ইউপি চেয়ারম্যানের বিচার দাবিতে মুক্তিযোদ্ধাদের বিক্ষোভ
jugantor
ইউপি চেয়ারম্যানের বিচার দাবিতে মুক্তিযোদ্ধাদের বিক্ষোভ

  ফরিদপুর ব্যুরো  

২৯ জানুয়ারি ২০২১, ২১:৫২:১৪  |  অনলাইন সংস্করণ

চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে স্থানীয় মুক্তিযোদ্ধাদের নিয়ে অপপ্রচারের প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল

ফরিদপুরের সালথা উপজেলার আটঘর ইউনিয়নের চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে স্থানীয় মুক্তিযোদ্ধাদের নিয়ে অপপ্রচারের প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল ও সংবাদ সম্মেলন করা হয়েছে। শুক্রবার সকালে আটঘর ইউনিয়নের গোয়ালপাড়া বাজারে স্থানীয় মুক্তিযোদ্ধারা এ সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করেন।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল কাদের। তিনি বলেন, মহান মুক্তিযুদ্ধে জীবনবাজি রেখে আমরা দেশ স্বাধীন করেছি। স্বাধীনতাবিরোধীদের দোসর ছিল এই এলাকার কুখ্যাত রাজাকার গোলাম আলী ও লিয়াকত আলী। তাদের সেই বংশধরেরা এখন মুক্তিযোদ্ধাদের ওপর নানা নির্যাতন, মামলা-হামলা করে যাচ্ছে।

সংবাদ সম্মেলন থেকে অভিযোগ করে বলা হয়, আটঘর ইউপি চেয়ারম্যান শহিদুল ইসলাম এলাকায় দীর্ঘদিন ধরে অরাজকতা পরিস্থিতি সৃষ্টি করে রেখেছে। সে মুক্তিযোদ্ধাসহ স্থানীয় বেশকিছু ব্যক্তিকে মামলা দিয়ে হয়রানি করছে। তিনি বলেন, আমি একজন বয়োজ্যোষ্ঠ ব্যক্তি। আমাকে লাঞ্ছিত করা হয়েছে। মামলা দিয়ে হয়রানি করা হচ্ছে। আমার ঘরবাড়িতে হামলা চালিয়ে ভাংচুর ও লুটপাট করা হয়েছে। এ বিষয়ে সুষ্ঠ তদন্তের মাধ্যমে ইউপি চেয়ারম্যানের বিচার চেয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে দাবি জানানো হয়।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন- বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল কাদের, রাজ্জাক মোল্যা, পিকুল খান, সৈয়দ আলী মোল্যা, মালেক শেখ, সহিদ মাতুব্বর, বারেক শেখ, বতু শেখ, আদিল মাতুব্বর, মুশা খান প্রমুখ। পরে একটি বিক্ষোভ মিছিল বের হয়। মিছিলে মুক্তিযোদ্ধাসহ স্থানীয় এলাকাবাসী অংশ নেন।

অভিযোগের বিষয়ে আটঘর ইউপি চেয়ারম্যান শহিদুল ইসলাম সোহাগ বলেন, আটঘর ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান মলয় বোস হত্যা মামলার অন্যতম সাক্ষী তিনি। তার সাক্ষীর কারণে হত্যার সাথে জড়িতরা ফেঁসে গেছেন। তাই তারা আমার বিরুদ্ধে স্থানীয়দের দিয়ে বাড়িঘরে হামলাসহ মিথ্যা অভিযোগ আনছে।

ইউপি চেয়ারম্যানের বিচার দাবিতে মুক্তিযোদ্ধাদের বিক্ষোভ

 ফরিদপুর ব্যুরো 
২৯ জানুয়ারি ২০২১, ০৯:৫২ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে স্থানীয় মুক্তিযোদ্ধাদের নিয়ে অপপ্রচারের প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল
চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে স্থানীয় মুক্তিযোদ্ধাদের নিয়ে অপপ্রচারের প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল

ফরিদপুরের সালথা উপজেলার আটঘর ইউনিয়নের চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে স্থানীয় মুক্তিযোদ্ধাদের নিয়ে অপপ্রচারের প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল ও সংবাদ সম্মেলন করা হয়েছে। শুক্রবার সকালে আটঘর ইউনিয়নের গোয়ালপাড়া বাজারে স্থানীয় মুক্তিযোদ্ধারা এ সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করেন। 

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল কাদের। তিনি বলেন, মহান মুক্তিযুদ্ধে জীবনবাজি রেখে আমরা দেশ স্বাধীন করেছি। স্বাধীনতাবিরোধীদের দোসর ছিল এই এলাকার কুখ্যাত রাজাকার গোলাম আলী ও লিয়াকত আলী। তাদের সেই বংশধরেরা এখন মুক্তিযোদ্ধাদের ওপর নানা নির্যাতন, মামলা-হামলা করে যাচ্ছে। 

সংবাদ সম্মেলন থেকে অভিযোগ করে বলা হয়, আটঘর ইউপি চেয়ারম্যান শহিদুল ইসলাম এলাকায় দীর্ঘদিন ধরে অরাজকতা পরিস্থিতি সৃষ্টি করে রেখেছে। সে মুক্তিযোদ্ধাসহ স্থানীয় বেশকিছু ব্যক্তিকে মামলা দিয়ে হয়রানি করছে। তিনি বলেন, আমি একজন বয়োজ্যোষ্ঠ ব্যক্তি। আমাকে লাঞ্ছিত করা হয়েছে। মামলা দিয়ে হয়রানি করা হচ্ছে। আমার ঘরবাড়িতে হামলা চালিয়ে ভাংচুর ও লুটপাট করা হয়েছে। এ বিষয়ে সুষ্ঠ তদন্তের মাধ্যমে ইউপি চেয়ারম্যানের বিচার চেয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে দাবি জানানো হয়। 

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন- বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল কাদের, রাজ্জাক মোল্যা, পিকুল খান, সৈয়দ আলী মোল্যা, মালেক শেখ, সহিদ মাতুব্বর, বারেক শেখ, বতু শেখ, আদিল মাতুব্বর, মুশা খান প্রমুখ। পরে একটি বিক্ষোভ মিছিল বের হয়। মিছিলে মুক্তিযোদ্ধাসহ স্থানীয় এলাকাবাসী অংশ নেন।
 
অভিযোগের বিষয়ে আটঘর ইউপি চেয়ারম্যান শহিদুল ইসলাম সোহাগ বলেন, আটঘর ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান মলয় বোস হত্যা মামলার অন্যতম সাক্ষী তিনি। তার সাক্ষীর কারণে হত্যার সাথে জড়িতরা ফেঁসে গেছেন। তাই তারা আমার বিরুদ্ধে স্থানীয়দের দিয়ে বাড়িঘরে হামলাসহ মিথ্যা অভিযোগ আনছে।
 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন