ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় সেপটিক ট্যাংকে বিস্ফোরণে ৫ জন আহত
jugantor
ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় সেপটিক ট্যাংকে বিস্ফোরণে ৫ জন আহত

  যুগান্তর প্রতিবেদন, ব্রাহ্মণবাড়িয়া  

২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ০১:০০:৫৮  |  অনলাইন সংস্করণ

ব্রাহ্মণবাড়িয়া সেপটিক ট্যাংকে বিস্ফোরণে ৫ জন আহত হয়েছে। শনিবার রাত ৯টার দিকে জেলা শহরের টিএ রোডে ভিআইপি বেকারি এন্ড কনফেকশনারি নামের একটি দোকানে এই দুর্ঘটনা ঘটে। তাৎক্ষণিকভাবে আহতদের নাম জানা যায়নি। ঘটনার খবর পেয়ে ব্রাহ্মণবাড়িয়া ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা উদ্ধার কাজ শুরু করেছে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, রাতে আকস্মিক বিস্ফোরণে স্থানীয়রা দৌড়াদৌড়ি শুরু করে। পরে দেখা যায়, ভিআইপি বেকারি থেকে ধোয়া বের হচ্ছে। প্রাথমিক অবস্থায় আশপাশের লোকজন উদ্ধার কাজ শুরু করে। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের লোকজন আসে।

ঘটনাস্থলে আসা ব্রাহ্মণবাড়িয়া ফায়ার সার্ভিসের সিনিয়র স্টেশন অফিসার আব্দুস ছামাদ বলেন, ধারণা করা হচ্ছে দোকানের নিচে একটি পরিত্যক্ত সেপটিক ট্যাংকের গ্যাস থেকে এই বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে। আমরা উদ্ধার কাজ শুরু করেছি। আহতদের জেলা সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। উদ্ধার কাজ শেষ না হওয়া পর্যন্ত হতাহতের সংখ্যা ও ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ সঠিকভাবে এখনই বলা যাচ্ছে না।

এই রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা উদ্ধার কাজ চালাচ্ছিল।

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় সেপটিক ট্যাংকে বিস্ফোরণে ৫ জন আহত

 যুগান্তর প্রতিবেদন, ব্রাহ্মণবাড়িয়া 
২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ০১:০০ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

ব্রাহ্মণবাড়িয়া সেপটিক ট্যাংকে বিস্ফোরণে ৫ জন আহত হয়েছে। শনিবার রাত ৯টার দিকে জেলা শহরের টিএ রোডে ভিআইপি বেকারি এন্ড কনফেকশনারি নামের একটি দোকানে এই দুর্ঘটনা ঘটে। তাৎক্ষণিকভাবে আহতদের নাম জানা যায়নি। ঘটনার খবর পেয়ে ব্রাহ্মণবাড়িয়া ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা উদ্ধার কাজ শুরু করেছে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, রাতে আকস্মিক বিস্ফোরণে স্থানীয়রা দৌড়াদৌড়ি শুরু করে। পরে দেখা যায়, ভিআইপি বেকারি থেকে ধোয়া বের হচ্ছে। প্রাথমিক অবস্থায় আশপাশের লোকজন উদ্ধার কাজ শুরু করে। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের লোকজন আসে। 

ঘটনাস্থলে আসা ব্রাহ্মণবাড়িয়া ফায়ার সার্ভিসের সিনিয়র স্টেশন অফিসার আব্দুস ছামাদ বলেন, ধারণা করা হচ্ছে দোকানের নিচে একটি পরিত্যক্ত সেপটিক ট্যাংকের গ্যাস থেকে এই বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে। আমরা উদ্ধার কাজ শুরু করেছি। আহতদের জেলা সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। উদ্ধার কাজ শেষ না হওয়া পর্যন্ত হতাহতের সংখ্যা ও ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ সঠিকভাবে এখনই বলা যাচ্ছে না। 

এই রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা উদ্ধার কাজ চালাচ্ছিল।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন