এ কেমন মামা!
jugantor
এ কেমন মামা!

  দিনাজপুর প্রতিনিধি  

০৮ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ১৭:৩৭:২০  |  অনলাইন সংস্করণ

দিনাজপুরের ঘোড়াঘাটে যৌন নির্যাতনের শিকার হয়েছে সাড়ে ৩ বছর বয়সী এক শিশুকন্যা। এ ঘটনায় পুলিশ নির্যাতনকারী ওই শিশুটির মামা লাল মিয়াকে (৫৫) গ্রেফতার করেছে। শিশুটিকে হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।

পুলিশ জানায়, ঘোড়াঘাট উপজেলার বিরাহিমপুর গুচ্ছগ্রামের এক দম্পতি বেশ কিছুদিন ধরেই ঢাকার একটি গার্মেন্টসে কাজ করেন। এজন্য তাদের সাড়ে তিন বছর বয়সী ওই শিশু কন্যাটিকে পার্শ্ববর্তী মকলিসপুর গ্রামে তার নানার বাড়িতে লালন-পালনের জন্য রেখে যান তারা।

রোববার দুপুরে শিশুটি তার নানার বাড়িতে খেলা করছিলো। এ সময় তার নিজ মামা লাল মিয়া শিশুটিকে কোলে নিয়ে যৌন নির্যাতন চালায়। এতে শিশুটির প্রচুর রক্তক্ষরণ ও চিৎকার করে কান্নাকাটি শুরু করলে আশেপাশের লোকজন এসে শিশুটিকে উদ্ধার করে এবং মামা লাল মিয়াকে গণধোলাই দেয়। পরে লাল মিয়ার গলায় জুতার মালা পড়িয়ে গ্রামে ঘুরিয়ে নিয়ে বেড়ায়।

রাতে শিশুটির চাচা বাদী হয়ে ঘোড়াঘাট থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে একটি মামলা দায়ের করলে পুলিশ লাল মিয়াকে গ্রেফতার করে।

গ্রেফতারকৃত লাল মিয়া (৫৫) ঘোড়াঘাট উপজেলার মগলিশপুর গ্রামের মৃত নঈমুদ্দিনের ছেলে।

বিষয়টি নিশ্চিত করে ঘোড়াঘাট থানার ওসি মো. আজিম উদ্দিন জানান, গ্রেফতারকৃত আসামির বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা রুজু করে সোমবার সকালে দিনাজপুর আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।

এ কেমন মামা!

 দিনাজপুর প্রতিনিধি 
০৮ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ০৫:৩৭ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

দিনাজপুরের ঘোড়াঘাটে যৌন নির্যাতনের শিকার হয়েছে সাড়ে ৩ বছর বয়সী এক শিশুকন্যা। এ ঘটনায় পুলিশ নির্যাতনকারী ওই শিশুটির মামা লাল মিয়াকে (৫৫) গ্রেফতার করেছে। শিশুটিকে হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।

পুলিশ জানায়, ঘোড়াঘাট উপজেলার বিরাহিমপুর গুচ্ছগ্রামের এক দম্পতি বেশ কিছুদিন ধরেই ঢাকার একটি গার্মেন্টসে কাজ করেন। এজন্য তাদের সাড়ে তিন বছর বয়সী ওই শিশু কন্যাটিকে পার্শ্ববর্তী মকলিসপুর গ্রামে তার নানার বাড়িতে লালন-পালনের জন্য রেখে যান তারা।

রোববার দুপুরে শিশুটি তার নানার বাড়িতে খেলা করছিলো। এ সময় তার নিজ মামা লাল মিয়া শিশুটিকে কোলে নিয়ে যৌন নির্যাতন চালায়। এতে শিশুটির প্রচুর রক্তক্ষরণ ও চিৎকার করে কান্নাকাটি শুরু করলে আশেপাশের লোকজন এসে শিশুটিকে উদ্ধার করে এবং মামা লাল মিয়াকে গণধোলাই দেয়। পরে লাল মিয়ার গলায় জুতার মালা পড়িয়ে গ্রামে ঘুরিয়ে নিয়ে বেড়ায়।

রাতে শিশুটির চাচা বাদী হয়ে ঘোড়াঘাট থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে একটি মামলা দায়ের করলে পুলিশ লাল মিয়াকে গ্রেফতার করে।

গ্রেফতারকৃত লাল মিয়া (৫৫) ঘোড়াঘাট উপজেলার মগলিশপুর গ্রামের মৃত নঈমুদ্দিনের ছেলে।

বিষয়টি নিশ্চিত করে ঘোড়াঘাট থানার ওসি মো. আজিম উদ্দিন জানান, গ্রেফতারকৃত আসামির বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা রুজু করে সোমবার সকালে দিনাজপুর আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন