মামলা তুলে না নেওয়ায় ঘরে ঢুকে যুবককে গুলি
jugantor
মামলা তুলে না নেওয়ায় ঘরে ঢুকে যুবককে গুলি

  নোয়াখালী ও কোম্পানীগঞ্জ প্রতিনিধি  

২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ০৮:৫২:৩৬  |  অনলাইন সংস্করণ

মামলা তুলে না নেওয়ায় ঘরে ঢুকে যুবককে গুলি

নোয়াখালীর বেগমগঞ্জ উপজেলায় মামলা তুলে না নেওয়ায় বসতঘরে ঢুকে এক যুবককে হত্যাচেষ্টার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

মঙ্গলবার রাত ৮টার দিকে উপজেলার গোপালপুর ইউনিয়নের দেবকালা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

গুলিবিদ্ধ যুবকের নাম মো. ওমর ফারুক (৩০), তিনি একই উপজেলার দেবকালা গ্রামের খুরশিদ আলমের ছেলে।

আহত ফারুক অভিযোগ করে বলেন, উপজেলার মোল্লাপুর গ্রামের জাফর উল্যার ছেলে সন্ত্রাসী কালা বাবুর নামে ফারুক গত বছর একটি মামলা করে। পরে সন্ত্রাসী কালা বাবু বিভিন্ন সময় ওই মামলা তুলে নেওয়ার জন্য ফারুককে হুমকি-ধমকি ও চাপ প্রয়োগ করে আসছিল।

এর সূত্র ধরে মঙ্গলবার রাত ৯টার দিকে কালা বাবু আমাদের ঘরে এসে আমার বুকের বাম পাশে অস্ত্র ঠেকিয়ে গুলি করে চলে যায়। পরে পরিবারের লোকজন তাকে উদ্ধার করে জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করেন।


বর্তমানে ফারুক হাসপাতালের সার্জারি ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন। রোগীর অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে জানিয়েছেন তার স্বজনরা।

হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক নাহিদ নূর তুষার জানান, ওমর ফারুক নামে এক যুবকের বাম পাঁজরে শটগানের গুলি লেগেছে। প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে তাকে হাসপাতালের সার্জারি ওয়ার্ডে ভর্তি করা হয়েছে।

বেগমগঞ্জ থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) রুহুল আমিন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, খবর পেয়ে বেগমগঞ্জ থানা পুলিশের একটি দল ঘটনাস্থলে ও একটি দল নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে রয়েছে। পরে এ বিষয়ে বিস্তারিত জানানো যাবে। পুলিশ বিষয়টি খতিয়ে দেখছে।

বেগমগঞ্জ মডেল থানার ওসি মুহাম্মদ কামরুজ্জামান সিকদার বলেন, আগের একটি মামলা তুলে না নেওয়ায় আসামি সন্ত্রাসী কালা বাবু ওমর ফারুককে গুলি করেছে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। ঘটনায় প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

মামলা তুলে না নেওয়ায় ঘরে ঢুকে যুবককে গুলি

 নোয়াখালী ও কোম্পানীগঞ্জ প্রতিনিধি 
২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ০৮:৫২ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ
মামলা তুলে না নেওয়ায় ঘরে ঢুকে যুবককে গুলি
ফাইল ছবি

নোয়াখালীর বেগমগঞ্জ উপজেলায় মামলা তুলে না নেওয়ায় বসতঘরে ঢুকে এক যুবককে হত্যাচেষ্টার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

মঙ্গলবার রাত ৮টার দিকে উপজেলার গোপালপুর ইউনিয়নের দেবকালা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

গুলিবিদ্ধ যুবকের নাম মো. ওমর ফারুক (৩০), তিনি একই উপজেলার দেবকালা গ্রামের খুরশিদ আলমের ছেলে।

আহত ফারুক অভিযোগ করে বলেন, উপজেলার মোল্লাপুর গ্রামের জাফর উল্যার ছেলে সন্ত্রাসী কালা বাবুর নামে ফারুক গত বছর একটি মামলা করে। পরে সন্ত্রাসী কালা বাবু বিভিন্ন সময় ওই মামলা তুলে নেওয়ার জন্য ফারুককে হুমকি-ধমকি ও চাপ প্রয়োগ করে আসছিল।

এর সূত্র ধরে মঙ্গলবার রাত ৯টার দিকে কালা বাবু আমাদের ঘরে এসে আমার বুকের বাম পাশে অস্ত্র ঠেকিয়ে গুলি করে চলে যায়। পরে পরিবারের লোকজন তাকে উদ্ধার করে জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করেন।


বর্তমানে ফারুক হাসপাতালের সার্জারি ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন। রোগীর অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে জানিয়েছেন তার স্বজনরা।

হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক নাহিদ নূর তুষার জানান, ওমর ফারুক নামে এক যুবকের বাম পাঁজরে শটগানের গুলি লেগেছে। প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে তাকে হাসপাতালের সার্জারি ওয়ার্ডে ভর্তি করা হয়েছে।

বেগমগঞ্জ থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) রুহুল আমিন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, খবর পেয়ে বেগমগঞ্জ থানা পুলিশের একটি দল ঘটনাস্থলে ও একটি দল নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে রয়েছে। পরে এ বিষয়ে বিস্তারিত জানানো যাবে। পুলিশ বিষয়টি খতিয়ে দেখছে।

বেগমগঞ্জ মডেল থানার ওসি মুহাম্মদ কামরুজ্জামান সিকদার বলেন, আগের একটি মামলা তুলে না নেওয়ায় আসামি সন্ত্রাসী কালা বাবু ওমর ফারুককে গুলি করেছে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। ঘটনায় প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন