সোনামসজিদ বন্দর: ১২১৬ টন ভারতীয় চাল আমদানি
jugantor
সোনামসজিদ বন্দর: ১২১৬ টন ভারতীয় চাল আমদানি

  শিবগঞ্জ (চাঁপাইনবাবগঞ্জ) প্রতিনিধি  

২৪ জানুয়ারি ২০২১, ১১:১১:৫০  |  অনলাইন সংস্করণ

সোনামসজিদ বন্দর: ১২১৬ টন ভারতীয় চাল আমদানি

ভরা মৌসুমেও দেশে চালের বাজারে অস্থিরতা বিরাজ করছে। এমন সময় দেশের সাধারণ মানুষের কথা চিন্তা করে ভারত থেকে চাল আমদানির সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। বাজার স্বাভাবিক রাখতে এক হাজার ২১৬ টন চাল আসার মাধ্যমে সোনামসজিদ স্থলবন্দর দিয়ে চাল আমদানি কার্যক্রম শুরু হয়েছে।

শনিবার পর্যন্ত টানা তিন দিনে ৩১ ট্রাকে এক হাজার ২১৬ টন চাল আমদানি হয়েছে।

পানামা সোনামসজিদ পোর্ট লিংক লিমিটেডের ম্যানেজার (অপারেশন) কামাল হোসেন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, গেল তিন দিনে মেসার্স তাসনিম এন্টারপ্রাইজ, নজরুল অটো রাইস মিল ও মেসার্স ঘোষ এন্টারপ্রাইজ এক হাজার ২১৬ টন চাল আমদানি করেছে।

চালগুলোর মধ্যে রয়েছে- নন বাঁশমতি, স্বর্ণা, রত্নাসহ আউস চাল।

এর আগে সোনামসজিদ কাস্টমস শুল্ক স্টেশন থেকে ছাড়করণের পর চালভর্তি ভারতীয় ট্রাকগুলো পানামা ইয়ার্ডের ভেতরে প্রবেশ করে। প্রথম দিন বৃহস্পতিবার পাঁচটি ভারতীয় চালভর্তি ট্রাক প্রবেশ করে।

এর পর ২৪টি ও তৃতীয় দিন শনিবার দুটি ভারতীয় চালভর্তি ট্রাক ইয়ার্ডের ভেতরে প্রবেশ করে।

আশা করছি অন্য আমদানিকারকদের আমদানিকৃত চাল দুএকদিনের মধ্যে বন্দরে প্রবেশ করবে। আর চাল আমদানি শুরু হলে ও সঠিক সময়ে দেশের বিভিন্ন মোকামে আমদানি করা চাল সরবরাহ করতে পারলে দেশের বাজারে চালের দাম কমে আসতে শুরু করবে।

সোনামসজিদ বন্দর: ১২১৬ টন ভারতীয় চাল আমদানি

 শিবগঞ্জ (চাঁপাইনবাবগঞ্জ) প্রতিনিধি 
২৪ জানুয়ারি ২০২১, ১১:১১ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ
সোনামসজিদ বন্দর: ১২১৬ টন ভারতীয় চাল আমদানি
ছবি: যুগান্তর

ভরা মৌসুমেও দেশে চালের বাজারে অস্থিরতা বিরাজ করছে। এমন সময় দেশের সাধারণ মানুষের কথা চিন্তা করে ভারত থেকে চাল আমদানির সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। বাজার স্বাভাবিক রাখতে এক হাজার ২১৬ টন চাল আসার মাধ্যমে সোনামসজিদ স্থলবন্দর দিয়ে চাল আমদানি কার্যক্রম শুরু হয়েছে।

শনিবার পর্যন্ত টানা তিন দিনে ৩১ ট্রাকে এক হাজার ২১৬ টন চাল আমদানি হয়েছে।

পানামা সোনামসজিদ পোর্ট লিংক লিমিটেডের ম্যানেজার (অপারেশন) কামাল হোসেন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, গেল তিন দিনে মেসার্স তাসনিম এন্টারপ্রাইজ, নজরুল অটো রাইস মিল ও মেসার্স ঘোষ এন্টারপ্রাইজ এক হাজার ২১৬ টন চাল আমদানি করেছে।

চালগুলোর মধ্যে রয়েছে- নন বাঁশমতি, স্বর্ণা, রত্নাসহ আউস চাল।

এর আগে সোনামসজিদ কাস্টমস শুল্ক স্টেশন থেকে ছাড়করণের পর চালভর্তি ভারতীয় ট্রাকগুলো পানামা ইয়ার্ডের ভেতরে প্রবেশ করে। প্রথম দিন বৃহস্পতিবার পাঁচটি ভারতীয় চালভর্তি ট্রাক প্রবেশ করে।

এর পর ২৪টি ও তৃতীয় দিন শনিবার দুটি ভারতীয় চালভর্তি ট্রাক ইয়ার্ডের ভেতরে প্রবেশ করে।

আশা করছি অন্য আমদানিকারকদের আমদানিকৃত চাল দুএকদিনের মধ্যে বন্দরে প্রবেশ করবে। আর চাল আমদানি শুরু হলে ও সঠিক সময়ে দেশের বিভিন্ন মোকামে আমদানি করা চাল সরবরাহ করতে পারলে দেশের বাজারে চালের দাম কমে আসতে শুরু করবে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন