হবিগঞ্জে প্রথম টিকা নিলেন এমপি আবু জাহির
jugantor
হবিগঞ্জে প্রথম টিকা নিলেন এমপি আবু জাহির

  হবিগঞ্জ প্রতিনিধি  

০৭ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ১৪:২২:২৫  |  অনলাইন সংস্করণ

হবিগঞ্জে প্রথম টিকা নিলেন এমপি আবু জাহির

হবিগঞ্জে প্রথম করোনার টিকা নিয়েছেন সংসদ সদস্য অ্যাডভোকেট মো. আবু জাহির। এর পরই টিকা নিয়েছেন জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ কামরুল হাসান।

রোববার বেলা সাড়ে ১১টায় ২৫০ শয্যা সদর আধুনিক হাসপাতালে সংসদ সদস্য টিকা নিয়ে করোনা ভ্যাকসিন কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন সংসদ সদস্য অ্যাডভোকেট মো. আবু জাহির।

এ সময় তিনি বলেন, যুদ্ধাপরাধীদের বিচার থেকে শুরু করে পদ্মা সেতু পর্যন্ত অতিতে বিভিন্ন সরকারের কার্যক্রমে একদল কুচক্রি মহল গুজব ছড়িয়েছে।
এবারও তারা সক্রিয়ভাবে গুজব ছড়াচ্ছে। তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে। সকলকে উদ্বুদ্ধ করতে তিনি প্রথমে টিকা নিয়েছেন বলে তিনি জানান।

জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ কামরুল হাসান বলেন, এ টিকা নিজের জন্য নিতে হবে। নিজে সুস্থ থাকার জন্যই নেওয়া প্রয়োজন। তাই ভয় নয়, সবাইকে উদ্বুদ্ধ করতে হবে টিকা নেওয়ার জন্য। এর কোনো পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া নেই।
এতে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন পুলিশ সুপার মোহাম্মদ উল্লা, সিভিল সার্জন ডা. একেএম মোস্তাফিজুর রহমান, ডেপুটি সিভিল সার্জন ডা. মুখলেছুর রহমান উজ্জ্বল, রেড ক্রিসেন্টের সাধারণ সম্পাদক আতাউর রহমান সেলিম প্রমুখ।

ডেপুটি সিভিল সার্জন ডা. মুখলেছুর রহমান উজ্জল জানান, জেলার আটটি কেন্দ্রে ২৫০ জনকে পৃথকভাবে ভ্যাকসিন প্রয়োগ করা হবে।

গতকাল শনিবার পর্যন্ত জেলায় ভ্যাকসিনের জন্য দুই হাজার ৩৪৬ জন নিবন্ধন করেন।

হবিগঞ্জে প্রথম টিকা নিলেন এমপি আবু জাহির

 হবিগঞ্জ প্রতিনিধি 
০৭ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ০২:২২ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
হবিগঞ্জে প্রথম টিকা নিলেন এমপি আবু জাহির
ছবি: যুগান্তর

হবিগঞ্জে প্রথম করোনার টিকা নিয়েছেন সংসদ সদস্য অ্যাডভোকেট মো. আবু জাহির। এর পরই টিকা নিয়েছেন জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ কামরুল হাসান।

রোববার বেলা সাড়ে ১১টায় ২৫০ শয্যা সদর আধুনিক হাসপাতালে সংসদ সদস্য টিকা নিয়ে করোনা ভ্যাকসিন কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন সংসদ সদস্য অ্যাডভোকেট মো. আবু জাহির।

এ সময় তিনি বলেন, যুদ্ধাপরাধীদের বিচার থেকে শুরু করে পদ্মা সেতু পর্যন্ত অতিতে বিভিন্ন সরকারের কার্যক্রমে একদল কুচক্রি মহল গুজব ছড়িয়েছে।
এবারও তারা সক্রিয়ভাবে গুজব ছড়াচ্ছে। তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে। সকলকে উদ্বুদ্ধ করতে তিনি প্রথমে টিকা নিয়েছেন বলে তিনি জানান।

জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ কামরুল হাসান বলেন, এ টিকা নিজের জন্য নিতে হবে। নিজে সুস্থ থাকার জন্যই নেওয়া প্রয়োজন। তাই ভয় নয়, সবাইকে উদ্বুদ্ধ করতে হবে টিকা নেওয়ার জন্য। এর কোনো পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া নেই।
এতে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন পুলিশ সুপার মোহাম্মদ উল্লা, সিভিল সার্জন ডা. একেএম মোস্তাফিজুর রহমান, ডেপুটি সিভিল সার্জন ডা. মুখলেছুর রহমান উজ্জ্বল, রেড ক্রিসেন্টের সাধারণ সম্পাদক আতাউর রহমান সেলিম প্রমুখ।

ডেপুটি সিভিল সার্জন ডা. মুখলেছুর রহমান উজ্জল জানান, জেলার আটটি কেন্দ্রে ২৫০ জনকে পৃথকভাবে ভ্যাকসিন প্রয়োগ করা হবে।

গতকাল শনিবার পর্যন্ত জেলায় ভ্যাকসিনের জন্য দুই হাজার ৩৪৬ জন নিবন্ধন করেন।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন