পতাকা উত্তোলনের সময় মেয়রসহ ৩ আ'লীগ নেতার মোবাইল চুরি
jugantor
পতাকা উত্তোলনের সময় মেয়রসহ ৩ আ'লীগ নেতার মোবাইল চুরি

  চাটমোহর (পাবনা) প্রতিনিধি  

২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ২২:১২:১৩  |  অনলাইন সংস্করণ

পাবনার চাটমোহর উপজেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলনে এসে পতাকা উত্তোলনের সময় মোবাইল খোয়ালেন পৌর মেয়রসহ তিন আওয়ামী লীগ নেতা।

মঙ্গলবার সকাল ১১টার দিকে বালুচর মাঠে এ ঘটনা ঘটে। ভুক্তভোগী তিনজন হলেন- উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি প্রার্থী ও নব নির্বাচিত পৌর মেয়র অ্যাডভোকেট সাখাওয়াত হোসেন সাখো, ছাইকোলা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও সাধারণ সম্পাদক প্রার্থী নজরুল ইসলাম এবং উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক (বর্তমানে কমিটি বিলুপ্ত) বজলুল করিম খাকছার।

জানা গেছে, দীর্ঘ দেড় যুগ পর চাটমোহর উপজেলা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনের দিন ছিল মঙ্গলবার। সম্মেলন উপলক্ষে সকাল থেকেই নেতাকর্মীরা দলে দলে উপস্থিত হয়েছিলেন বালুচর মাঠে। এ সময় সম্মেলনে যোগ দেন সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী অ্যাডভোকেট শামসুল হক টুকু, সংসদ সদস্য আহমেদ ফিরোজ কবির, সংরক্ষিত নারী সংসদ সদস্য নাদিরা ইয়াসমিন জলি, কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগ নেতা সৈয়দ আবদুল আওয়াল শামীম, নুরুল ইসলাম ঠান্ডু, কেন্দ্রীয় নেত্রী মেরিনা জাহান কবিতা এবং জেলা-উপজেলা আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ।

সম্মেলন শুরুর আগে জাতীয় সংগীত গাওয়া এবং জাতীয় পতাকা উত্তোলন শেষে ওই তিন নেতা দেখেন পকেটে তাদের ব্যবহৃত মোবাইল ফোন নেই। বিষয়টি জানাজানি হলে মুহূর্তের মধ্যেই সম্মেলন স্থলে চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়। অনেক খোঁজাখুঁজি করেও ওই তিন মোবাইল পাওয়া যায়নি।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বজলুল করিম খাকছার যুগান্তরকে বলেন, সম্মেলনস্থলে এমন ঘটনা ঘটবে কল্পনাও করতে পারিনি। বিকাল পর্যন্ত মোবাইল খুঁজে পাওয়া যায় নি। এছাড়া হারানো মোবাইলের সংযোগ বন্ধ ছিল বলে জানান তিনি।

পতাকা উত্তোলনের সময় মেয়রসহ ৩ আ'লীগ নেতার মোবাইল চুরি

 চাটমোহর (পাবনা) প্রতিনিধি 
২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ১০:১২ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

পাবনার চাটমোহর উপজেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলনে এসে পতাকা উত্তোলনের সময় মোবাইল খোয়ালেন পৌর মেয়রসহ তিন আওয়ামী লীগ নেতা। 

মঙ্গলবার সকাল ১১টার দিকে বালুচর মাঠে এ ঘটনা ঘটে। ভুক্তভোগী তিনজন হলেন- উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি প্রার্থী ও নব নির্বাচিত পৌর মেয়র অ্যাডভোকেট সাখাওয়াত হোসেন সাখো, ছাইকোলা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও সাধারণ সম্পাদক প্রার্থী নজরুল ইসলাম এবং উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক (বর্তমানে কমিটি বিলুপ্ত) বজলুল করিম খাকছার।

জানা গেছে, দীর্ঘ দেড় যুগ পর চাটমোহর উপজেলা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনের দিন ছিল মঙ্গলবার। সম্মেলন উপলক্ষে সকাল থেকেই নেতাকর্মীরা দলে দলে উপস্থিত হয়েছিলেন বালুচর মাঠে। এ সময় সম্মেলনে যোগ দেন সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী অ্যাডভোকেট শামসুল হক টুকু, সংসদ সদস্য আহমেদ ফিরোজ কবির, সংরক্ষিত নারী সংসদ সদস্য নাদিরা ইয়াসমিন জলি, কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগ নেতা সৈয়দ আবদুল আওয়াল শামীম, নুরুল ইসলাম ঠান্ডু, কেন্দ্রীয় নেত্রী মেরিনা জাহান কবিতা এবং জেলা-উপজেলা আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ।

সম্মেলন শুরুর আগে জাতীয় সংগীত গাওয়া এবং জাতীয় পতাকা উত্তোলন শেষে ওই তিন নেতা দেখেন পকেটে তাদের ব্যবহৃত মোবাইল ফোন নেই। বিষয়টি জানাজানি হলে মুহূর্তের মধ্যেই সম্মেলন স্থলে চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়। অনেক খোঁজাখুঁজি করেও ওই তিন মোবাইল পাওয়া যায়নি।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বজলুল করিম খাকছার যুগান্তরকে বলেন, সম্মেলনস্থলে এমন ঘটনা ঘটবে কল্পনাও করতে পারিনি। বিকাল পর্যন্ত মোবাইল খুঁজে পাওয়া যায় নি। এছাড়া হারানো মোবাইলের সংযোগ বন্ধ ছিল বলে জানান তিনি।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
আরও খবর
 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন