ে পড়ায় আতঙ্কে রয়েছেন এলাকার মানুষ। আহতদের উপজেলা হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, বৃহস্পতিবার রাত ১২টার দিকে পৌর শহরের ৯নং ওয়ার্ডে মোল্লা আইচ ফ্যাক্টরিতে হঠাৎ গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণ হয়।

এতে ঘটনাস্থলেই মিলের মিস্ত্রি শাজাহান হোসেন সম্রাট মারা যান। তার বাড়ি পিরোজপুর জেলার বাদুরা গ্রামে।

বিস্ফোরণের পর প্রায় এক কিলোমিটার এলাকাজুড়ে বিষাক্ত অ্যামোনিয়া গ্যাস ছড়িয়ে পড়ে। এতে শতাধিক ব্যক্তি শ্বাসকষ্টে অসুস্থ হয়ে তাদের উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। 

এদের মধ্যে ফায়ার সার্ভিসের দুই কর্মীসহ সাতজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় তাদের বরিশাল শেরেবাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়।

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে বর্তমানে ৩০ জনকে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে, বাকিরা প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়ে বাড়িতে ফিরে গেছেন বলে জানিয়েছেন হাসপাতালের দায়িত্বরত চিকিৎসক আবুল ফাত্তহ।

পাথরঘাটা ফায়ার সার্ভিসের কর্মকর্তা খলিলুর রহমান যুগান্তরকে জানান, বিস্ফোরণের খবর পেয়ে দুটি ইউনিট ঘটনাস্থলে পৌঁছলে গ্যাসের তীব্রতায় কাছে যেতে পারেনি। আমাদের প্রয়োজনীয় সরঞ্জাম না থাকায় দুই কর্মীর শ্বাসকষ্ট অত্যধিক হওয়ায় বরিশালে পাঠানো হয়েছে।

 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন