চট্টগ্রামে বেইলি সেতুর পাটাতন উপড়ে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন
jugantor
চট্টগ্রামে বেইলি সেতুর পাটাতন উপড়ে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন

  সাতকানিয়া (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি  

২৬ জানুয়ারি ২০২১, ২১:১৯:১৪  |  অনলাইন সংস্করণ

চট্টগ্রামের সাতকানিয়া উপজেলার আমিলাইষ-মৌলভীর দোকান সড়কের ডলু নদীর বেইলি সেতুর পাটাতন উপড়ে গিয়ে সড়ক যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে।

সোমবার সকালে উপজেলার নলুয়া ও আমিলাইষ ইউনিয়নের সংযোগ স্থলে ডলু খালের উপর এ ঘটনা ঘটে। দীর্ঘদিন ধরে এ বেইলি সেতুটি দুই ইউনিয়নের সেতুবন্ধন হিসেবে স্থাপিত হয়। এ সেতু নির্মাণের পর থেকে ওই এলাকার বিশাল জনগোষ্ঠীর যোগাযোগের একমাত্র মাধ্যম হিসেবে পরিচিত ছিল।

এ সেতু দিয়ে বাঁশখালী উপজেলার চাঁদপুর, চরতি, ব্রাহ্মণডাঙ্গা, দ্বীপ চরতি, আমিলাইষ, কাঞ্চনা ইউনিয়নের প্রায় লক্ষাধিক মানুষের নিয়মিত যাতায়াত রয়েছে।

এছাড়া সাতকানিয়া সরকারি কলেজ, গাছবাড়িয়া সরকারি কলেজ, জাফর আহমদ চৌধুরী কলেজ, বিজিসি ট্রাস্ট বিশ্ববিদ্যালয় ও রসুলাবাদ ইসলামিয়া সিনিয়র ফাজিল মাদ্রাসাসহ অসংখ্য শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষক-শিক্ষার্থীর নিয়মিত যাতায়াত রয়েছে।

শুধু তাই নয়, এ সড়কের বেইলি সেতুটি আমিলাইষ, চরতি ও কাঞ্চানা ইউনিয়নে উৎপাদিত মৌসুমি সবজিসহ বিভিন্ন কৃষিপণ্য উপজেলা সদরসহ দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলে বাজারজাত করতে যোগাযোগের মাধ্যম হিসেবে ব্যবহৃত হয়।

সেতুটির পাটাতন উপড়ে গিয়ে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হলে ওই অঞ্চলের মানুষ চরম দুর্ভোগের শিকার হয়েছে। এ অচলাবস্থা দীর্ঘস্থায়ী হলে মানুষের ভোগান্তি চরম আকার ধারণ করবে বলে এলাকাবাসী জানান।

সরেজমিন দেখা গেছে, সেতুর পাটাতন উপড়ে পড়ার কারণে ওই সড়ক দিয়ে সব ধরনের যান চলাচল বন্ধ রয়েছে। ঝুঁকি নিয়ে কোনো রকমে ভাঙা সেতুর উপর দিয়ে এলাকাবাসী হেঁটে জরুরি প্রয়োজন মেটাচ্ছে।

এলাকাবাসীর অভিযোগ, আমিলাইষ ইউনিয়নের একটি ভূমিদস্যু ও বালু খেকো সিন্ডিকেট দীর্ঘদিন ধরে ডলু খালে এ বেইলি সেতুর পাশ থেকে বালু উত্তোলন করে আসছিল এবং বালুবাহী ভারি ট্রাক নিয়মিত ওই সেতুর উপর দিয়ে চলাচল করার ফলে সেতুটি নড়বড়ে হয়ে যায়।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. আব্দুস সালাম চৌধুরী ঝুঁকি নিয়ে যানবাহন চলাচল না করার জন্য এলাকাবাসীর কাছে অনুরোধ জানিয়েছেন। তিনি জানান, ব্রিজটি দ্রুত মেরামত করতে সংশ্লিষ্ট দপ্তরকে বলা হয়েছে।

সাতকানিয়া উপজেলা প্রকৌশলী পারভেজ সরওয়ার হোসেন বলেন, ভেঙ্গে যাওয়া সেতুটি পরিদর্শন করেছি। খুব শীঘ্রই সেতুটি মেরামতের ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

চট্টগ্রামে বেইলি সেতুর পাটাতন উপড়ে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন

 সাতকানিয়া (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি 
২৬ জানুয়ারি ২০২১, ০৯:১৯ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

চট্টগ্রামের সাতকানিয়া উপজেলার আমিলাইষ-মৌলভীর দোকান সড়কের ডলু নদীর বেইলি সেতুর পাটাতন উপড়ে গিয়ে সড়ক যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে। 

সোমবার সকালে উপজেলার নলুয়া ও আমিলাইষ ইউনিয়নের সংযোগ স্থলে ডলু খালের উপর এ ঘটনা ঘটে। দীর্ঘদিন ধরে এ বেইলি সেতুটি দুই ইউনিয়নের সেতুবন্ধন হিসেবে স্থাপিত হয়। এ সেতু নির্মাণের পর থেকে ওই এলাকার বিশাল জনগোষ্ঠীর যোগাযোগের একমাত্র মাধ্যম হিসেবে পরিচিত ছিল। 

এ সেতু দিয়ে বাঁশখালী উপজেলার চাঁদপুর, চরতি, ব্রাহ্মণডাঙ্গা, দ্বীপ চরতি, আমিলাইষ, কাঞ্চনা ইউনিয়নের প্রায় লক্ষাধিক মানুষের নিয়মিত যাতায়াত রয়েছে। 

এছাড়া সাতকানিয়া সরকারি কলেজ, গাছবাড়িয়া সরকারি কলেজ, জাফর আহমদ চৌধুরী কলেজ, বিজিসি ট্রাস্ট বিশ্ববিদ্যালয় ও রসুলাবাদ ইসলামিয়া সিনিয়র ফাজিল মাদ্রাসাসহ অসংখ্য শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষক-শিক্ষার্থীর নিয়মিত যাতায়াত রয়েছে। 

শুধু তাই নয়, এ সড়কের বেইলি সেতুটি আমিলাইষ, চরতি ও কাঞ্চানা ইউনিয়নে উৎপাদিত মৌসুমি সবজিসহ বিভিন্ন কৃষিপণ্য উপজেলা সদরসহ দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলে বাজারজাত করতে যোগাযোগের মাধ্যম হিসেবে ব্যবহৃত হয়। 

সেতুটির পাটাতন উপড়ে গিয়ে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হলে ওই অঞ্চলের মানুষ চরম দুর্ভোগের শিকার হয়েছে। এ অচলাবস্থা দীর্ঘস্থায়ী হলে মানুষের ভোগান্তি চরম আকার ধারণ করবে বলে এলাকাবাসী জানান। 

সরেজমিন দেখা গেছে, সেতুর পাটাতন উপড়ে পড়ার কারণে ওই সড়ক দিয়ে সব ধরনের যান চলাচল বন্ধ রয়েছে। ঝুঁকি নিয়ে কোনো রকমে ভাঙা সেতুর উপর দিয়ে এলাকাবাসী হেঁটে জরুরি প্রয়োজন মেটাচ্ছে। 

এলাকাবাসীর অভিযোগ, আমিলাইষ ইউনিয়নের একটি ভূমিদস্যু ও বালু খেকো সিন্ডিকেট দীর্ঘদিন ধরে ডলু খালে এ বেইলি সেতুর পাশ থেকে বালু উত্তোলন করে আসছিল এবং বালুবাহী ভারি ট্রাক নিয়মিত ওই সেতুর উপর দিয়ে চলাচল করার ফলে সেতুটি নড়বড়ে হয়ে যায়। 

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. আব্দুস সালাম চৌধুরী ঝুঁকি নিয়ে যানবাহন চলাচল না করার জন্য এলাকাবাসীর কাছে অনুরোধ জানিয়েছেন। তিনি জানান, ব্রিজটি দ্রুত মেরামত করতে সংশ্লিষ্ট দপ্তরকে বলা হয়েছে।

সাতকানিয়া উপজেলা প্রকৌশলী পারভেজ সরওয়ার হোসেন বলেন, ভেঙ্গে যাওয়া সেতুটি পরিদর্শন করেছি। খুব শীঘ্রই সেতুটি মেরামতের ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন