টেকনাফে ইউপি সদস্যের নেতৃত্বে হামলায় ১২ খেলোয়াড় আহত
jugantor
টেকনাফে ইউপি সদস্যের নেতৃত্বে হামলায় ১২ খেলোয়াড় আহত

  উখিয়া (কক্সবাজার) প্রতিনিধি  

২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ০০:৩০:৫২  |  অনলাইন সংস্করণ

টেকনাফে ইউপি সদস্যের নেতৃত্বে হামলায় ১২ খেলোয়াড় আহত

টেকনাফে কানজরপাড়ায় উখিয়া থাইংখালীর ইউপি সদস্যের বিরুদ্ধে স্থানীয় খেলোয়াড়দের গাড়ী ভাংচুরের পর অপহরণ করে তাদের মারধরের অভিযোগ এসেছে ।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, খেলা শেষে চলে যাওয়ার সময় থাইংখালী খেলোয়াড় সমিতির সদস্যদের উপর দলবল নিয়ে হামলা করেন স্থানীয় মেম্বার আবদুল গাফফার।

মঙ্গলবার বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় খেলোয়াড়সহ ১২ জন আহত হয়েছেন। পরবর্তীতে র‌্যাবের সহযোগিতায় আহতদের উদ্ধার করে উখিয়া হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

এ ঘটনার পর এলাকায় উত্তেজনা ছড়িয়েছে। চারিদিনে থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে।

স্থানীয় প্রত্যক্ষদর্শী ও উদ্ধার হওয়া খেলোয়াড় সমিতির সদস্যদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে,হোয়াইক্যংয়ের কানজরপাড়া থেকে ফুটবল খেলা শেষে খেলোয়াড়রা উখিয়ার থাইংখালীতে চলে আসার পথে হোয়াইক্যং এলাকায় পৌঁছলে ৫নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য আবদুল গাফফার মেম্বারের নেতৃত্বে চৌকিদার নুরুল কবির পুতিয়া, মো. আমিনসহ ১০-১৫ জন তাদের গাড়ী গতিরোধ করে অপহরণপূর্বক অজ্ঞাত স্থানে নিয়ে। সেখানে তাদের মারধরে ১২জন গুরুতর আহত হয়।

আহতদের মধ্যে যাদের নাম পাওয়া গেছে- থাইংখালী খেলোয়াড় সমিতির সদস্য মো: আবছার(২২), নাজিম উদ্দিন(২৫), সোলতান আহমদ(৩৫), মো: জাবেদ(২৮), নুরুল হক আব্বু(২৮), নুর মোহাম্মদ(২০), ফরিদ আলম (২০) শাহিন আলম (১৫)। এছাড়াও আরো ৪জন রয়েছেন। তাদেরকে বর্তমানে উখিয়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে পালংখালী ইউপি চেয়ারম্যান এম গফুর উদ্দিন চৌধুরী জানান, হোয়াইক্যং ইউনিয়নের ৫নং ওয়ার্ডের মেম্বার আবদুল গাফফার চিহ্নিত ইয়াবা ব্যবসায়ী। তার নেতৃত্বে চৌকিদার পুতিয়া দলবল নিয়ে খেলোয়াড়দের অপহরণ করে। পরে আমি খবর পেয়ে হোয়াইক্যংয়ের র‌্যাব-৩৯কে ঘটনা অবহিত করি। পরে দীর্ঘ ৩ ঘন্টা পর তাদের সন্ত্রাসীদের কবল থেকে উদ্ধার করে মুমূর্ষু অবস্থায় উখিয়া হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এ ঘটনার মামলার প্রস্তুতি চলছে।

তিনি আরো বলেন, সন্ত্রাসীরা এসময় তিনটি সিএনজি ভাংচুর করে এবং ২টি মোটর সাইকেলসহ খেলোয়াড়দের নগদ টাকা ও মোবাইলগুলো ছিনিয়ে নিয়ে যায়।

এ বিষয়ে র‌্যাবের হোয়াইক্যংয়ের ইনচার্জ মেজর আরেফিন জানান, কানজরপাড়া ফুটবল টিম হেরে যাওয়ার পর থাইংখালী খেলোয়াড়দের উপর হামলা করে। এতে বেশ কয়েকজন খেলোয়াড় আহত হয়। পরে আমরা খবর পেয়ে তাদেরকে উদ্ধার করে আহতদের হাসপাতালে প্রেরণ করি। বর্তমানে পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে।

টেকনাফে ইউপি সদস্যের নেতৃত্বে হামলায় ১২ খেলোয়াড় আহত

 উখিয়া (কক্সবাজার) প্রতিনিধি 
২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ১২:৩০ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ
টেকনাফে ইউপি সদস্যের নেতৃত্বে হামলায় ১২ খেলোয়াড় আহত
ছবি: যুগান্তর

টেকনাফে কানজরপাড়ায় উখিয়া থাইংখালীর ইউপি সদস্যের বিরুদ্ধে স্থানীয় খেলোয়াড়দের গাড়ী ভাংচুরের পর অপহরণ করে তাদের মারধরের অভিযোগ এসেছে । 

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, খেলা শেষে চলে যাওয়ার সময় থাইংখালী খেলোয়াড় সমিতির সদস্যদের উপর দলবল নিয়ে হামলা করেন স্থানীয় মেম্বার আবদুল গাফফার।

মঙ্গলবার বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় খেলোয়াড়সহ ১২ জন আহত হয়েছেন। পরবর্তীতে র‌্যাবের সহযোগিতায় আহতদের  উদ্ধার করে উখিয়া হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। 

এ ঘটনার পর এলাকায় উত্তেজনা ছড়িয়েছে। চারিদিনে থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে।

স্থানীয় প্রত্যক্ষদর্শী ও উদ্ধার হওয়া খেলোয়াড় সমিতির সদস্যদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে,হোয়াইক্যংয়ের কানজরপাড়া থেকে ফুটবল খেলা শেষে খেলোয়াড়রা উখিয়ার থাইংখালীতে চলে আসার পথে হোয়াইক্যং এলাকায় পৌঁছলে ৫নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য আবদুল গাফফার মেম্বারের নেতৃত্বে চৌকিদার নুরুল কবির পুতিয়া, মো. আমিনসহ ১০-১৫ জন তাদের গাড়ী গতিরোধ করে অপহরণপূর্বক অজ্ঞাত স্থানে নিয়ে। সেখানে তাদের মারধরে ১২জন গুরুতর আহত হয়।

আহতদের মধ্যে যাদের নাম পাওয়া গেছে-  থাইংখালী খেলোয়াড় সমিতির সদস্য মো: আবছার(২২), নাজিম উদ্দিন(২৫), সোলতান আহমদ(৩৫), মো: জাবেদ(২৮), নুরুল হক আব্বু(২৮), নুর মোহাম্মদ(২০), ফরিদ আলম (২০) শাহিন আলম (১৫)। এছাড়াও আরো ৪জন রয়েছেন। তাদেরকে বর্তমানে উখিয়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে পালংখালী ইউপি চেয়ারম্যান এম গফুর উদ্দিন চৌধুরী জানান, হোয়াইক্যং ইউনিয়নের ৫নং ওয়ার্ডের মেম্বার আবদুল গাফফার চিহ্নিত ইয়াবা ব্যবসায়ী। তার নেতৃত্বে চৌকিদার পুতিয়া দলবল নিয়ে খেলোয়াড়দের অপহরণ করে। পরে আমি খবর পেয়ে হোয়াইক্যংয়ের র‌্যাব-৩৯কে ঘটনা অবহিত করি। পরে দীর্ঘ ৩ ঘন্টা পর তাদের সন্ত্রাসীদের কবল থেকে উদ্ধার করে মুমূর্ষু অবস্থায় উখিয়া হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এ ঘটনার মামলার প্রস্তুতি চলছে।

তিনি আরো বলেন, সন্ত্রাসীরা এসময় তিনটি সিএনজি ভাংচুর করে এবং ২টি মোটর সাইকেলসহ খেলোয়াড়দের নগদ টাকা ও মোবাইলগুলো ছিনিয়ে নিয়ে যায়।

এ বিষয়ে র‌্যাবের হোয়াইক্যংয়ের ইনচার্জ মেজর আরেফিন জানান, কানজরপাড়া ফুটবল টিম হেরে যাওয়ার পর থাইংখালী খেলোয়াড়দের উপর হামলা করে। এতে বেশ কয়েকজন খেলোয়াড় আহত হয়। পরে আমরা খবর পেয়ে তাদেরকে উদ্ধার করে আহতদের হাসপাতালে প্রেরণ করি। বর্তমানে পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে।

 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন