রাত থেকে ২ মাস ইলিশ ধরা নিষিদ্ধ
jugantor
রাত থেকে ২ মাস ইলিশ ধরা নিষিদ্ধ

  চাঁদপুর প্রতিনিধি  

২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ১১:০০:৫৪  |  অনলাইন সংস্করণ

ইলিশ

ইলিশ রক্ষায় চাঁদপুরের পদ্মা ও মেঘনায় আজ রোববার রাত ১২টা থেকে দুই মাস (মার্চ ও এপ্রিল) মাছ ধরা বন্ধ থাকবে।

শনিবার সকাল ১০টা থেকে বিকাল ৫টা পর্যন্ত হাইমচর উপজেলার নৌ সীমানায় কাটাখালী, হাইমচর, চরভৈরবী ও মেঘ নদীর পশ্চিমে ভাসমান মৎস্য আড়ৎ এবং জেলেপাড়ায় মাইকিং করে জেলেদের জাটকাসহ সব ধরনের মাছ আহরণ থেকে বিরত থাকার জন্য সতর্ক করে দেওয়া হয়।

অভয়াশ্রম ও জাটকা রক্ষা কার্যক্রম উপলক্ষ্যে জেলেদের জন্য ওই দুই মাস ভিজিএফের চাল বরাদ্দ দেওয়া হবে বলে জানানো হয়।

হাইমচর উপজেলা টাস্কফোর্সের উদ্যোগে প্রচারণা অভিযানে উপজেলা সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা মো. মিজানুর রহমান, কোস্টগার্ড হাইমচর ইউনিটের সিনিয়র পেটি অফিসার মো. লুৎফুর রহমান, নৌপুলিশ চরভৈরবী ফাঁড়ি ইনচার্জ আবদুল জলিল, কোস্টগার্ড ও নৌপুলিশের সদস্যরা অংশগ্রহণ করেন।

পরে উপজেলা টাস্কফোর্সের কর্মকর্তারা কাটাখালী মৎস্য আড়ৎ, হাইমচর মৎস্য আড়ৎ ও চরভৈরবী মৎস্য আড়ৎ এলাকায় মৎস্য ব্যবসায়ী ও জেলেদের উদ্দেশ্যে সচেতনতামূলক বক্তব্য রাখেন এবং লিফলেট বিতরণ করেন।

১ মার্চ থেকে আগামী ৩০ এপ্রিল পর্যন্ত দুই মাস মেঘনা নদীর অভয়াশ্রম এলাকায় জালসহ যে কোনো সরঞ্জাম দিয়ে জাটকা এবং সব ধরনের মাছ আহরণ নিষিদ্ধ থাকবে। সরকারি ঘোষণা অনুযায়ী, এ সময় কোনো মাছ ক্রয়-বিক্রয়, পরিবহন ও মজুদ সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ থাকবে।

চাঁদপুর জেলার মতলব উত্তর উপজেলার ষাটনল থেকে হাইমচর উপজেলার চরভৈরবী পর্যন্ত প্রায় ৯০ কিলোমিটার এলাকায় সরকার অভয়াশ্রম ঘোষণা করেছে। ইলিশ নিরাপদ আশ্রয় হিসেবে মার্চ-এপ্রিল দুই মাস এ এলাকায় বিচরণ করে।

রাত থেকে ২ মাস ইলিশ ধরা নিষিদ্ধ

 চাঁদপুর প্রতিনিধি 
২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ১১:০০ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ
ইলিশ
ফাইল ছবি

ইলিশ রক্ষায় চাঁদপুরের পদ্মা ও মেঘনায় আজ রোববার রাত ১২টা থেকে দুই মাস (মার্চ ও এপ্রিল) মাছ ধরা বন্ধ থাকবে।
 
শনিবার সকাল ১০টা থেকে বিকাল ৫টা পর্যন্ত হাইমচর উপজেলার নৌ সীমানায় কাটাখালী, হাইমচর, চরভৈরবী ও মেঘ নদীর পশ্চিমে ভাসমান মৎস্য আড়ৎ এবং জেলেপাড়ায় মাইকিং করে জেলেদের জাটকাসহ সব ধরনের মাছ আহরণ থেকে বিরত থাকার জন্য সতর্ক করে দেওয়া হয়।

অভয়াশ্রম ও জাটকা রক্ষা কার্যক্রম উপলক্ষ্যে জেলেদের জন্য ওই দুই মাস ভিজিএফের চাল বরাদ্দ দেওয়া হবে বলে জানানো হয়।

হাইমচর উপজেলা টাস্কফোর্সের উদ্যোগে প্রচারণা অভিযানে উপজেলা সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা মো. মিজানুর রহমান, কোস্টগার্ড হাইমচর ইউনিটের সিনিয়র পেটি অফিসার মো. লুৎফুর রহমান, নৌপুলিশ চরভৈরবী ফাঁড়ি ইনচার্জ আবদুল জলিল, কোস্টগার্ড ও নৌপুলিশের সদস্যরা অংশগ্রহণ করেন।

পরে উপজেলা টাস্কফোর্সের কর্মকর্তারা কাটাখালী মৎস্য আড়ৎ, হাইমচর মৎস্য আড়ৎ ও চরভৈরবী মৎস্য আড়ৎ এলাকায় মৎস্য ব্যবসায়ী ও জেলেদের উদ্দেশ্যে সচেতনতামূলক বক্তব্য রাখেন এবং লিফলেট বিতরণ করেন।

১ মার্চ থেকে আগামী ৩০ এপ্রিল পর্যন্ত দুই মাস মেঘনা নদীর অভয়াশ্রম এলাকায় জালসহ যে কোনো সরঞ্জাম দিয়ে জাটকা এবং সব ধরনের মাছ আহরণ নিষিদ্ধ থাকবে। সরকারি ঘোষণা অনুযায়ী, এ সময় কোনো মাছ ক্রয়-বিক্রয়, পরিবহন ও মজুদ সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ থাকবে।

চাঁদপুর জেলার মতলব উত্তর উপজেলার ষাটনল থেকে হাইমচর উপজেলার চরভৈরবী পর্যন্ত প্রায় ৯০ কিলোমিটার এলাকায় সরকার অভয়াশ্রম ঘোষণা করেছে। ইলিশ নিরাপদ আশ্রয় হিসেবে মার্চ-এপ্রিল দুই মাস এ এলাকায় বিচরণ করে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন