চকলেটের প্রলোভনে ৩ শিশুকে ধর্ষণ
jugantor
চকলেটের প্রলোভনে ৩ শিশুকে ধর্ষণ

  লালপুর (নাটোর) প্রতিনিধি  

০৯ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ১৫:০২:৩১  |  অনলাইন সংস্করণ

শিশু ধর্ষণ

নাটোরের লালপুর উপজেলায় তিন শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে এক বৃদ্ধের বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় বৃদ্ধ জামাত আলীকে (৬০) গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

সোমবার সন্ধ্যায় উপজেলার দুয়ারিয়া ইউনিয়নের হাঁপানিয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। নির্যাতনের শিকার ওই তিন শিশুর বয়স ৮-১০ বছরের মধ্যে।

অভিযুক্ত জামাত উপজেলার হাঁপানিয়া গ্রামের মৃত ইয়াত আলীর ছেলে। তিনি পেশায় চা দোকানদার।

জানা যায়, সন্ধ্যায় জামাত আলীর চায়ের স্টোলের সামনে দিয়ে ওই তিন শিশু নিজ নিজ বাড়িতে যাচ্ছিল। এ সময় জামাত আলী চকলেট দেওয়ার কথা বলে তাদের পাশের একটি কক্ষে নিয়ে ধর্ষণ করে।

ওই শিশুদের কান্নায় স্থানীয় লোকজন এসে জামাত আলীকে হাতেনাতে ধরে এবং তাকে গণধোলাই দিয়ে গাছের সঙ্গে বেঁধে রাখে।

পরে ওই তিন শিশুকে উদ্ধার করে স্থানীয়রা চিকিৎসকের কাছে নিয়ে যান। এর পর স্থানীয় লোকজন বিষয়টি লালপুর থানা পুলিশে জানান। পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে জামাত আলীকে গ্রেফতার করে থানায় নিয়ে যায়।

এ বিষয়ে লালপুর থানায় জামাত আলীর বিরুদ্ধে ধর্ষণ ও শিশু নির্যাতন আইনে একটি মামলা করা হয়েছে।

লালপুর থানার ওসি (তদন্ত) আবু সিদ্দিক বলেন, আটক ব্যক্তিকে সকালে আদালতে পাঠানো হয়েছে।

চকলেটের প্রলোভনে ৩ শিশুকে ধর্ষণ

 লালপুর (নাটোর) প্রতিনিধি 
০৯ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ০৩:০২ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
শিশু ধর্ষণ
ফাইল ছবি

নাটোরের লালপুর উপজেলায় তিন শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে এক বৃদ্ধের বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় বৃদ্ধ জামাত আলীকে (৬০) গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

সোমবার সন্ধ্যায় উপজেলার দুয়ারিয়া ইউনিয়নের হাঁপানিয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। নির্যাতনের শিকার ওই তিন শিশুর বয়স ৮-১০ বছরের মধ্যে।

অভিযুক্ত জামাত উপজেলার হাঁপানিয়া গ্রামের মৃত ইয়াত আলীর ছেলে। তিনি পেশায় চা দোকানদার।

জানা যায়, সন্ধ্যায় জামাত আলীর চায়ের স্টোলের সামনে দিয়ে ওই তিন শিশু নিজ নিজ বাড়িতে যাচ্ছিল। এ সময় জামাত আলী চকলেট দেওয়ার কথা বলে তাদের পাশের একটি কক্ষে নিয়ে ধর্ষণ করে।

ওই শিশুদের কান্নায় স্থানীয় লোকজন এসে জামাত আলীকে হাতেনাতে ধরে এবং তাকে গণধোলাই দিয়ে গাছের সঙ্গে বেঁধে রাখে।

পরে ওই তিন শিশুকে উদ্ধার করে স্থানীয়রা চিকিৎসকের কাছে নিয়ে যান। এর পর স্থানীয় লোকজন বিষয়টি লালপুর থানা পুলিশে জানান। পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে জামাত আলীকে গ্রেফতার করে থানায় নিয়ে যায়।

এ বিষয়ে লালপুর থানায় জামাত আলীর বিরুদ্ধে ধর্ষণ ও শিশু নির্যাতন আইনে একটি মামলা করা হয়েছে।

লালপুর থানার ওসি (তদন্ত) আবু সিদ্দিক বলেন, আটক ব্যক্তিকে সকালে আদালতে পাঠানো হয়েছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন