নেত্রকোনায় স্কুল ভবনে ছাত্রের ঝুলন্ত লাশ
jugantor
নেত্রকোনায় স্কুল ভবনে ছাত্রের ঝুলন্ত লাশ

  পূর্বধলা (নেত্রকোণা) প্রতিনিধি  

০৬ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ১২:১৮:৪৩  |  অনলাইন সংস্করণ

নেত্রকোনার পূর্বধলায় জজ মিয়া (১৬) নামের এক স্কুলছাত্রের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

শুক্রবার দিনগত রাত সাড়ে ১২টার দিকে উপজেলার নবী হোসেন খান উচ্চ বিদ্যালয়ের নির্মাণাধীন ভবন থেকে তার লাশ উদ্ধার করা হয়।

জজ মিয়া ওই স্কুলের দশম শেণির ছাত্র ও উপজেলার বৈরাটি ইউনিয়নের দক্ষিণ কাজলা গ্রামের মান্নান মিয়ার ছেলে।

তবে এটি হত্যা না আত্মহত্যা তা নিয়ে এলাকায় চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়েছে।

পুলিশ জানায়, স্থানীয়দের মাধ্যমে খবর পেয়ে শুক্রবার দিনগত রাত সাড়ে ১২টার দিকে উপজেলার নবী হোসেন খান উচ্চ বিদ্যালয়ের নির্মাণাধীন ভবনের ভিমে গলায় ফাঁস লাগানো অবস্থায় জজ মিয়ার লাশ উদ্ধার করা হয়।

নিহতের ভগ্নিপতি আজিজুল হক জানান, জজ মিয়া শান্ত ও মেধাবী ছাত্র ছিল। সে পাশের গ্রামের একটি মেয়েকে ভালোবাসত। আর এ ভালোবাসাই তার জীবন কেড়ে নিয়েছে। গত কয়েকদিন আগেও জজ মিয়াকে মেয়েটির পরিবারের পক্ষ থেকে প্রাণনাশের হুমকি দিয়েছিল বলে দাবি করেন তিনি।

পূর্বধলা থানার ওসি মোহাম্মদ তাওহিদুর রহমান যুগান্তরকে জানান, আত্মহত্যার কারণ জানা যায়নি। লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নেত্রকোনা আধুনিক সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। ময়নাতদন্তের রির্পোটের প্রেক্ষিতে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

নেত্রকোনায় স্কুল ভবনে ছাত্রের ঝুলন্ত লাশ

 পূর্বধলা (নেত্রকোণা) প্রতিনিধি 
০৬ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ১২:১৮ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

নেত্রকোনার পূর্বধলায় জজ মিয়া (১৬) নামের এক স্কুলছাত্রের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। 

শুক্রবার দিনগত রাত সাড়ে ১২টার দিকে উপজেলার নবী হোসেন খান উচ্চ বিদ্যালয়ের নির্মাণাধীন ভবন থেকে তার লাশ উদ্ধার করা হয়।  

জজ মিয়া ওই স্কুলের দশম শেণির ছাত্র ও উপজেলার বৈরাটি ইউনিয়নের দক্ষিণ কাজলা গ্রামের মান্নান মিয়ার ছেলে।

তবে এটি হত্যা না আত্মহত্যা তা নিয়ে এলাকায় চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়েছে।

পুলিশ জানায়, স্থানীয়দের মাধ্যমে খবর পেয়ে শুক্রবার দিনগত রাত সাড়ে ১২টার দিকে উপজেলার নবী হোসেন খান উচ্চ বিদ্যালয়ের নির্মাণাধীন ভবনের ভিমে গলায় ফাঁস লাগানো অবস্থায় জজ মিয়ার লাশ উদ্ধার করা হয়।

নিহতের ভগ্নিপতি আজিজুল হক জানান, জজ মিয়া শান্ত ও মেধাবী ছাত্র ছিল। সে পাশের গ্রামের একটি মেয়েকে ভালোবাসত। আর এ ভালোবাসাই তার জীবন কেড়ে নিয়েছে। গত কয়েকদিন আগেও জজ মিয়াকে মেয়েটির পরিবারের পক্ষ থেকে প্রাণনাশের হুমকি দিয়েছিল বলে দাবি করেন তিনি। 

পূর্বধলা থানার ওসি মোহাম্মদ তাওহিদুর রহমান যুগান্তরকে জানান, আত্মহত্যার কারণ জানা যায়নি। লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নেত্রকোনা আধুনিক সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। ময়নাতদন্তের রির্পোটের প্রেক্ষিতে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন