সাদুল্লাপুরে গাছে যুবকের ঝুলন্ত লাশ
jugantor
সাদুল্লাপুরে গাছে যুবকের ঝুলন্ত লাশ

  সাদুল্লাপুর (গাইবান্ধা) প্রতিনিধি  

০৮ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ১৪:৪৭:২১  |  অনলাইন সংস্করণ

ঝুলন্ত লাশ

গাইবান্ধার সাদুল্লাপুর উপজেলায় মেহেরুল ইসলাম (২২) নামে এক যুবকের ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

সোমবার সকালে উপজেলার জামালপুর ইউনিয়নের হামিন্দপুর ঘাঘট নদীসংলগ্ন রাস্তার একটি গাছ থেকে মেহেরুলের ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

নিহত মেহেরুল ওই ইউনিয়নের হামিন্দপুর (সাতআনা) গ্রামের আজল হকের ছেলে।

স্বজনরা জানান, জীবিকার তাগিদে মেহেরুল ইসলাম ও তার বাবা-মাসহ ঢাকায় বসবাস করে আসছিলেন। এরই মধ্যে ১০ দিন আগে বাড়িতে বেড়াতে আসে মেহেরুল। একপর্যায়ে রোববার বিকালের দিকে বাড়ি থেকে বের হলে ফিরে আসেনি।

খোঁজাখুঁজির একপর্যায়ে সোমবার সকালে ওই স্থানের একটি গাছের ডালের সঙ্গে গলায় ফাঁস লাগানো অবস্থায় মরদেহ দেখতে পান স্থানীয় বাসিন্দারা। পরে পুলিশ খবর পেয়ে মেহেরুলের ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করে। তবে এটি হত্যা নাকি আত্মহত্যা এ নিয়ে এলাকাবাসীর মধ্যে নানা জল্পনা-কল্পনার সৃষ্টি হয়েছে।

সাদুল্লাপুর থানার এসআই রাকিব মিয়া বলেন, সুরতহাল রিপোর্ট শেষে দুপুরের দিকে মেহেরুলের মরদেহ গাইবান্ধায় হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। রিপোর্ট পেলে মৃত্যুর কারণ সম্পর্কে জানা যাবে।

সাদুল্লাপুরে গাছে যুবকের ঝুলন্ত লাশ

 সাদুল্লাপুর (গাইবান্ধা) প্রতিনিধি 
০৮ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ০২:৪৭ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
ঝুলন্ত লাশ
ফাইল ছবি

গাইবান্ধার সাদুল্লাপুর উপজেলায় মেহেরুল ইসলাম (২২) নামে এক যুবকের ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

সোমবার সকালে উপজেলার জামালপুর ইউনিয়নের হামিন্দপুর ঘাঘট নদীসংলগ্ন রাস্তার একটি গাছ থেকে মেহেরুলের ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

নিহত মেহেরুল ওই ইউনিয়নের হামিন্দপুর (সাতআনা) গ্রামের আজল হকের ছেলে।

স্বজনরা জানান, জীবিকার তাগিদে মেহেরুল ইসলাম ও তার বাবা-মাসহ ঢাকায় বসবাস করে আসছিলেন। এরই মধ্যে ১০ দিন আগে বাড়িতে বেড়াতে আসে মেহেরুল। একপর্যায়ে রোববার বিকালের দিকে বাড়ি থেকে বের হলে ফিরে আসেনি।

খোঁজাখুঁজির একপর্যায়ে সোমবার সকালে ওই স্থানের একটি গাছের ডালের সঙ্গে গলায় ফাঁস লাগানো অবস্থায় মরদেহ দেখতে পান স্থানীয় বাসিন্দারা। পরে পুলিশ খবর পেয়ে মেহেরুলের ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করে। তবে এটি হত্যা নাকি আত্মহত্যা এ নিয়ে এলাকাবাসীর মধ্যে নানা জল্পনা-কল্পনার সৃষ্টি হয়েছে।

সাদুল্লাপুর থানার এসআই রাকিব মিয়া বলেন, সুরতহাল রিপোর্ট শেষে দুপুরের দিকে মেহেরুলের মরদেহ গাইবান্ধায় হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। রিপোর্ট পেলে মৃত্যুর কারণ সম্পর্কে জানা যাবে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
আরও খবর
 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন