বসুরহাট পৌরসভায় ১৪৪ ধারা জারি
jugantor
বসুরহাট পৌরসভায় ১৪৪ ধারা জারি

  নোয়াখালী ও কোম্পানীগঞ্জ প্রতিনিধি  

২২ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ০০:২১:৪৬  |  অনলাইন সংস্করণ

নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার বসুরহাট পৌরসভায় মেয়র আবদুল কাদের মির্জা ও সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান বাদলের সমর্থকদের ডাকা পাল্টাপাল্টি কর্মসূচির কারণে ১৪৪ ধারা জারি করেছে উপজেলা প্রশাসন।

রোববার রাত ১১টায় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাও নির্বাহীম্যাজিস্ট্রেট মো. জিয়াউল হক মীর বসুরহাট পৌরসভায় সোমবার ভোর ৬টা থেকে সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত ১৪৪ ধারার এ আদেশ জারি করেন। রাতেই বসুরহাট বাজারসহ বিভিন্ন স্থানে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

মুজাক্কির হত্যাকাণ্ডের পর উদ্ভূত পরিস্থিতিতে কাদের মির্জা-বাদল গ্রুপের পক্ষ থেকে একই দিন একই স্থানে পাল্টাপাল্টি কর্মসূচি দেয়া হয়েছে। এ নিয়ে জনমনে চরম আতঙ্ক বিরাজ করছে।

কাদের মির্জার অনুসারীরা সাংবাদিক মুজাক্কিরের মৃত্যুর সংবাদ পেয়ে তাকে তাদের কর্মী দাবি করে শনিবার রাতে এ হত্যাকাণ্ডের জন্য তাদের প্রতিপক্ষদের দায়ী করে গ্রেফতার দাবিতে বসুরহাটে বিক্ষোভ মিছিল করে। পরে কাদের মির্জার পক্ষ থেকে সোমবার দুপুর আড়াইটায় বসুরহাট রূপালী চত্বরে শোক ও প্রতিবাদ সভার কর্মসূচির ঘোষণা করেছে।

এর পূর্বে শনিবার সকালে নোয়াখালী জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান বাদল সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে সোমবার বিকাল ৩টায় একই স্থান বসুরহাট রূপালী চত্বরে আওয়ামী লীগ সভানেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, সাধারণ সম্পাদক সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরকে নিয়ে কটূক্তি, অশালীন ভাষায় বক্তব্য এবং তারাসহ দলীয় অন্যান্য নেতৃবৃন্দের বিরুদ্ধে উস্কানিমূলক মিথ্যাচারের প্রতিবাদে বসুরহাট পৌরসভার মেয়র কাদের মির্জার বিরুদ্ধে প্রতিবাদ সমাবেশের ঘোষণা দিয়েছিলেন।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. জিয়াউল হক মীর জানান, দুই পক্ষ বসুরহাটে পাল্টাপাল্টি একই স্থানে সমাবেশ ডাকায় সমগ্র বসুরহাট পৌর এলাকায় এলাকায় ১৪৪ ধারা জারি করা হয়েছে। এ সময় সব ধরনের সভা সমাবেশ ও মিছিল নিষিদ্ধ করা হয়েছে।

কোম্পানীগঞ্জ থানার ওসি মীর জাহেদুল হক রনি জানান, দুই পক্ষের পাল্টাপাল্টি কর্মসূচি দেয়ার কারণে কোনো অবস্থানে শান্তি-শৃঙ্খলা যেন বিঘ্ন না ঘটে বিবেচনায় অতিরিক্ত পুলিশ ও ডিবি পুলিশ মোতায়েন করা আছে।

বসুরহাট পৌরসভায় ১৪৪ ধারা জারি

 নোয়াখালী ও কোম্পানীগঞ্জ প্রতিনিধি 
২২ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ১২:২১ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার বসুরহাট পৌরসভায় মেয়র আবদুল কাদের মির্জা ও সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান বাদলের সমর্থকদের ডাকা পাল্টাপাল্টি কর্মসূচির কারণে ১৪৪ ধারা জারি করেছে উপজেলা প্রশাসন।

রোববার রাত ১১টায় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. জিয়াউল হক মীর বসুরহাট পৌরসভায় সোমবার ভোর ৬টা থেকে সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত ১৪৪ ধারার এ আদেশ জারি করেন। রাতেই বসুরহাট বাজারসহ বিভিন্ন স্থানে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

মুজাক্কির হত্যাকাণ্ডের পর উদ্ভূত পরিস্থিতিতে কাদের মির্জা-বাদল গ্রুপের পক্ষ থেকে একই দিন একই স্থানে পাল্টাপাল্টি কর্মসূচি দেয়া হয়েছে। এ নিয়ে জনমনে চরম আতঙ্ক বিরাজ করছে।

কাদের মির্জার অনুসারীরা সাংবাদিক মুজাক্কিরের মৃত্যুর সংবাদ পেয়ে তাকে তাদের কর্মী দাবি করে শনিবার রাতে এ হত্যাকাণ্ডের জন্য তাদের প্রতিপক্ষদের দায়ী করে গ্রেফতার দাবিতে বসুরহাটে বিক্ষোভ মিছিল করে। পরে কাদের মির্জার পক্ষ থেকে সোমবার দুপুর আড়াইটায় বসুরহাট রূপালী চত্বরে শোক ও প্রতিবাদ সভার কর্মসূচির ঘোষণা করেছে।

এর পূর্বে শনিবার সকালে নোয়াখালী জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান বাদল সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে সোমবার বিকাল ৩টায় একই স্থান বসুরহাট রূপালী চত্বরে আওয়ামী লীগ সভানেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, সাধারণ সম্পাদক সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরকে নিয়ে কটূক্তি, অশালীন ভাষায় বক্তব্য এবং তারাসহ দলীয় অন্যান্য নেতৃবৃন্দের বিরুদ্ধে উস্কানিমূলক মিথ্যাচারের প্রতিবাদে বসুরহাট পৌরসভার মেয়র কাদের মির্জার বিরুদ্ধে প্রতিবাদ সমাবেশের ঘোষণা দিয়েছিলেন।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. জিয়াউল হক মীর জানান, দুই পক্ষ বসুরহাটে পাল্টাপাল্টি একই স্থানে সমাবেশ ডাকায় সমগ্র বসুরহাট পৌর এলাকায় এলাকায় ১৪৪ ধারা জারি করা হয়েছে। এ সময় সব ধরনের সভা সমাবেশ ও মিছিল নিষিদ্ধ করা হয়েছে।

কোম্পানীগঞ্জ থানার ওসি মীর জাহেদুল হক রনি জানান, দুই পক্ষের পাল্টাপাল্টি কর্মসূচি দেয়ার কারণে কোনো অবস্থানে শান্তি-শৃঙ্খলা যেন বিঘ্ন না ঘটে বিবেচনায় অতিরিক্ত পুলিশ ও ডিবি পুলিশ মোতায়েন করা আছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : আবদুল কাদের মির্জা

জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন