চোর সন্দেহে যুবককে গণপিটুনি, এক সপ্তাহ পর মৃত্যু
jugantor
চোর সন্দেহে যুবককে গণপিটুনি, এক সপ্তাহ পর মৃত্যু

  চান্দিনা (কুমিল্লা) প্রতিনিধি  

২২ জানুয়ারি ২০২১, ২৩:০৩:০৮  |  অনলাইন সংস্করণ

কুমিল্লার চান্দিনায় চোর সন্দেহে রবিউল্লাহ (২৮) নামে এক যুবককে গণপিটুনি দেয়ার এক সপ্তাহ পর চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যু ঘটে তার। শুক্রবার দুপুরে ঢাকার একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যু ঘটে আহত যুবক রবিউল্লাহর।

এর আগে ১৫ জানুয়ারি মহিচাইল ইউনিয়নের ঝিনাইয়া গ্রামে গণপিটুনি দেয় এলাকাবাসী। নিহত রবিউল্লাহ চান্দিনা উপজেলার মহিচাইল গ্রামের সুরুজ মিয়ার ছেলে।

এ ঘটনায় ক্ষুব্ধ এলাকাবাসী বিচারের দাবিতে মহিচাইল বাজারে মাধাইয়া রহিমানগর সড়ক অবরোধ করে। পরে চান্দিনা থানা পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করে।

নিহতের বোন মাহমুদা বলেন, আমার ভাই রবিউল্লাহ এক বছর আগে ওমান থেকে দেশে ফিরে আসেন। এক বছর ধরে সিএনজি অটোরিকশা চালিয়ে জীবিকা নির্বাহ করে। গত ১৫ জানুয়ারি আমাদের এলাকায় একটি মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। ওই মাহফিলে আমি আমার ভাইকে দাওয়াত করে নেয়। মাহফিল শেষে আমার ভাই বাড়ি ফেরার পথে হারুন মেম্বারের নেতৃত্বে একদল গ্রামবাসী আমার ভাইকে গণপিটুনি দেয়। আহতাবস্থায় আমার ভাইকে উদ্ধার করে প্রথমে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ও পরে রাজধানীর একটি হাসপাতালে ভর্তি করি। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যু ঘটে তার।

চান্দিনা থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মো. ওবায়দুল হক জানান- হামলার ঘটনার পর কেউ কোনো লিখিত অভিযোগ করেনি। লাশ বাড়িতে নেওয়ার পর শুক্রবার উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

চোর সন্দেহে যুবককে গণপিটুনি, এক সপ্তাহ পর মৃত্যু

 চান্দিনা (কুমিল্লা) প্রতিনিধি 
২২ জানুয়ারি ২০২১, ১১:০৩ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

কুমিল্লার চান্দিনায় চোর সন্দেহে রবিউল্লাহ (২৮) নামে এক যুবককে গণপিটুনি দেয়ার এক সপ্তাহ পর চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যু ঘটে তার। শুক্রবার দুপুরে ঢাকার একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যু ঘটে আহত যুবক রবিউল্লাহর।

এর আগে ১৫ জানুয়ারি মহিচাইল ইউনিয়নের ঝিনাইয়া গ্রামে গণপিটুনি দেয় এলাকাবাসী। নিহত রবিউল্লাহ চান্দিনা উপজেলার মহিচাইল গ্রামের সুরুজ মিয়ার ছেলে। 

এ ঘটনায় ক্ষুব্ধ এলাকাবাসী বিচারের দাবিতে মহিচাইল বাজারে মাধাইয়া রহিমানগর সড়ক অবরোধ করে। পরে চান্দিনা থানা পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করে। 

নিহতের বোন মাহমুদা বলেন, আমার ভাই রবিউল্লাহ এক বছর আগে ওমান থেকে দেশে ফিরে আসেন। এক বছর ধরে সিএনজি অটোরিকশা চালিয়ে জীবিকা নির্বাহ করে। গত ১৫ জানুয়ারি আমাদের এলাকায় একটি মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। ওই মাহফিলে আমি আমার ভাইকে দাওয়াত করে নেয়। মাহফিল শেষে আমার ভাই বাড়ি ফেরার পথে হারুন মেম্বারের নেতৃত্বে একদল গ্রামবাসী আমার ভাইকে গণপিটুনি দেয়। আহতাবস্থায় আমার ভাইকে উদ্ধার করে প্রথমে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ও পরে রাজধানীর একটি হাসপাতালে ভর্তি করি। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যু ঘটে তার।

চান্দিনা থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মো. ওবায়দুল হক জানান- হামলার ঘটনার পর কেউ কোনো লিখিত অভিযোগ করেনি। লাশ বাড়িতে নেওয়ার পর শুক্রবার উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন