সুন্দরগঞ্জে ভ্যানচালকের বাড়ি দখল করল জামায়াত নেতা গফফার!
jugantor
সুন্দরগঞ্জে ভ্যানচালকের বাড়ি দখল করল জামায়াত নেতা গফফার!

  গাইবান্ধা প্রতিনিধি  

২৬ জানুয়ারি ২০২১, ১৬:০০:৫৩  |  অনলাইন সংস্করণ

সুন্দরগঞ্জে ভ্যানচালকের বাড়ি দখল করল জামায়াত নেতা গফফার!

গাইবান্ধা জেলার সুন্দরগঞ্জ থানার তারাপুর ইউনিয়নে ভ্যানচালক আলম মিয়ার বসতভিটা দখল করে নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। সাবেক জামায়াত নেতা গফফার মিয়া তার বাড়ি জোর করে দখল করে নিয়েছেন বলে অভিযোগ উঠেছে।

ভূক্তভোগী পরিবার জানিয়েছে, ২১ জানুয়ারি নিজাম খাঁ গ্রামের আলম মিয়ার বসতভিটা টিনের বেড়া দিয়ে দখল করে নেন গফ্ফার বাহিনীর লোকজন। পরে সুন্দরগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার ( ইউএনও) মোহাম্মদ আল মারুফ ও সুন্দরগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আব্দুল্লাহিল জামান ঘটনাস্থলে গিয়ে সেই বাড়ি উদ্ধার করে আলম মিয়াকে বুঝিয়ে দেন। পরে গফফার আবারও দলবল নিয়ে ওই বাড়ি দখল করে নেন।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন সুন্দরগঞ্জের ইউএনও এবং ওসি।

স্থানীয়রা জানান, গফফার এলাকায় তার তিন ছেলে ও ভাইদের সহায়তায় সন্ত্রাসের রাজত্ব কায়েম করে যাচ্ছেন। তিনি একসময় জামায়াতের রাজনীতি করলেও বর্তমানে আওয়ামী লীগের রাজনীতি করেন।

বাড়ি দখলের বিষয়ে ভ্যানচালক আলম মিয়া বলেন, আমি গরিব মানুষ। ভ্যান চালিয়ে খাই। আমার এই বাড়ি ভিটা ছাড়া কিছুই নেই। গফ্ফার দীর্ঘদিন ধরে দখলের চেষ্টা করে আসছে। এ জন্য বিভিন্ন সময় আমার ও এলাকার অনেকের নামেই সে মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানি করছে। আর তার বিরুদ্ধে মামলা করছি কিন্তু পুলিশ তাকে গ্রেফতার করতে পারে না। গফ্ফার ও তার ছেলেরা মিলে আমি বাড়িটা দখল করে নিয়েছে। এখন আল্লাহকে ছাড়া বিচার দেওয়ার জায়গা কোথায়।

অভিযুক্ত গফ্ফার এ বিষয়ে গণমাধ্যমকে বলেন, আমি ওই বাড়ি দখল করব। কেউ যদি ঠেকাতে পারে ঠেকাক।

ওসি আবদুল্লাহিল জামান, এ ঘটনায় থানায় মামলা হয়েছে। গফফারকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

তিনি বলেন, অভিযোগ পেয়ে ইউএনও ও পুলিশ এলাকায় গেলে গফ্ফার বাহিনী পালিয়ে যায়। পুলিশ চলে আসলে আবার হুমকি ধমকি দিয়ে বাড়ি দখল করে নেয়।


সুন্দরগঞ্জে ভ্যানচালকের বাড়ি দখল করল জামায়াত নেতা গফফার!

 গাইবান্ধা প্রতিনিধি 
২৬ জানুয়ারি ২০২১, ০৪:০০ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
সুন্দরগঞ্জে ভ্যানচালকের বাড়ি দখল করল জামায়াত নেতা গফফার!
ছবি: সংগৃহীত

গাইবান্ধা জেলার সুন্দরগঞ্জ থানার তারাপুর ইউনিয়নে ভ্যানচালক আলম মিয়ার বসতভিটা দখল করে নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে।  সাবেক জামায়াত নেতা গফফার মিয়া তার বাড়ি জোর করে দখল করে নিয়েছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। 

ভূক্তভোগী পরিবার জানিয়েছে, ২১ জানুয়ারি নিজাম খাঁ গ্রামের আলম মিয়ার বসতভিটা টিনের বেড়া দিয়ে দখল করে নেন গফ্ফার বাহিনীর লোকজন। পরে সুন্দরগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার ( ইউএনও) মোহাম্মদ আল মারুফ ও সুন্দরগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আব্দুল্লাহিল জামান ঘটনাস্থলে গিয়ে সেই বাড়ি উদ্ধার করে আলম মিয়াকে বুঝিয়ে দেন।  পরে গফফার আবারও দলবল নিয়ে ওই বাড়ি দখল করে নেন।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন সুন্দরগঞ্জের ইউএনও এবং ওসি।  

স্থানীয়রা জানান, গফফার এলাকায় তার তিন ছেলে ও ভাইদের সহায়তায় সন্ত্রাসের রাজত্ব কায়েম করে যাচ্ছেন।  তিনি একসময় জামায়াতের রাজনীতি করলেও বর্তমানে আওয়ামী লীগের রাজনীতি করেন। 

বাড়ি দখলের বিষয়ে ভ্যানচালক আলম মিয়া বলেন, আমি গরিব মানুষ। ভ্যান চালিয়ে খাই।  আমার এই বাড়ি ভিটা ছাড়া কিছুই নেই। গফ্ফার দীর্ঘদিন ধরে দখলের চেষ্টা করে আসছে। এ জন্য বিভিন্ন সময় আমার ও এলাকার অনেকের নামেই সে মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানি করছে। আর তার বিরুদ্ধে মামলা করছি কিন্তু পুলিশ তাকে গ্রেফতার করতে পারে না। গফ্ফার ও তার ছেলেরা মিলে আমি বাড়িটা দখল করে নিয়েছে। এখন আল্লাহকে ছাড়া বিচার দেওয়ার জায়গা কোথায়।

অভিযুক্ত গফ্ফার এ বিষয়ে গণমাধ্যমকে বলেন, আমি ওই বাড়ি দখল করব। কেউ যদি ঠেকাতে পারে ঠেকাক। 

ওসি আবদুল্লাহিল জামান, এ ঘটনায় থানায় মামলা হয়েছে। গফফারকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে। 

তিনি বলেন, অভিযোগ পেয়ে ইউএনও ও পুলিশ এলাকায় গেলে গফ্ফার বাহিনী পালিয়ে যায়। পুলিশ চলে আসলে আবার হুমকি ধমকি দিয়ে বাড়ি দখল করে নেয়। 


 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন