ধারের টাকায় করা ভ্যানচালকের লেবুর বাগান এক রাতেই শেষ
jugantor
ধারের টাকায় করা ভ্যানচালকের লেবুর বাগান এক রাতেই শেষ

  বড়াইগ্রাম (নাটোর) প্রতিনিধি  

২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ১৯:৫৬:৩১  |  অনলাইন সংস্করণ

নাটোরের বড়াইগ্রামে আব্বাস আলী (৩৮) নামে এক দরিদ্র ভ্যানচালক ধার দেনা করে একটি লেবু বাগান করেছিলেন। এক রাতেই বাগানের ৩৯টি গাছ কেটে ফেলেছে দুর্বৃত্তরা। সোমবার রাতের কোনো সময় এ ঘটনা ঘটে।

আব্বাস আলী উপজেলার ভরতপুর গ্রামের রায়হান আলীর ছেলে।

বড়াইগ্রাম পৌরসভার ৯নং ওয়ার্ডের নবনির্বাচিত কাউন্সিলর ওয়াজেদ আলী জানান, প্রায় বছর খানেক আগে আব্বাস আলী তার বাড়ির পাশের ১৬ শতাংশ জমিতে লেবুর বাগান করেন। বর্তমানে গাছগুলো লেবু ধরা শুরু করেছে। কিন্তু সোমবার রাতে শত্রুতা:বশত তার বাগানের ৮২টি লেবুর গাছের মধ্যে ৩৯টি কে বা কারা কেটে ফেলেছে। এতে তিনি আর্থিকভাবে চরম ক্ষতির শিকার হয়েছেন।

ক্ষতিগ্রস্ত ভ্যানচালক আব্বাস আলী আবেগজড়িত কণ্ঠে জানান, ছেলেমেয়ে নিয়ে একটু ভালোভাবে চলার আশায় ধারকর্জ করে বাগানটি করেছিলাম। সবেমাত্র কিছু গাছে লেবু ধরতে শুরু করেছে। কার কী ক্ষতি করেছিলাম যে আমাকে এভাবে পথে বসিয়ে দিলো।

এ ব্যাপারে বড়াইগ্রাম থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আব্দুর রহিম জানান, এ ব্যাপারে কোনো লিখিত অভিযোগ পাইনি। অভিযোগ পেলে তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

ধারের টাকায় করা ভ্যানচালকের লেবুর বাগান এক রাতেই শেষ

 বড়াইগ্রাম (নাটোর) প্রতিনিধি 
২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ০৭:৫৬ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

নাটোরের বড়াইগ্রামে আব্বাস আলী (৩৮) নামে এক দরিদ্র ভ্যানচালক ধার দেনা করে একটি লেবু বাগান করেছিলেন। এক রাতেই বাগানের ৩৯টি গাছ কেটে ফেলেছে দুর্বৃত্তরা। সোমবার রাতের কোনো সময় এ ঘটনা ঘটে।

আব্বাস আলী উপজেলার ভরতপুর গ্রামের রায়হান আলীর ছেলে।

বড়াইগ্রাম পৌরসভার ৯নং ওয়ার্ডের নবনির্বাচিত কাউন্সিলর ওয়াজেদ আলী জানান, প্রায় বছর খানেক আগে আব্বাস আলী তার বাড়ির পাশের ১৬ শতাংশ জমিতে লেবুর বাগান করেন। বর্তমানে গাছগুলো লেবু ধরা শুরু করেছে। কিন্তু সোমবার রাতে শত্রুতা:বশত তার বাগানের ৮২টি লেবুর গাছের মধ্যে ৩৯টি কে বা কারা কেটে ফেলেছে। এতে তিনি আর্থিকভাবে চরম ক্ষতির শিকার হয়েছেন।

ক্ষতিগ্রস্ত ভ্যানচালক আব্বাস আলী আবেগজড়িত কণ্ঠে জানান, ছেলেমেয়ে নিয়ে একটু ভালোভাবে চলার আশায় ধারকর্জ করে বাগানটি করেছিলাম। সবেমাত্র কিছু গাছে লেবু ধরতে শুরু করেছে। কার কী ক্ষতি করেছিলাম যে আমাকে এভাবে পথে বসিয়ে দিলো।

এ ব্যাপারে বড়াইগ্রাম থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আব্দুর রহিম জানান, এ ব্যাপারে কোনো লিখিত অভিযোগ পাইনি। অভিযোগ পেলে তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন