বরিশালে গ্রামীণ ব্যাংক ম্যানেজারের ৪২ বছরের কারাদণ্ড
jugantor
বরিশালে গ্রামীণ ব্যাংক ম্যানেজারের ৪২ বছরের কারাদণ্ড

  বরিশাল ব্যুরো  

২৭ জানুয়ারি ২০২১, ১৮:৩২:০৮  |  অনলাইন সংস্করণ

জেল

দুদকের দায়ের করা ১৪টি পৃথক দুর্নীতি মামলায় বরিশাল নগরীর নবগ্রাম সড়কে অবস্থিত গ্রামীণ ব্যাংকের রায়পাশা শাখার ম্যানেজার মো. দেলোয়ার হাসানকে (পলাতক) বিভিন্ন মেয়াদে ৪২ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করা হয়েছে। এছাড়া ৬০ লাখ টাকা অর্থদণ্ডে দণ্ডিত করা হয়েছে।

বরিশালের বিভাগীয় আদালতের স্পেশাল জজ মো. মহসিনুল হক মঙ্গলবার ওই রায় দেন। রায় ঘোষণার সময় আসামি পলাতক থাকায় বিচারক গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেন। এছাড়া অপর আসামি ব্যাংক অফিসার শাহ আলমকে বিভিন্ন মেয়াদে সাজা প্রদান করা হয়েছে।

ওই আদালতের বেঞ্চ সহকারী হারুন অর রশিদ জানান, বরিশাল দুদকের সাবেক সহকারী পরিচালক মো. ওয়াজেদ আলী গাজী বিভিন্ন মামলায় উল্লেখ করেন, আসামি গ্রামীণ ব্যাংকের রায়পাশা শাখার ম্যানেজার থাকাকালীন ২০১১ সালের ১২ জুন থেকে ২০১১ সালের ৫ জুলাই পর্যন্ত উক্ত মেয়াদে উক্ত শাখার বেশ কয়েকজন সদস্যের নামে ভুয়া ঋণ দেখিয়ে জাল স্বাক্ষর ঋণ বিতরণের খতিয়ান ব্যবহার করে টাকা তুলে ব্যাংকে জমা বা পরিশোধ না করে অবৈধভাবে লাভবান হওয়ার জন্য ৬০ লাখ টাকা আত্মসাৎ করেন।

এ ব্যাপারে ২০১৩ সালের ২৪ নভেম্বর মামলা দায়ের করেন দুদক বরিশাল অফিসের সাবেক সহকারী পরিচালক মো. ওয়াজেদ আলী গাজী। ২০১৫ সালের ২৬ ফেব্রুয়ারি মামলার চার্জশিট দেন দুর্নীতি দমন বরিশাল অফিসের উপ-পরিচালক মো. নাজিম উদ্দিন। আদালত সাক্ষ্যগ্রহণ শেষে আসামি মো. দেলোয়ার হোসেনকে ১৪টি পৃথক মামলায় ৪২ বছর বিভিন্ন মেয়াদে সশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করেন। এছাড়া ৬০ লাখ টাকা অর্থদণ্ডে দণ্ডিত করেন।

বরিশালে গ্রামীণ ব্যাংক ম্যানেজারের ৪২ বছরের কারাদণ্ড

 বরিশাল ব্যুরো 
২৭ জানুয়ারি ২০২১, ০৬:৩২ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
জেল
জেল

দুদকের দায়ের করা ১৪টি পৃথক দুর্নীতি মামলায় বরিশাল নগরীর নবগ্রাম সড়কে অবস্থিত গ্রামীণ ব্যাংকের রায়পাশা শাখার ম্যানেজার মো. দেলোয়ার হাসানকে (পলাতক) বিভিন্ন মেয়াদে ৪২ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করা হয়েছে। এছাড়া ৬০ লাখ টাকা অর্থদণ্ডে দণ্ডিত করা হয়েছে। 

বরিশালের বিভাগীয় আদালতের স্পেশাল জজ মো. মহসিনুল হক মঙ্গলবার ওই রায় দেন। রায় ঘোষণার সময় আসামি পলাতক থাকায় বিচারক গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেন। এছাড়া অপর আসামি ব্যাংক অফিসার শাহ আলমকে বিভিন্ন মেয়াদে সাজা প্রদান করা হয়েছে।

ওই আদালতের বেঞ্চ সহকারী হারুন অর রশিদ জানান, বরিশাল দুদকের সাবেক সহকারী পরিচালক মো. ওয়াজেদ আলী গাজী বিভিন্ন মামলায় উল্লেখ করেন, আসামি গ্রামীণ ব্যাংকের রায়পাশা শাখার ম্যানেজার থাকাকালীন ২০১১ সালের ১২ জুন থেকে ২০১১ সালের ৫ জুলাই পর্যন্ত উক্ত মেয়াদে উক্ত শাখার বেশ কয়েকজন সদস্যের নামে ভুয়া ঋণ দেখিয়ে জাল স্বাক্ষর ঋণ বিতরণের খতিয়ান ব্যবহার করে টাকা তুলে ব্যাংকে জমা বা পরিশোধ না করে অবৈধভাবে লাভবান হওয়ার জন্য ৬০ লাখ টাকা আত্মসাৎ করেন।

এ ব্যাপারে ২০১৩ সালের ২৪ নভেম্বর মামলা দায়ের করেন দুদক বরিশাল অফিসের সাবেক সহকারী পরিচালক মো. ওয়াজেদ আলী গাজী। ২০১৫ সালের ২৬ ফেব্রুয়ারি মামলার চার্জশিট দেন দুর্নীতি দমন বরিশাল অফিসের উপ-পরিচালক মো. নাজিম উদ্দিন। আদালত সাক্ষ্যগ্রহণ শেষে আসামি মো. দেলোয়ার হোসেনকে ১৪টি পৃথক মামলায় ৪২ বছর বিভিন্ন মেয়াদে সশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করেন। এছাড়া ৬০ লাখ টাকা অর্থদণ্ডে দণ্ডিত করেন।
 

 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন