রূপগঞ্জে বৃদ্ধাকে গলা কেটে হত্যা
jugantor
রূপগঞ্জে বৃদ্ধাকে গলা কেটে হত্যা

  রূপগঞ্জ (নারায়ণগঞ্জ) প্রতিনিধি  

২৩ জানুয়ারি ২০২১, ০৯:৫১:৫৪  |  অনলাইন সংস্করণ

হত্যা

নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে সাফিয়া বেগম (৭৮) নামের এক বৃদ্ধাকে গলা কেটে হত্যা করা হয়েছে।

শুক্রবার দুপুরে উপজেলার রূপগঞ্জ ইউনিয়নের জাঙ্গীর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

সাফিয়া বেগম ওই এলাকার শাহজালাল ভূঁইয়ার স্ত্রী।

স্বজনদের ধারণা, সাফিয়ার সঙ্গে থাকা স্বর্ণালঙ্কার ছিনতাই করতে গিয়ে মাদকসেবী ও জুয়াড়িরা এ হত্যাকাণ্ড ঘটিয়ে থাকতে পারে।

নিহতের নাতনি জামাই জহিরুল ইসলাম জানান, তার বৃদ্ধ নানাশ্বশুর ও নানিশাশুড়ি জাঙ্গীর গ্রামে নিজ বাড়িতে একটি মাটির ঘরে বসবাস করতেন। সাফিয়া বেগমের গলায় চেইন, হাতে চুড়ি ও কানে দুল ছিল। দুপুর দেড়টার দিকে দুর্বৃত্তরা সাফিয়া বেগমকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে জবাই করে ও বুকে ছুরি মেরে গুরুতর আহত করে। পরে গুরুতর অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে রাজধানীর একটি হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসকরা মৃত ঘোষণা করেন।

তিনি আরও জানান, নানাশ্বশুর ও নানিশাশুড়ির সঙ্গে এলাকার কারও কোনো বিরোধ ছিল না। বাড়ির আশপাশে মাদকসেবী ও জুয়াড়িদের আনাগোনা বেশি ছিল। সাফিয়া বেগমের গলায় থাকা স্বর্ণের চেইন ও কানের দুল নেই। তবে হাতের চুড়ি পাওয়া গেছে।

স্থানীয়রা জানান, সাফিয়া বেগমের বাড়ির পাশেই মাদক ও জুয়ার বড় স্পট রয়েছে। জড়িতরা এলাকার প্রভাবশালীদের ছত্রছায়ায় থেকে এসব অপকর্ম করে যাচ্ছে। তাদের গ্রেফতার করলেই হয়তো হত্যাকাণ্ডের রহস্য উদ্ঘাটিত হবে।

রূপগঞ্জ থানার এসআই মাহাবুব বলেন, লাশ উদ্ধার করে নারায়ণগঞ্জ সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। পরিবারের পক্ষ থেকে হত্যা মামলার প্রস্তুতি চলছে।

রূপগঞ্জ থানার ওসি মহসিনুল কাদির বলেন, যে কোনো মূল্যে হত্যাকাণ্ডের রহস্য উদ্ঘাটন ও জড়িতদের চিহ্নিত করে আইনের আওতায় আনা হবে।

রূপগঞ্জে বৃদ্ধাকে গলা কেটে হত্যা

 রূপগঞ্জ (নারায়ণগঞ্জ) প্রতিনিধি 
২৩ জানুয়ারি ২০২১, ০৯:৫১ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ
হত্যা
প্রতীকী ছবি

নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে সাফিয়া বেগম (৭৮) নামের এক বৃদ্ধাকে গলা কেটে হত্যা করা হয়েছে। 

শুক্রবার দুপুরে উপজেলার রূপগঞ্জ ইউনিয়নের জাঙ্গীর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। 

সাফিয়া বেগম ওই এলাকার শাহজালাল ভূঁইয়ার স্ত্রী। 

স্বজনদের ধারণা, সাফিয়ার সঙ্গে থাকা স্বর্ণালঙ্কার ছিনতাই করতে গিয়ে মাদকসেবী ও জুয়াড়িরা এ হত্যাকাণ্ড ঘটিয়ে থাকতে পারে। 

নিহতের নাতনি জামাই জহিরুল ইসলাম জানান, তার বৃদ্ধ নানাশ্বশুর ও নানিশাশুড়ি জাঙ্গীর গ্রামে নিজ বাড়িতে একটি মাটির ঘরে বসবাস করতেন। সাফিয়া বেগমের গলায় চেইন, হাতে চুড়ি ও কানে দুল ছিল। দুপুর দেড়টার দিকে দুর্বৃত্তরা সাফিয়া বেগমকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে জবাই করে ও বুকে ছুরি মেরে গুরুতর আহত করে। পরে গুরুতর অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে রাজধানীর একটি হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসকরা মৃত ঘোষণা করেন।

তিনি আরও জানান, নানাশ্বশুর ও নানিশাশুড়ির সঙ্গে এলাকার কারও কোনো বিরোধ ছিল না। বাড়ির আশপাশে মাদকসেবী ও জুয়াড়িদের আনাগোনা বেশি ছিল। সাফিয়া বেগমের গলায় থাকা স্বর্ণের চেইন ও কানের দুল নেই। তবে হাতের চুড়ি পাওয়া গেছে।

স্থানীয়রা জানান, সাফিয়া বেগমের বাড়ির পাশেই মাদক ও জুয়ার বড় স্পট রয়েছে। জড়িতরা এলাকার প্রভাবশালীদের ছত্রছায়ায় থেকে এসব অপকর্ম করে যাচ্ছে। তাদের গ্রেফতার করলেই হয়তো হত্যাকাণ্ডের রহস্য উদ্ঘাটিত হবে।

রূপগঞ্জ থানার এসআই মাহাবুব বলেন, লাশ উদ্ধার করে নারায়ণগঞ্জ সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। পরিবারের পক্ষ থেকে হত্যা মামলার প্রস্তুতি চলছে।

রূপগঞ্জ থানার ওসি মহসিনুল কাদির বলেন, যে কোনো মূল্যে হত্যাকাণ্ডের রহস্য উদ্ঘাটন ও জড়িতদের চিহ্নিত করে আইনের আওতায় আনা হবে।

 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন