নওগাঁয় ৩ আইনজীবী লাঞ্ছিত, আদালত বর্জন
jugantor
নওগাঁয় ৩ আইনজীবী লাঞ্ছিত, আদালত বর্জন

  নওগাঁ প্রতিনিধি  

০১ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ১৫:০৩:৫৮  |  অনলাইন সংস্করণ

নওগাঁয় ৩ আইনজীবী লাঞ্ছিত, আদালত বর্জন

নওগাঁয় আদালত চত্বরে রিকশা নিয়ে প্রবেশের সময় পুলিশের দ্বারা তিন আইনজীবীকে লাঞ্ছিতের অভিযোগের ঘটনায় আদালত বর্জন করেছেন আইনজীবীরা। সেই সঙ্গে অভিযুক্ত পুলিশকে ২৪ ঘণ্টার মধ্যে বরখাস্তসহ প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করা না হলে কঠোর কর্মসূচি দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। বর্তমানে আদালত চত্বরে থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

সোমবার দুপুর ১২টার দিকে জেলা অ্যাডভোকেট বার অ্যাসোসিয়েশন ভবনে এক জরুরিসভা করে এমন সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

আইনজীবীদের সূত্রে জানা যায়, বেলা ১১টার দিকে অ্যাডভোকেট মুরাদ হোসেন রিকশা নিয়ে আদালত চত্বরে প্রবেশ করছিলেন। এ সময় আদালত চত্বরের গেটে নিরাপত্তায় নিয়োজিত দায়িত্বরত এক পুলিশ কর্মকর্তা তাকে রিকশা না নিয়ে প্রবেশ করতে নিষেধ করেন। এ সময় উভয়ের মধ্যে তর্কাতর্কি শুরু হলে সেখানে অ্যাডভোকেট আবদুর রাজ্জাক ও অ্যাডভোকেট শাহ আলম আসেন। একপর্যায়ে পুলিশ কর্মকর্তা তাদেরও লাঞ্ছিত করে বলে অভিযোগ ওঠে। ঘটনার পর আদালত চত্বর উত্তপ্ত অবস্থা বিরাজ করে। পরে সেখানে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়।

লাঞ্ছিতের ঘটনায় পুলিশ কর্মকর্তার শাস্তি চেয়ে আদালত চত্বরে বিক্ষোভ করেন আইনজীবীরা দুপুর ১২টার দিকে জেলা অ্যাডভোকেট বার অ্যাসেসিয়েশন ভবনে এক জরুরিসভা করেন আইনজীবীরা।

এ সময় আদালত বর্জনের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। সেই সঙ্গে অভিযুক্ত পুলিশ কর্মকর্তাকে ২৪ ঘণ্টার মধ্যে বরখাস্তসহ প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করা না হলে কঠোর কর্মসূচি দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

আইনজীবীরা আদালত বর্জন করায় সেবা নিতে আসা ব্যক্তিদের ফেরত যেতে হয়।

নওগাঁ সদর থানার ওসি সোহরাওয়ার্দী হোসেন বলেন, জেলা ছাত্রলীগের পক্ষে জেলা প্রশাসক বরাবর একটি স্মারকলিপি দেওয়ার কথা ছিল। আদালত চত্বরের গেটে যেন যানজট না হয়, এ জন্য আগ থেকে নির্দেশনা ছিল। আদালত চত্বরে এক আইনজীবী রিকশা নিয়ে প্রবেশের সময় তর্ক হয়। তবে পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে পদক্ষেপ গ্রহণ করা হচ্ছে।

নওগাঁয় ৩ আইনজীবী লাঞ্ছিত, আদালত বর্জন

 নওগাঁ প্রতিনিধি 
০১ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ০৩:০৩ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
নওগাঁয় ৩ আইনজীবী লাঞ্ছিত, আদালত বর্জন
ছবি: যুগান্তর

নওগাঁয় আদালত চত্বরে রিকশা নিয়ে প্রবেশের সময় পুলিশের দ্বারা তিন আইনজীবীকে লাঞ্ছিতের অভিযোগের ঘটনায় আদালত বর্জন করেছেন আইনজীবীরা। সেই সঙ্গে অভিযুক্ত পুলিশকে ২৪ ঘণ্টার মধ্যে বরখাস্তসহ প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করা না হলে কঠোর কর্মসূচি দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। বর্তমানে  আদালত চত্বরে থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

সোমবার দুপুর ১২টার দিকে জেলা অ্যাডভোকেট বার অ্যাসোসিয়েশন ভবনে এক জরুরিসভা করে এমন সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

আইনজীবীদের সূত্রে জানা যায়, বেলা ১১টার দিকে অ্যাডভোকেট মুরাদ হোসেন রিকশা নিয়ে আদালত চত্বরে প্রবেশ করছিলেন। এ সময় আদালত চত্বরের গেটে নিরাপত্তায় নিয়োজিত দায়িত্বরত এক পুলিশ কর্মকর্তা তাকে রিকশা না নিয়ে প্রবেশ করতে নিষেধ করেন। এ সময় উভয়ের মধ্যে তর্কাতর্কি শুরু হলে সেখানে অ্যাডভোকেট আবদুর রাজ্জাক ও অ্যাডভোকেট শাহ আলম আসেন। একপর্যায়ে পুলিশ কর্মকর্তা তাদেরও লাঞ্ছিত করে বলে অভিযোগ ওঠে। ঘটনার পর আদালত চত্বর উত্তপ্ত অবস্থা বিরাজ করে। পরে সেখানে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়।

লাঞ্ছিতের ঘটনায় পুলিশ কর্মকর্তার শাস্তি চেয়ে আদালত চত্বরে বিক্ষোভ করেন আইনজীবীরা দুপুর ১২টার দিকে জেলা অ্যাডভোকেট বার অ্যাসেসিয়েশন ভবনে এক জরুরিসভা করেন আইনজীবীরা।

এ সময় আদালত বর্জনের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। সেই সঙ্গে অভিযুক্ত পুলিশ কর্মকর্তাকে ২৪ ঘণ্টার মধ্যে বরখাস্তসহ প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করা না হলে কঠোর কর্মসূচি দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

আইনজীবীরা আদালত বর্জন করায় সেবা নিতে আসা ব্যক্তিদের ফেরত যেতে হয়।

নওগাঁ সদর থানার ওসি সোহরাওয়ার্দী হোসেন বলেন, জেলা ছাত্রলীগের পক্ষে জেলা প্রশাসক বরাবর একটি স্মারকলিপি দেওয়ার কথা ছিল। আদালত চত্বরের গেটে যেন যানজট না হয়, এ জন্য আগ থেকে নির্দেশনা ছিল। আদালত চত্বরে এক আইনজীবী রিকশা নিয়ে প্রবেশের সময় তর্ক হয়। তবে পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে পদক্ষেপ গ্রহণ করা হচ্ছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন