২০০ টাকার জন্য বৃদ্ধকে গলা টিপে হত্যার অভিযোগ
jugantor
২০০ টাকার জন্য বৃদ্ধকে গলা টিপে হত্যার অভিযোগ

  লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি  

০৫ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ১০:৫৮:৫৫  |  অনলাইন সংস্করণ

লক্ষ্মীপুরে লোকমান হোসেন (৬৩) নামে এক বৃদ্ধকে গলা টিপে হত্যার অভিযোগ উঠেছে।

বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ১১টার দিকে সদর উপজেলার চররুহিতা ইউনিয়নের চররুহিতা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

পাওনা টাকা না দেওয়ায় খোরশেদ নামে এক অটোরিকশা মালিক ওই ব্যক্তিকে হত্যা করেছে বলে নিহতের পরিবার জানিয়েছে।

লোকমান চররুহিতা গ্রামের চৌকিদারবাড়ির বাসিন্দা। আর অভিযুক্ত খোরশেদ একই এলাকার সিরাজ উল্যা পালোয়ানের ছেলে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, বৃদ্ধ লোকমান ভাড়ায় খোরশেদের অটোরিকশা চালাতেন। সম্প্রতি তিনি রিকশা চালানো বন্ধ করে দেন। কিন্তু তার কাছে খোরশেদের ২০০ টাকা পাওনা ছিল।

বৃহস্পতিবার রাতে সেই পাওনা টাকা দাবি করলে লোকমান পরে দেবেন বলে জানান। এ সময় খোরশেদ তাকে এলোপাতাড়ি পিটিয়ে আহত করে। এর পর লোকমানের বুকের ওপর উঠে তাকে গলা টিপে হত্যা করে।

এ সময় স্থানীয়রা এগিয়ে এলে খোরশেদ ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যায়। পরে লোকমানকে উদ্ধার করে সদর হাসপাতালে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

নিহতের চাচাতো ভাই মুরাদ হোসেন যুগান্তরকে বলেন, আমার ভাইয়ের কাছ থেকে খোরশেদ ২০০ টাকা পেতেন। তিনি টাকা চাইলে ১০০ টাকা করে শুক্রবার ও সোমবার পরিশোধ করার কথা জানান লোকমান। কিন্তু খোরশেদ এতে রাজি না হয়ে আমার ভাইকে গলা টিপে হত্যা করেছেন।

লক্ষ্মীপুর সদর থানার ওসি জসিম উদ্দিন যুগান্তরকে বলেন, ২০০ টাকা নিয়ে হাতাহাতির ঘটনায় বৃদ্ধ নিহত হওয়ার খবর শুনেছি। নিহতের পরিবারের পক্ষ থেকে লিখিত অভিযোগ পেয়েছি।

ময়নাতদন্তের জন্য লাশ সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। ময়নাতদন্তের প্রতিবেদন অনুযায়ী আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানান তিনি।

২০০ টাকার জন্য বৃদ্ধকে গলা টিপে হত্যার অভিযোগ

 লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি 
০৫ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ১০:৫৮ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

লক্ষ্মীপুরে লোকমান হোসেন (৬৩) নামে এক বৃদ্ধকে গলা টিপে হত্যার অভিযোগ উঠেছে।

বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ১১টার দিকে সদর উপজেলার চররুহিতা ইউনিয়নের চররুহিতা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। 

পাওনা টাকা না দেওয়ায় খোরশেদ নামে এক অটোরিকশা মালিক ওই ব্যক্তিকে হত্যা করেছে বলে নিহতের পরিবার জানিয়েছে। 

লোকমান চররুহিতা গ্রামের চৌকিদারবাড়ির বাসিন্দা। আর অভিযুক্ত খোরশেদ একই এলাকার সিরাজ উল্যা পালোয়ানের ছেলে। 

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, বৃদ্ধ লোকমান ভাড়ায় খোরশেদের অটোরিকশা চালাতেন। সম্প্রতি তিনি রিকশা চালানো বন্ধ করে দেন। কিন্তু তার কাছে খোরশেদের ২০০ টাকা পাওনা ছিল। 

বৃহস্পতিবার রাতে সেই পাওনা টাকা দাবি করলে লোকমান পরে দেবেন বলে জানান। এ সময় খোরশেদ তাকে এলোপাতাড়ি পিটিয়ে আহত করে। এর পর লোকমানের বুকের ওপর উঠে তাকে গলা টিপে হত্যা করে। 

এ সময় স্থানীয়রা এগিয়ে এলে খোরশেদ ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যায়। পরে লোকমানকে উদ্ধার করে সদর হাসপাতালে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

নিহতের চাচাতো ভাই মুরাদ হোসেন যুগান্তরকে বলেন, আমার ভাইয়ের কাছ থেকে খোরশেদ ২০০ টাকা পেতেন। তিনি টাকা চাইলে ১০০ টাকা করে শুক্রবার ও সোমবার পরিশোধ করার কথা জানান লোকমান। কিন্তু খোরশেদ এতে রাজি না হয়ে আমার ভাইকে গলা টিপে হত্যা করেছেন।

লক্ষ্মীপুর সদর থানার ওসি জসিম উদ্দিন যুগান্তরকে বলেন, ২০০ টাকা নিয়ে হাতাহাতির ঘটনায় বৃদ্ধ নিহত হওয়ার খবর শুনেছি। নিহতের পরিবারের পক্ষ থেকে লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। 

ময়নাতদন্তের জন্য লাশ সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। ময়নাতদন্তের প্রতিবেদন অনুযায়ী আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানান তিনি।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন