মেঘনায় গৃহবধূ নাজমা হত্যার বিচার দাবিতে মানববন্ধন
jugantor
মেঘনায় গৃহবধূ নাজমা হত্যার বিচার দাবিতে মানববন্ধন

  মেঘনা (কুমিল্লা) প্রতিনিধি  

২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ১৫:১৮:৪৫  |  অনলাইন সংস্করণ

কুমিল্লার মেঘনা উপজেলার ভাওরখোলা এলকায় নাজমা নামে এক গৃহবধূকে কুপিয়ে হত্যাকারীদের বিচার চেয়ে মানববন্ধন করেছেন নিহতের পরিবার ও এলাকাবাসী।

ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের ভাওরখোলা বাসস্টান্ডে এ মানবন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে। মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন কুমিল্লা উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক নাসিরুদ্দিন শিশির, মেঘনা উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সফিকুল আালম,সাধারণ সম্পাদক সাইফুল্লাহ মিয়া রতন শিকদার, লিটন আব্বাসী, সিরজাুল ইসলাম প্রমুখ।

এসময় বক্তারা বলেন, ভাওর খোলা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ফারুক আব্বাসী তার আধিপত্য বিস্তারের জন্য তার প্রতিপক্ষ সিরাজুলের বাড়িতে পরিকল্পিতভাবে হামলা চালিয়ে চাপাতি দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করে নাজমা বেগমকে।

এই হত্যাকাণ্ডে জড়িত সব আসামিকে দ্রুত গ্রেফতার করার দাবি জানান তারা। বক্তারা আরও বলেন, ফারুক আব্বাসী ইতিপূর্বে সংগঠিত কয়েকটি হত্যাকাণ্ডের মূল আসামি ও দুনীতিগ্রস্ত একজন ইউপি চেয়ারম্যান।

উল্লেখ্য, গত ১৯ ফেব্রুয়ারি শুক্রবার সন্ধ্যায় উপজেলার ভাওরখোলা গ্রামে সিরাজুলের বাড়িতে হামলা চালিয়ে তার ভাবী নাজমা বেগমকে কুপিয়ে হত্যা করে সন্ত্রাসীরা।

এ ঘটনায় সিরাজুল ইসলাম বাদি হয়ে ফারুক আব্বাসীসহ ২৩ জনকে আসামি করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।পাশাপাশি ফারুক আব্বাসীর বাড়ি থেকে রামদা, বল্লম, চাপাতি, জুইতাসহ বিপুল পরিমান দেশীয় অস্ত্র উদ্ধারের ঘটনায় মেঘনা থানা পুলিশ বাদি হয়ে আরেকটি মামলা দয়ের করেছে।

মানববন্ধনে মেঘনা উপজেলা মানবাধিকার কমিশনের সভাপতি মাহবুব উল্লাহ শিকদার, উপদেষ্টা আব্দুল খালেক মাস্টার, সাধারণ সম্পাদক মো. মিজানুর রহমানসহ অন্য কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

মেঘনায় গৃহবধূ নাজমা হত্যার বিচার দাবিতে মানববন্ধন

 মেঘনা (কুমিল্লা) প্রতিনিধি 
২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ০৩:১৮ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

কুমিল্লার মেঘনা উপজেলার ভাওরখোলা এলকায় নাজমা নামে এক গৃহবধূকে কুপিয়ে হত্যাকারীদের বিচার চেয়ে মানববন্ধন করেছেন নিহতের পরিবার ও এলাকাবাসী।

ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের ভাওরখোলা বাসস্টান্ডে এ মানবন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে। মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন কুমিল্লা উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক নাসিরুদ্দিন শিশির, মেঘনা উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সফিকুল আালম,সাধারণ সম্পাদক সাইফুল্লাহ মিয়া রতন শিকদার, লিটন আব্বাসী, সিরজাুল ইসলাম প্রমুখ।

এসময় বক্তারা বলেন, ভাওর খোলা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ফারুক আব্বাসী তার আধিপত্য বিস্তারের জন্য তার প্রতিপক্ষ সিরাজুলের বাড়িতে পরিকল্পিতভাবে হামলা চালিয়ে চাপাতি দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করে নাজমা বেগমকে।

এই হত্যাকাণ্ডে জড়িত সব আসামিকে দ্রুত গ্রেফতার করার দাবি জানান তারা। বক্তারা আরও বলেন, ফারুক আব্বাসী ইতিপূর্বে সংগঠিত কয়েকটি হত্যাকাণ্ডের মূল আসামি ও দুনীতিগ্রস্ত একজন ইউপি চেয়ারম্যান।

উল্লেখ্য, গত ১৯ ফেব্রুয়ারি শুক্রবার সন্ধ্যায় উপজেলার ভাওরখোলা গ্রামে সিরাজুলের বাড়িতে হামলা চালিয়ে তার ভাবী নাজমা বেগমকে কুপিয়ে হত্যা করে সন্ত্রাসীরা।

এ ঘটনায় সিরাজুল ইসলাম বাদি হয়ে ফারুক আব্বাসীসহ ২৩ জনকে আসামি করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।পাশাপাশি ফারুক আব্বাসীর বাড়ি থেকে রামদা, বল্লম, চাপাতি, জুইতাসহ বিপুল পরিমান দেশীয় অস্ত্র উদ্ধারের ঘটনায় মেঘনা থানা পুলিশ বাদি হয়ে আরেকটি মামলা দয়ের করেছে।

মানববন্ধনে মেঘনা উপজেলা মানবাধিকার কমিশনের সভাপতি মাহবুব উল্লাহ শিকদার, উপদেষ্টা আব্দুল খালেক মাস্টার, সাধারণ সম্পাদক মো. মিজানুর রহমানসহ অন্য কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন