‘প্রধানমন্ত্রীর অনুভূতি ও ভালোবাসা ইতিহাসে স্বর্ণাক্ষরে লেখা থাকবে’
jugantor
‘প্রধানমন্ত্রীর অনুভূতি ও ভালোবাসা ইতিহাসে স্বর্ণাক্ষরে লেখা থাকবে’

  ভোলা প্রতিনিধি  

২৩ জানুয়ারি ২০২১, ২২:১৭:৪৬  |  অনলাইন সংস্করণ

গৃহহীন পরিবারের মধ্যে প্রধানমন্ত্রীর উপহার জমি ও ঘর বিতরণ করা হয়।

ভোলায় শনিবার উৎসবমুখর পরিবেশে ৫২০ গৃহহীন পরিবারের মধ্যে প্রধানমন্ত্রীর উপহার জমি ও ঘর বিতরণ করা হয়। এ সময় প্রধানমন্ত্রীকে কৃতজ্ঞতা জানিয়ে আওয়ামী লীগের প্রবীণ নেতা সাবেক শিল্প ও বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ এমপি বলেন, বঙ্গবন্ধুর কন্যা শেখ হাসিনা মানুষের জন্য যে কাজ করেছেন, তা ইতিহাস বিরল। দেশের মানুষ তার কাছে কৃতজ্ঞ হয়ে রইল।

তোফায়েল আহমেদ ভার্চুয়ালি জুম কনফারেন্সের মাধ্যমে অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন।

এ সময় উপস্থিত থেকে গৃহহীন পরিবারে হাতে নতুন ঘরের চাবি ও জমির কাগজপত্র তুলে দেন জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ মাসুদ আলম ছিদ্দিক, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আবদুল মমিন টুলু, পুলিশ সুপার সকার মোহাম্মদ কায়সার, সদর উপজেলা চেয়ারম্যান মোশারেফ হোসেন, উপজেলা নির্বাহী অফিসার মিজানুর রহমান, জেলা আওয়ামী লীগ যুগ্ম সম্পাদক জহুরুল ইসলাম নকিব, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মো. ইউনুছ।

উপস্থিত ছিলেন প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা জিয়া উদ্দিনসহ সকল ইউপি চেয়ারম্যান ও বিভিন্ন দফতরের কর্মকর্তারা।

এদিকে প্রধানমন্ত্রীর উপহার হাতে পেয়ে খুশি অসহায় পরিবারগুলো। উপকারভোগীদের মধ্যে রয়েছে নদীভাঙা, পঙ্গু, বিধবা ও ভিক্ষুকসহ হতদরিদ্র ভুমিহীনরা। জেলার মোট ৫২০টি ঘরের মধ্যে সদর উপজেলায় ১৮২, দৌলতখানে ৪২টি, বোরহানউদ্দিন ২৮টি, তজুমদ্দিন ১৮টি, লালমোহনে ২০টি, চরফ্যাশন ৩০টি ও মনপুরা উপজেলায় ২০০টি ঘর বরাদ্দ দেয়া হয়েছে।

শনিবার দুপুরে ভেদুরিয়া ৪নং ওয়ার্ডে গিয়ে দেখা যায়, প্রতিবন্ধী জ্যোৎস্না বেগম, মোনায়ারা বেগম, কহিনুর বেগম, সাইহদা বেগমসহ ঘর পাওয়া নারীরা উচ্ছাস প্রকাশ করে প্রধানমন্ত্রীর পাশাপাশি ভোলার অভিভাবক তোফায়েল আহমেদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

‘প্রধানমন্ত্রীর অনুভূতি ও ভালোবাসা ইতিহাসে স্বর্ণাক্ষরে লেখা থাকবে’

 ভোলা প্রতিনিধি 
২৩ জানুয়ারি ২০২১, ১০:১৭ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
গৃহহীন পরিবারের মধ্যে প্রধানমন্ত্রীর উপহার জমি ও ঘর বিতরণ করা হয়।
গৃহহীন পরিবারের মধ্যে প্রধানমন্ত্রীর উপহার জমি ও ঘর বিতরণ করা হয়।

ভোলায় শনিবার উৎসবমুখর পরিবেশে ৫২০ গৃহহীন পরিবারের মধ্যে প্রধানমন্ত্রীর উপহার জমি ও ঘর বিতরণ করা হয়। এ সময় প্রধানমন্ত্রীকে কৃতজ্ঞতা জানিয়ে আওয়ামী লীগের প্রবীণ নেতা সাবেক শিল্প ও বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ এমপি বলেন, বঙ্গবন্ধুর কন্যা শেখ হাসিনা মানুষের জন্য যে কাজ করেছেন, তা ইতিহাস বিরল। দেশের মানুষ তার কাছে কৃতজ্ঞ হয়ে রইল।

তোফায়েল আহমেদ ভার্চুয়ালি জুম কনফারেন্সের মাধ্যমে অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন।

এ সময় উপস্থিত থেকে গৃহহীন পরিবারে হাতে নতুন ঘরের চাবি ও জমির কাগজপত্র তুলে দেন জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ মাসুদ আলম ছিদ্দিক, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আবদুল মমিন টুলু, পুলিশ সুপার সকার মোহাম্মদ কায়সার, সদর উপজেলা চেয়ারম্যান মোশারেফ হোসেন, উপজেলা নির্বাহী অফিসার মিজানুর রহমান, জেলা আওয়ামী লীগ যুগ্ম সম্পাদক জহুরুল ইসলাম নকিব, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মো. ইউনুছ।

উপস্থিত ছিলেন প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা জিয়া উদ্দিনসহ সকল ইউপি চেয়ারম্যান ও বিভিন্ন দফতরের কর্মকর্তারা।

এদিকে প্রধানমন্ত্রীর উপহার হাতে পেয়ে খুশি অসহায় পরিবারগুলো। উপকারভোগীদের মধ্যে রয়েছে নদীভাঙা, পঙ্গু, বিধবা ও ভিক্ষুকসহ হতদরিদ্র ভুমিহীনরা। জেলার মোট ৫২০টি ঘরের মধ্যে সদর উপজেলায় ১৮২, দৌলতখানে ৪২টি, বোরহানউদ্দিন ২৮টি, তজুমদ্দিন ১৮টি, লালমোহনে ২০টি, চরফ্যাশন ৩০টি ও মনপুরা উপজেলায় ২০০টি ঘর বরাদ্দ দেয়া হয়েছে।

শনিবার দুপুরে ভেদুরিয়া ৪নং ওয়ার্ডে গিয়ে দেখা যায়, প্রতিবন্ধী জ্যোৎস্না বেগম, মোনায়ারা বেগম, কহিনুর বেগম, সাইহদা বেগমসহ ঘর পাওয়া নারীরা উচ্ছাস প্রকাশ করে প্রধানমন্ত্রীর পাশাপাশি ভোলার অভিভাবক তোফায়েল আহমেদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন