বীর মুক্তিযোদ্ধার তিন শতাধিক লেবু গাছ কেটে ফেলল তারা
jugantor
বীর মুক্তিযোদ্ধার তিন শতাধিক লেবু গাছ কেটে ফেলল তারা

  কালকিনি (মাদারীপুর) প্রতিনিধি  

২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ১৯:৩৫:৩২  |  অনলাইন সংস্করণ

মাদারীপুরের কালকিনিতে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে মো. আলমগীর কাজী নামে এক প্রতিবন্ধী বীর মুক্তিযোদ্ধার প্রায় তিন শতাধিক ফলন্ত লেবু গাছ রাতের আঁধারে কেটে ফেলার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

কাটার প্রতিবাদে ও দোষীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে মঙ্গলবার দুপুরে উপজেলা রিপোর্টার্স ইউনিটি কার্যালয়ে এক সাংবাদিক সম্মেলন করেছেন ওই ভুক্তভোগী বীর মুক্তিযোদ্ধা।

সাংবাদিক সম্মেলনে লিখিত অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার শিকারমঙ্গল এলাকার ভবানীপুর গ্রামের প্রতিবন্ধী বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. আলমগীর কাজী নিজ উদ্যোগে তার বাড়ির পাশের জমিতে একটি লেবুর বাগান করেন। ওই বাগানে তিনি প্রায় তিনবছর আগে চার শতাধিক লেবুর চারা রোপণ করেন। সম্প্রতি পূর্ব শত্রুতার জেরে ধরে বীর মুক্তিযোদ্ধা আলমগীর কাজীর বাগান থেকে একই এলাকার আফছের কাজীর নেতৃত্বে মাসুম কাজী, রানা কাজী ও মফছের খানসহ বেশ কয়েকজন মিলে রাতের আধারে তিন শতাধিক ফলন্ত লেবু গাছ কেটে ফেলে দেয়। এতে করে বীর মুক্তিযোদ্ধা আলমগীর কাজীর প্রায় ৫ লাখ টাকার ক্ষতি সাধন হয়েছে বলে অভিযোগে জানা যায়।

ক্ষতিগ্রস্ত বীর মুক্তিযোদ্ধা আলমগীর কাজী সাংবাদিক সম্মেলনে কান্নাজরিত কণ্ঠে বলেন, আমি একজন অসহায় মুক্তিযোদ্ধা, আমি শারীরিকভাবে খুবেই অসুস্থ। আমার একটি হাত নেই। আমি নিজে অনেক কষ্ট করে আমার বাড়ির পাশের জমিতে ছোট ছেলের সহযোগিতা নিয়ে লেবুর বাগান করে ছিলাম। লেবু বিক্রি করে পরিবার নিয়ে সংসার ভালোই চলছিল আমার। কিন্তু আফছের কাজীসহ ২০/২৫ জন মিলে আমার লাগানো গাছগুলো রাতে আঁধারে কেটে ফেলেছে। তারা সবাই এলাকায় জামায়াত-বিএনপির রাজনীতি করে। এছাড়াও এলাকায় তারা সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড করে আসছে। তাদের বিরুদ্ধে থানায় মামলা করার প্রস্তুতি নিয়েছি। আমি তাদের দৃষ্টান্তমূলক বিচার চাই।

অভিযুক্ত আফছের কাজী বলেন, লেবু গাছ মুক্তিযোদ্ধা আলমগীর লাগিয়েছে এটা সত্য, তবে জায়গা আমার বিধায় আমি গাছ কেটেছি।

এ ব্যাপারে কালকিনি থানার ওসি মো. নাছিরউদ্দিন মৃধা বলেন, এ বিষয় থানায় লিখিত অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

বীর মুক্তিযোদ্ধার তিন শতাধিক লেবু গাছ কেটে ফেলল তারা

 কালকিনি (মাদারীপুর) প্রতিনিধি 
২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ০৭:৩৫ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

মাদারীপুরের কালকিনিতে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে মো. আলমগীর কাজী নামে এক প্রতিবন্ধী বীর মুক্তিযোদ্ধার প্রায় তিন শতাধিক ফলন্ত লেবু গাছ রাতের আঁধারে কেটে ফেলার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

কাটার প্রতিবাদে ও দোষীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে মঙ্গলবার দুপুরে উপজেলা রিপোর্টার্স ইউনিটি কার্যালয়ে এক সাংবাদিক সম্মেলন করেছেন ওই ভুক্তভোগী বীর মুক্তিযোদ্ধা।

সাংবাদিক সম্মেলনে লিখিত অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার শিকারমঙ্গল এলাকার ভবানীপুর গ্রামের প্রতিবন্ধী বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. আলমগীর কাজী নিজ উদ্যোগে তার বাড়ির পাশের জমিতে একটি লেবুর বাগান করেন। ওই বাগানে তিনি প্রায় তিনবছর আগে চার শতাধিক লেবুর চারা রোপণ করেন। সম্প্রতি পূর্ব শত্রুতার জেরে ধরে বীর মুক্তিযোদ্ধা আলমগীর কাজীর বাগান থেকে একই এলাকার আফছের কাজীর নেতৃত্বে মাসুম কাজী, রানা কাজী ও মফছের খানসহ বেশ কয়েকজন মিলে রাতের আধারে তিন শতাধিক ফলন্ত লেবু গাছ কেটে ফেলে দেয়। এতে করে বীর মুক্তিযোদ্ধা আলমগীর কাজীর প্রায় ৫ লাখ টাকার ক্ষতি সাধন হয়েছে বলে অভিযোগে জানা যায়।

ক্ষতিগ্রস্ত বীর মুক্তিযোদ্ধা আলমগীর কাজী সাংবাদিক সম্মেলনে কান্নাজরিত কণ্ঠে বলেন, আমি একজন অসহায় মুক্তিযোদ্ধা, আমি শারীরিকভাবে খুবেই অসুস্থ। আমার একটি হাত নেই। আমি নিজে অনেক কষ্ট করে আমার বাড়ির পাশের জমিতে ছোট ছেলের সহযোগিতা নিয়ে লেবুর বাগান করে ছিলাম। লেবু বিক্রি করে পরিবার নিয়ে সংসার ভালোই চলছিল আমার। কিন্তু আফছের কাজীসহ ২০/২৫ জন মিলে আমার লাগানো গাছগুলো রাতে আঁধারে কেটে ফেলেছে। তারা সবাই এলাকায় জামায়াত-বিএনপির রাজনীতি করে। এছাড়াও এলাকায় তারা সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড করে আসছে। তাদের বিরুদ্ধে থানায় মামলা করার প্রস্তুতি নিয়েছি। আমি তাদের দৃষ্টান্তমূলক বিচার চাই।

অভিযুক্ত আফছের কাজী বলেন, লেবু গাছ মুক্তিযোদ্ধা আলমগীর লাগিয়েছে এটা সত্য, তবে জায়গা আমার বিধায় আমি গাছ কেটেছি।

এ ব্যাপারে কালকিনি থানার ওসি মো. নাছিরউদ্দিন মৃধা বলেন, এ বিষয় থানায় লিখিত অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন