মা-বোনকে জিম্মি করে সন্ত্রাসী হামলা, লুটপাট
jugantor
মা-বোনকে জিম্মি করে সন্ত্রাসী হামলা, লুটপাট

  ভূঞাপুর (টাঙ্গাইল) প্রতিনিধি  

২২ জানুয়ারি ২০২১, ১৭:২৯:৪৮  |  অনলাইন সংস্করণ

টাঙ্গাইলের ভূঞাপুরে মা-বোনকে জিম্মি করে দিনে দুপুরে একটি বাড়িতে ভাঙচুর, লুটপাট ও সন্ত্রাসী হামলার ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় বাড়ির মালিক মনির (৩২) নামে এক যুবককে পিটিয়ে গুরুতর আহত করেছে সন্ত্রাসীরা।

বৃহস্পতিবার দুপুরে উপজেলার ফলদা ইউনিয়নের আগতেরিল্ল্যা গ্রামের মৃত আব্দুর জব্বার আলীর বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে। মনির বর্তমানে টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

শুক্রবার সকালে সরেজমিনে দেখা গেছে, ওই বাড়িতে ঘরের ভেতরে আলমারি, গ্যাসের চুলা, টিভি, একটি স্মার্ট মোবাইল ফোনসহ প্রায় তিন লাখ টাকার বিভিন্ন আসবাবপত্র ভাঙচুর করেছে সন্ত্রাসীরা। এ ছাড়াও পরে প্রায় ১০ ভরি স্বর্ণ ও নগদ টাকা লুটপাট করে পালিয়ে যায় বলে জানান বাড়ি ও আশপাশের লোকজন।

চিকিৎসাধীন মনিরের বড় বোন বলেন, বৃহস্পতিবার দুপুরে স্থানীয় বখাটে সম্রাট ও বাপ্পীর নেতৃত্বে ১৩ থেকে ১৪ জনের একটি সন্ত্রাসী দল ঘরে প্রবেশ করে মোটা অংকের টাকা চাঁদা দাবি করে। মনির তাদেরকে চাঁদা দিতে অস্বীকার করায় তারা মারপিট শুরু করে। এ সময় আমার বৃদ্ধ মা ও আমি বাঁধা দিতে গেলে আমাদের প্রাণে মেরে ফেলার হুমকি ও ভয় দেখিয়ে আসবাবপত্র, মোবাইল ভাঙচুর, ১০ ভরি স্বর্ণসহ নগদ টাকা নিয়ে চলে যায়। পরে আমরা চিৎকার করলে স্থানীয়রা এগিয়ে আসলে তারা চলে যায়। পরে স্থানীয়দের সহযোগিতায় আহত ভাইকে গুরুতর অবস্থায় টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করি।

স্থানীয়রা জানান, ওই সন্ত্রাসী গ্রুপের সদস্যরা এলাকার চিহ্নিত মাদকসেবী ও বখাটে। এর আগেও একাধিকবার এমন ঘটনা ঘটিয়েছে ওরা। এসব সন্ত্রাসীদের কঠোর শাস্তির দাবি করছি।

স্থানীয় ইউপি সদস্য মো. রিপন জানান, দিনে দুপুরে হামলার খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। অপরাধীদের বিচারের আওতায় এনে সুষ্ঠু সমাধানের চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি।

এ বিষয়ে ফলদা ইউপি চেয়ারম্যান সাইদুল ইসলাম তালুকদার দুদু জানান, বিষয়টা জেনেছি। ঘটনায় জড়িতদের ব্যাপারে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

এ ঘটনায় ভূঞাপুর থানার ওসি মো. রাশিদুল ইসলাম জানান, সন্ত্রাসী হামলার ঘটনায় কোনো অভিযোগ পাওয়া যায়নি। অভিযোগ পেলে তদন্ত সাপেক্ষে জড়িতদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেয়া হবে।

মা-বোনকে জিম্মি করে সন্ত্রাসী হামলা, লুটপাট

 ভূঞাপুর (টাঙ্গাইল) প্রতিনিধি 
২২ জানুয়ারি ২০২১, ০৫:২৯ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

টাঙ্গাইলের ভূঞাপুরে মা-বোনকে জিম্মি করে দিনে দুপুরে একটি বাড়িতে ভাঙচুর, লুটপাট ও সন্ত্রাসী হামলার ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় বাড়ির মালিক মনির (৩২) নামে এক যুবককে পিটিয়ে গুরুতর আহত করেছে সন্ত্রাসীরা।

বৃহস্পতিবার দুপুরে উপজেলার ফলদা ইউনিয়নের আগতেরিল্ল্যা গ্রামের মৃত আব্দুর জব্বার আলীর বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে। মনির বর্তমানে টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

শুক্রবার সকালে সরেজমিনে দেখা গেছে, ওই বাড়িতে ঘরের ভেতরে আলমারি, গ্যাসের চুলা, টিভি, একটি স্মার্ট মোবাইল ফোনসহ প্রায় তিন লাখ টাকার বিভিন্ন আসবাবপত্র ভাঙচুর করেছে সন্ত্রাসীরা। এ ছাড়াও পরে প্রায় ১০ ভরি স্বর্ণ ও নগদ টাকা লুটপাট করে পালিয়ে যায় বলে জানান বাড়ি ও আশপাশের লোকজন।

চিকিৎসাধীন মনিরের বড় বোন বলেন, বৃহস্পতিবার দুপুরে স্থানীয় বখাটে সম্রাট ও বাপ্পীর নেতৃত্বে ১৩ থেকে ১৪ জনের একটি সন্ত্রাসী দল ঘরে প্রবেশ করে মোটা অংকের টাকা চাঁদা দাবি করে। মনির তাদেরকে চাঁদা দিতে অস্বীকার করায় তারা মারপিট শুরু করে। এ সময় আমার বৃদ্ধ মা ও আমি বাঁধা দিতে গেলে আমাদের প্রাণে মেরে ফেলার হুমকি ও ভয় দেখিয়ে আসবাবপত্র, মোবাইল ভাঙচুর, ১০ ভরি স্বর্ণসহ নগদ টাকা নিয়ে চলে যায়। পরে আমরা চিৎকার করলে স্থানীয়রা এগিয়ে আসলে তারা চলে যায়। পরে স্থানীয়দের সহযোগিতায় আহত ভাইকে গুরুতর অবস্থায় টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করি।

স্থানীয়রা জানান, ওই সন্ত্রাসী গ্রুপের সদস্যরা এলাকার চিহ্নিত মাদকসেবী ও বখাটে। এর আগেও একাধিকবার এমন ঘটনা ঘটিয়েছে ওরা। এসব সন্ত্রাসীদের কঠোর শাস্তির দাবি করছি।

স্থানীয় ইউপি সদস্য মো. রিপন জানান, দিনে দুপুরে হামলার খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। অপরাধীদের বিচারের আওতায় এনে সুষ্ঠু সমাধানের চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি।

এ বিষয়ে ফলদা ইউপি চেয়ারম্যান সাইদুল ইসলাম তালুকদার দুদু জানান, বিষয়টা জেনেছি। ঘটনায় জড়িতদের ব্যাপারে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

এ ঘটনায় ভূঞাপুর থানার ওসি মো. রাশিদুল ইসলাম জানান, সন্ত্রাসী হামলার ঘটনায় কোনো অভিযোগ পাওয়া যায়নি। অভিযোগ পেলে তদন্ত সাপেক্ষে জড়িতদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেয়া হবে।

 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন