স্টেজ শোতে নাচার কথা বলে ডেকে কিশোরীকে পালাক্রমে ধর্ষণ
jugantor
স্টেজ শোতে নাচার কথা বলে ডেকে কিশোরীকে পালাক্রমে ধর্ষণ

  গাজীপুর প্রতিনিধি  

০৩ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ১৯:২৫:৪১  |  অনলাইন সংস্করণ

গাজীপুর মহানগরীর কাশিমপুরে স্টেজ প্রোগ্রাম শোতে নাচার কথা বলে ডেকে নিয়ে কিশোরীকে পালাক্রমে ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় পুলিশ পাঁচজনকে গ্রেফতার করেছে।

মঙ্গলবার সন্ধ্যায় ওই কিশোরী নিজে বাদী হয়ে গাজীপুর মেট্রোপলিটন কাশিমপুর থানায় মামলা দায়ের করেছেন।

গ্রেফতারকৃতরা হলেন- কাশিমপুর থানার সারদাগঞ্জের লিয়াকত মার্কেট এলাকার আজিজুল খানের ছেলে জাহাঙ্গীর আলম শুভ (২৩), একই এলাকার ভাড়াটিয়া টাঙ্গাইল জেলার মির্জাপুর থানার খৈলসিন্দুরের (উয়াশী) শফিকুল ইসলামের ছেলে সুমন মিয়া (২৭), ফরিদপুর জেলার ভাঙ্গা থানার ভদ্রাসন এলাকার মোতালেব তালুকদারের ছেলে রাসেল তালুকদার (৩৫), নওগাঁ জেলার আত্রাই থানার সমসপাড়া এলাকার কোরান সরদারের ছেলে জহির উদ্দিন (৩২), রংপুরের হারাগাছ থানার গোফটারী থানার বকুল মিয়ার ছেলে সাহাবুল আইজুল (৩৭)।

মামলার এজাহারে ওই কিশোরী উল্লেখ করেন, ইউটিউব চ্যানেলের এক অভিনেত্রীর মাধ্যমে মোবাইল নাম্বার সংগ্রহ করে ভিকটিমের সঙ্গে অভিযুক্ত জাহাঙ্গীর আলম শুভ যোগাযোগ করে স্টেজ প্রোগ্রামের প্রস্তাব দেয়। পরে উপযুক্ত পারিশ্রমিকের কথায় রাজি হয়ে গত রোববার সন্ধ্যা ৭টার দিকে কাশিপুরের হাতিমারা বাসস্ট্যান্ডে এসে পৌঁছায়।

পরে সেখানে অপেক্ষমাণ অভিযুক্ত জাহাঙ্গীরসহ আরও দুইজন ওই কিশোরীকে সঙ্গে নিয়ে ওই এলাকার বর্ষাডেঙ্গা রাসেল তালুকদারের টিনশেড বাড়িতে নিয়ে যায়। সেখানে ওই রাতেই বাড়ির মালিক রাসেলের বেডরুমে অভিযুক্তরা ভিকটিমকে পালাক্রমে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে। অভিযুক্তরা ধর্ষণের সময় একে-অপরের নাম ধরে ডাকার কারণে ভিকটিম তাদের নামগুলো জানতে পারেন। একপর্যায়ে অভিযুক্তদের কাছ থেকে ভিকটিম কৌশলে পালিয়ে যান।

বিস্তারিত বিষয়টি ইউটিউব চ্যানেলের অভিনেত্রীকে জানান। পরে তাকে সঙ্গে নিয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে কৌশলে অভিযুক্তদের ঠিকানা সংগ্রহ করে থানায় এজাহার দায়ের করা হয়।

গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের উপকমিশনার মো. জাকির হাসান জানান, থানায় এজাহার দায়ের করার পর কাশিমপুর এলাকায় অভিযান চালানো হয়। পরে অভিযুক্তদের গ্রেফতার করে বুধবার দুপুরে গাজীপুর আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

স্টেজ শোতে নাচার কথা বলে ডেকে কিশোরীকে পালাক্রমে ধর্ষণ

 গাজীপুর প্রতিনিধি 
০৩ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ০৭:২৫ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

গাজীপুর মহানগরীর কাশিমপুরে স্টেজ প্রোগ্রাম শোতে নাচার কথা বলে ডেকে নিয়ে কিশোরীকে পালাক্রমে ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় পুলিশ পাঁচজনকে গ্রেফতার করেছে।

মঙ্গলবার সন্ধ্যায় ওই কিশোরী নিজে বাদী হয়ে গাজীপুর মেট্রোপলিটন কাশিমপুর থানায় মামলা দায়ের করেছেন।

গ্রেফতারকৃতরা হলেন- কাশিমপুর থানার সারদাগঞ্জের লিয়াকত মার্কেট এলাকার আজিজুল খানের ছেলে জাহাঙ্গীর আলম শুভ (২৩), একই এলাকার ভাড়াটিয়া টাঙ্গাইল জেলার মির্জাপুর থানার খৈলসিন্দুরের (উয়াশী) শফিকুল ইসলামের ছেলে সুমন মিয়া (২৭), ফরিদপুর জেলার ভাঙ্গা থানার ভদ্রাসন এলাকার মোতালেব তালুকদারের ছেলে রাসেল তালুকদার (৩৫), নওগাঁ জেলার আত্রাই থানার সমসপাড়া এলাকার কোরান সরদারের ছেলে জহির উদ্দিন (৩২), রংপুরের হারাগাছ থানার গোফটারী থানার বকুল মিয়ার ছেলে সাহাবুল আইজুল (৩৭)।

মামলার এজাহারে ওই কিশোরী উল্লেখ করেন, ইউটিউব চ্যানেলের এক অভিনেত্রীর মাধ্যমে মোবাইল নাম্বার সংগ্রহ করে ভিকটিমের সঙ্গে অভিযুক্ত জাহাঙ্গীর আলম শুভ যোগাযোগ করে স্টেজ প্রোগ্রামের প্রস্তাব দেয়। পরে উপযুক্ত পারিশ্রমিকের কথায় রাজি হয়ে গত রোববার সন্ধ্যা ৭টার দিকে কাশিপুরের হাতিমারা বাসস্ট্যান্ডে এসে পৌঁছায়।

পরে সেখানে অপেক্ষমাণ অভিযুক্ত জাহাঙ্গীরসহ আরও দুইজন ওই কিশোরীকে সঙ্গে নিয়ে ওই এলাকার বর্ষাডেঙ্গা রাসেল তালুকদারের টিনশেড বাড়িতে নিয়ে যায়। সেখানে ওই রাতেই বাড়ির মালিক রাসেলের বেডরুমে অভিযুক্তরা ভিকটিমকে পালাক্রমে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে। অভিযুক্তরা ধর্ষণের সময় একে-অপরের নাম ধরে ডাকার কারণে ভিকটিম তাদের নামগুলো জানতে পারেন। একপর্যায়ে অভিযুক্তদের কাছ থেকে ভিকটিম কৌশলে পালিয়ে যান।

বিস্তারিত বিষয়টি ইউটিউব চ্যানেলের অভিনেত্রীকে জানান। পরে তাকে সঙ্গে নিয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে কৌশলে অভিযুক্তদের ঠিকানা সংগ্রহ করে থানায় এজাহার দায়ের করা হয়।

গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের উপকমিশনার মো. জাকির হাসান জানান, থানায় এজাহার দায়ের করার পর কাশিমপুর এলাকায় অভিযান চালানো হয়। পরে অভিযুক্তদের গ্রেফতার করে বুধবার দুপুরে গাজীপুর আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন