সাতকানিয়ায় রাজমিস্ত্রির লাশ উদ্ধার
jugantor
সাতকানিয়ায় রাজমিস্ত্রির লাশ উদ্ধার

  সাতকানিয়া (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি  

১৩ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ০২:২১:৪৫  |  অনলাইন সংস্করণ

চট্টগ্রামের সাতকানিয়া পৌরসভার ৮নং ওয়ার্ড ইছামতিকুল এলাকা থেকে আব্দুস সামাদ (২২) নামে এক রাজমিস্ত্রির লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

শুক্রবার সকালে ইছামতিকুল জাফর আহমদের বাড়ির পাশে পুকুর পাড়ে লাশ দেখে স্থানীয়রা পুলিশে খবর দেয়। খবর পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে পুলিশ লাশটি উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে। পরে ময়নাতদন্তের জন্য চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠিয়ে দেয়।

নিহত আব্দুস সামাদ সিলেটের জকিগঞ্জ থানার দক্ষিণ বিপক এলাকার মৃত কায়সারের ছেলে। সাতকানিয়া পৌরসভার ইছামতিকুল ৮নং ওয়ার্ডে আক্তার কলোনিতে ভাড়া বাসায় থাকতেন।

পুলিশ ও স্বজনদের সূত্রে জানা গেছে, নিহত আব্দুস সামাদ ২০১৩ সালে চাচা মো. ছায়াদ আহমদের সঙ্গে রাজমিস্ত্রির কাজ করতে সাতকানিয়ায় আসেন। বুধবার কাজ করার সময় চোখে রডের গুঁড়া পড়ায় আর কাজে যায়নি। গত বৃহস্পতিবার রাতেও তাকে রাস্তায় ঘুরাঘুরি করতে দেখা গেছে। পরে রাতে বাসায় না ফিরলে তাকে কল দিয়ে পাওয়া যায়নি।

শুক্রবার ইছামতিকুল জাফর আহমদের বাড়ির পাশে পুকুর পাড়ে ওড়না দিয়ে ফাঁস লাগানো অবস্থায় দেখতে পেলে চাচা ছায়াদ হোসেনসহ স্থানীয়রা থানায় খবর দেয়। পরে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে লাশটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠায়।

সাতকানিয়া থানার এসআই জাহাঙ্গীর বলেন, আমরা ঘটনাস্থল থেকে লাশটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজের মর্গে পাঠিয়েছি। থানায় একটি অপমৃত্যু মামলাও হয়েছে। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, ছেলেটি আত্মহত্যা করেছে। ময়নাতদন্তের পরই বিস্তারিত জানানো যাবে।

সাতকানিয়ায় রাজমিস্ত্রির লাশ উদ্ধার

 সাতকানিয়া (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি 
১৩ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ০২:২১ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

চট্টগ্রামের সাতকানিয়া পৌরসভার ৮নং ওয়ার্ড ইছামতিকুল এলাকা থেকে আব্দুস সামাদ (২২) নামে এক রাজমিস্ত্রির লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

শুক্রবার সকালে ইছামতিকুল জাফর আহমদের বাড়ির পাশে পুকুর পাড়ে লাশ দেখে স্থানীয়রা পুলিশে খবর দেয়। খবর পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে পুলিশ লাশটি উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে। পরে ময়নাতদন্তের জন্য চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠিয়ে দেয়।

নিহত আব্দুস সামাদ সিলেটের জকিগঞ্জ থানার দক্ষিণ বিপক এলাকার মৃত কায়সারের ছেলে। সাতকানিয়া পৌরসভার ইছামতিকুল ৮নং ওয়ার্ডে আক্তার কলোনিতে ভাড়া বাসায় থাকতেন।

পুলিশ ও স্বজনদের সূত্রে জানা গেছে, নিহত আব্দুস সামাদ ২০১৩ সালে চাচা মো. ছায়াদ আহমদের সঙ্গে রাজমিস্ত্রির কাজ করতে সাতকানিয়ায় আসেন। বুধবার কাজ করার সময় চোখে রডের গুঁড়া পড়ায় আর কাজে যায়নি। গত বৃহস্পতিবার রাতেও তাকে রাস্তায় ঘুরাঘুরি করতে দেখা গেছে। পরে রাতে বাসায় না ফিরলে তাকে কল দিয়ে পাওয়া যায়নি।

শুক্রবার ইছামতিকুল জাফর আহমদের বাড়ির পাশে পুকুর পাড়ে ওড়না দিয়ে ফাঁস লাগানো অবস্থায় দেখতে পেলে চাচা ছায়াদ হোসেনসহ স্থানীয়রা থানায় খবর দেয়। পরে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে লাশটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠায়।

সাতকানিয়া থানার এসআই জাহাঙ্গীর বলেন, আমরা ঘটনাস্থল থেকে লাশটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজের মর্গে পাঠিয়েছি। থানায় একটি অপমৃত্যু মামলাও হয়েছে। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, ছেলেটি আত্মহত্যা করেছে। ময়নাতদন্তের পরই বিস্তারিত জানানো যাবে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন