সিলেটে চালককে খুন করে রিকশা ছিনতাই
jugantor
সিলেটে চালককে খুন করে রিকশা ছিনতাই

  ওসমানীনগর (সিলেট) প্রতিনিধি  

২৩ জানুয়ারি ২০২১, ১৪:৫৯:০০  |  অনলাইন সংস্করণ

সিলেটে চালককে খুন করে রিকশা ছিনতাই

সিলেটের ওসমানীনগর উপজেলায় কালু মিয়া (৬০) নামে এক চালককে খুন করে তার রিকশা ছিনতাই করে নিয়ে গেছে দুর্বৃত্তরা।

শনিবার উপজেলার দয়ামীর ইউপির চক মণ্ডলকাপন চকেরবন থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

এ ঘটনায় নিহত কালু মিয়ার ছেলে কয়েছ আহমদ জাহেদ বাদী হয়ে অজ্ঞতনামাদের আসামি করে শনিবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে ওসমানীনগর থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

নিহত রিকশাচালক কালু মিয়া বালাগঞ্জ উপজেলার দেওয়ানবাজার ইউপির শিওরখাল গ্রামের মৃত জানু মিয়ার ছেলে। তিনি একই ইউপির মোরারবাজার রোডের হাজী তারা মিয়া মার্কেটের ভাড়াটিয়া।

পুলিশ ও নিহতের পরিবার সূত্রে জানা যায়, গত ২১ জানুয়ারি সন্ধ্যা ৭টার দিকে ভাড়ায় একটি ব্যাটারিচালিত রিকশা নিয়ে গহরপুর মাদ্রাসার ওয়াজ মাহফিলে যাবার কথা বলে ঘর থেকে বের হন।

এরপর রাতে আর বাড়ি ফেরেননি কালু। শনিবার ওসমানীনগররের দয়ামীর ইউপির চকেরবন্দে একটি অজ্ঞাতনামা মরদেহ পাওয়ার খবর শুনে পরিবারের স্বজনরা থানায় এসে মরদেহটি কালু মিয়ার বলে শনাক্ত করেন।

মামলার বাদী নিহত কালু মিয়ার ছেলে কয়েছ আহমদ জাহেদ বলেন, ২১ জানুয়ারি সন্ধ্যা ৭টার দিকে আমার বাবা গহরপুর ওয়াজ মাহফিল থেকে দূরপাল্লায় ট্রিপ আছে বলে বাড়ি ফিরতে দেরি হবে বলে বের হয়ে আর ফেরেননি।

‘আমার বাবাকে খুনিরা হত্যা করে তার ব্যাটারিচালিত রিকশাটি চুরি করে নিয়ে যায়। আমি আমার বাবার হত্যাকারীদের গ্রেফতার ও এর সুষ্ঠু বিচার চাই।’

ওসমানীনগর থানার ওসি শ্যামল বণিক বলেন, এ ঘটনায় নিহতের ছেলে বাদী হয়ে হত্যা মামলা দায়ের করে। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে কালু মিয়াকে হত্যা করে তার রিকশাটি দুর্বৃত্তরা নিয়ে পালিয়ে গেছে।

হত্যাকাণ্ডের ঘটনাটি তদন্ত অব্যাহত রয়েছে আশা করি দ্রুতই এর রহস্য ও জড়িতদের খুঁজে বের করে আইনের আওতায় আনা হবে।

সিলেটে চালককে খুন করে রিকশা ছিনতাই

 ওসমানীনগর (সিলেট) প্রতিনিধি 
২৩ জানুয়ারি ২০২১, ০২:৫৯ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
সিলেটে চালককে খুন করে রিকশা ছিনতাই
ফাইল ছবি

সিলেটের ওসমানীনগর উপজেলায় কালু মিয়া (৬০) নামে এক চালককে খুন করে তার রিকশা ছিনতাই করে নিয়ে গেছে দুর্বৃত্তরা।

শনিবার উপজেলার দয়ামীর ইউপির চক মণ্ডলকাপন চকেরবন থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

এ ঘটনায় নিহত কালু মিয়ার ছেলে কয়েছ আহমদ জাহেদ বাদী হয়ে অজ্ঞতনামাদের আসামি করে শনিবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে ওসমানীনগর থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

নিহত রিকশাচালক কালু মিয়া বালাগঞ্জ উপজেলার দেওয়ানবাজার ইউপির শিওরখাল গ্রামের মৃত জানু মিয়ার ছেলে। তিনি একই ইউপির মোরারবাজার রোডের হাজী তারা মিয়া মার্কেটের ভাড়াটিয়া।

পুলিশ ও নিহতের পরিবার সূত্রে জানা যায়, গত ২১ জানুয়ারি সন্ধ্যা ৭টার দিকে ভাড়ায় একটি ব্যাটারিচালিত রিকশা নিয়ে গহরপুর মাদ্রাসার ওয়াজ মাহফিলে যাবার কথা বলে ঘর থেকে বের হন।

এরপর রাতে আর বাড়ি ফেরেননি কালু। শনিবার  ওসমানীনগররের দয়ামীর ইউপির চকেরবন্দে একটি অজ্ঞাতনামা মরদেহ পাওয়ার খবর শুনে পরিবারের স্বজনরা থানায় এসে মরদেহটি কালু মিয়ার বলে শনাক্ত করেন।

মামলার বাদী নিহত কালু মিয়ার ছেলে কয়েছ আহমদ জাহেদ বলেন, ২১ জানুয়ারি সন্ধ্যা ৭টার দিকে আমার বাবা গহরপুর ওয়াজ মাহফিল থেকে দূরপাল্লায় ট্রিপ আছে বলে বাড়ি ফিরতে দেরি হবে বলে বের হয়ে আর ফেরেননি।

‘আমার বাবাকে খুনিরা হত্যা করে তার ব্যাটারিচালিত রিকশাটি চুরি করে নিয়ে যায়। আমি আমার বাবার হত্যাকারীদের গ্রেফতার ও এর সুষ্ঠু বিচার চাই।’

ওসমানীনগর থানার ওসি শ্যামল বণিক বলেন, এ ঘটনায় নিহতের ছেলে বাদী হয়ে হত্যা মামলা দায়ের করে। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে কালু মিয়াকে হত্যা করে তার রিকশাটি দুর্বৃত্তরা নিয়ে পালিয়ে গেছে।

হত্যাকাণ্ডের ঘটনাটি তদন্ত অব্যাহত রয়েছে আশা করি দ্রুতই এর রহস্য ও জড়িতদের খুঁজে বের করে আইনের আওতায় আনা হবে।

 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন