সড়কে প্রাণ গেল ব্যাংক কর্মকর্তাসহ ২ জনের
jugantor
সড়কে প্রাণ গেল ব্যাংক কর্মকর্তাসহ ২ জনের

  দিনাজপুর প্রতিনিধি  

২২ জানুয়ারি ২০২১, ২১:২০:৪৩  |  অনলাইন সংস্করণ

দিনাজপুরের পার্বতীপুর সড়ক দুর্ঘটনায় এক ব্যাংক কর্মকর্তাসহ ২ জন নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আহত হয়েছে অপর একজন। বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতে এই দুর্ঘটনা ঘটে। হতাহতরা সবাই মোটরসাইকেল আরোহী এবং ফুলবাড়ী পৌর এলাকার কাঁটাবাড়ী মহল্লার বাসিন্দা।

নিহতরা হচ্ছেন-রাজশাহী কৃষি উন্নয়ন ব্যাংক কুড়িগ্রাম শাখার কর্মকর্তা প্রীতম গুপ্ত (২৬) ও তার খালাতো ভাই শুভজিৎ গুপ্ত সুপ্রিয় (১৮)। আহত হয়েছেন পৃথিবী রায় (১৮) নামে অপর এক যুবক।

নিহত শুভজিৎ গুপ্ত সুপ্রিয় (১৮) ফুলবাড়ী পৌর শহরের কাঁটাবাড়ী মহল্লার কাটিহাধর এলাকার অশোক গুপ্তের ছেলে ও প্রীতম গুপ্ত (২৫) পৌর শহরের সাবেক কাপড় ব্যবসায়ী নির্মল গুপ্তের ছেলে। আহত পৃথিবী রায় কাঁটাবাড়ী মহল্লার কালিকান্ত রায় দিল্লুর ছেলে।

পুলিশ ও পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, শুভজিৎ গুপ্তের খালাতো ভাই প্রীতম গুপ্ত কুড়িগ্রামে রাজশাহী কৃষি উন্নয়ন ব্যাংকে কর্মকর্তা পদে চাকরি করতেন। বৃহস্পতিবার তাকে আনতে ফুলবাড়ী থেকে মোটরসাইকেলযোগে কুড়িগ্রামে যায় শুভজিৎ গুপ্ত সুপ্রিয় এবং পৃথিবী রায়। এরপর তিনজনই মোটরসাইকেলযোগে ফুলবাড়ী আসছিলেন। বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত সাড়ে ১১টায় মধ্যপাড়া-ফুলবাড়ী সড়কে পার্বতীপুর উপজেলার মহেশপুর নামক স্থানে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে একটি আখ বোঝাই ট্রাকের পেছনে ধাক্কা দেয় মোটরসাইকেলটি। এতে ঘটনাস্থলেই নিহত হন শুভজিৎ গুপ্ত।

ব্যাংক কর্মকর্তা প্রীতম গুপ্ত ও পৃথিবী রায়কে গুরুতর আহত অবস্থায় ফুলবাড়ী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসা হলে অবস্থার অবনতি হওয়ায় তাদের রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়ার পথেই মারা যান ব্যাংক কর্মকর্তা প্রীতম গুপ্ত। পৃথিবী রায় বর্তমানে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

ফুলবাড়ী থানার ওসি ফখরুল ইসলাম ঘটনাটির সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

পার্বতীপুরের বড়পুকুরিয়া পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ সুলতান মাহমুদ বলেন, রাতেই সড়ক দুর্ঘটনার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে যাই। তার আগেই স্থানীয়রা দুর্ঘটনায় আহত ও নিহত ব্যক্তিদের উদ্ধার করে ফুলবাড়ী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়।

তিনি বলেন, কীভাবে এই দুর্ঘটনা ঘটেছে এটি আমার জানা নেই। তবে ঘন কুয়াশার কারণে এমন ঘটনা ঘটতে পাবে বলে তিনি জানান।

সড়কে প্রাণ গেল ব্যাংক কর্মকর্তাসহ ২ জনের

 দিনাজপুর প্রতিনিধি 
২২ জানুয়ারি ২০২১, ০৯:২০ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

দিনাজপুরের পার্বতীপুর সড়ক দুর্ঘটনায় এক ব্যাংক কর্মকর্তাসহ ২ জন নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আহত হয়েছে অপর একজন। বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতে এই দুর্ঘটনা ঘটে। হতাহতরা সবাই মোটরসাইকেল আরোহী এবং ফুলবাড়ী পৌর এলাকার কাঁটাবাড়ী মহল্লার বাসিন্দা।

নিহতরা হচ্ছেন-রাজশাহী কৃষি উন্নয়ন ব্যাংক কুড়িগ্রাম শাখার কর্মকর্তা প্রীতম গুপ্ত (২৬) ও তার খালাতো ভাই শুভজিৎ গুপ্ত সুপ্রিয় (১৮)। আহত হয়েছেন পৃথিবী রায় (১৮) নামে অপর এক যুবক।

নিহত শুভজিৎ গুপ্ত সুপ্রিয় (১৮) ফুলবাড়ী পৌর শহরের কাঁটাবাড়ী মহল্লার কাটিহাধর এলাকার অশোক গুপ্তের ছেলে ও প্রীতম গুপ্ত (২৫) পৌর শহরের সাবেক কাপড় ব্যবসায়ী নির্মল গুপ্তের ছেলে। আহত পৃথিবী রায় কাঁটাবাড়ী মহল্লার কালিকান্ত রায় দিল্লুর ছেলে।
 
পুলিশ ও পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, শুভজিৎ গুপ্তের খালাতো ভাই প্রীতম গুপ্ত কুড়িগ্রামে রাজশাহী কৃষি উন্নয়ন ব্যাংকে কর্মকর্তা পদে চাকরি করতেন। বৃহস্পতিবার তাকে আনতে ফুলবাড়ী থেকে মোটরসাইকেলযোগে কুড়িগ্রামে যায় শুভজিৎ গুপ্ত সুপ্রিয় এবং পৃথিবী রায়। এরপর তিনজনই মোটরসাইকেলযোগে ফুলবাড়ী আসছিলেন। বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত সাড়ে ১১টায় মধ্যপাড়া-ফুলবাড়ী সড়কে পার্বতীপুর উপজেলার মহেশপুর নামক স্থানে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে একটি আখ বোঝাই ট্রাকের পেছনে ধাক্কা দেয় মোটরসাইকেলটি। এতে ঘটনাস্থলেই নিহত হন শুভজিৎ গুপ্ত।

ব্যাংক কর্মকর্তা প্রীতম গুপ্ত ও পৃথিবী রায়কে গুরুতর আহত অবস্থায় ফুলবাড়ী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসা হলে অবস্থার অবনতি হওয়ায় তাদের রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়ার পথেই মারা যান ব্যাংক কর্মকর্তা প্রীতম গুপ্ত। পৃথিবী রায় বর্তমানে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

ফুলবাড়ী থানার ওসি ফখরুল ইসলাম ঘটনাটির সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

পার্বতীপুরের বড়পুকুরিয়া পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ সুলতান মাহমুদ বলেন, রাতেই সড়ক দুর্ঘটনার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে যাই। তার আগেই স্থানীয়রা দুর্ঘটনায় আহত ও নিহত ব্যক্তিদের উদ্ধার করে ফুলবাড়ী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়।

তিনি বলেন, কীভাবে এই দুর্ঘটনা ঘটেছে এটি আমার জানা নেই। তবে ঘন কুয়াশার কারণে এমন ঘটনা ঘটতে পাবে বলে তিনি জানান।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন