নিখোঁজের চারদিন পর ডোবায় মিলল যুবকের লাশ
jugantor
নিখোঁজের চারদিন পর ডোবায় মিলল যুবকের লাশ

  রাজশাহী ব্যুরো  

০১ মার্চ ২০২১, ১৭:৪১:৩০  |  অনলাইন সংস্করণ

নিখোঁজের চারদিন পর রাজশাহীর গোদাগাড়ীতে শমসের শেখ (২০) নামে এক রিকশাচালকের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। সোমবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে উপজেলার দেওপাড়া ইউনিয়নের পলাশবাড়ী গ্রামের একটি ডোবা থেকে লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য রাজশাহী মেডিকেল কলেজের (রামেক) মর্গে পাঠানো হয়।

নিহত শমসের শেখের বাড়ি রাজশাহী মহানগরীর কোর্ট বাজার এলাকায়। তিনি ওই এলাকার চাঁদ মিয়া শেখের ছেলে।

গোদাগাড়ী উপজেলার প্রেমতলী পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ মো. কামরুজ্জামান মিয়া এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, সকালে পলাশবাড়ী গ্রামের ওই ডোবার মধ্যে এক ব্যক্তির মরদেহ দেখতে পেয়ে স্থানীয়রা পুলিশকে খবর দেয়। পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশটি উদ্ধার করে। পরে তার পরিচয় শনাক্ত করা হয়। এ সময় জানা যায় তিনি পেশায় রিকশাচালক। গত ২৪ ফেব্রুয়ারি থেকে তিনি নিখোঁজ ছিলেন।

তার পরিবারের লোকজন পুলিশকে জানিয়েছেন, ২৪ ফেব্রুয়ারি রাতে রিকশা নিয়ে বাড়ি থেকে বের হয়ে তিনি আর ফেরেননি। বিভিন্ন এলাকায় খোঁজাখুঁজি করে না পেয়ে গত ২৫ ফেব্রুয়ারি রাতে রাজশাহী মহানগরীর কাশিয়াডাঙ্গা থানায় একটি অপহরণের মামলা দায়ের করেন।

কাশিয়াডাঙ্গা থানার ওসি এসএম মাসুদ পারভেজ জানান, লাশ দেখে অনুমান করা যাচ্ছে তিন-চার দিন আগেই তাকে ডোবার পানিতে ফেলা হয়েছে। গত ২৪ ফেব্রুয়ারি শমসের শেখ নিখোঁজ হওয়ার পরে ২৫ ফেব্রুয়ারি অপহরণ মামলা দায়ের করে তার পরিবার।

তিনি বলেন, এই মামলায় তিনজন আসামিকেও এরই মধ্যে গ্রেফতার করা হয়েছে। পরে তার ব্যাটারি চালিত অটোরিকশাটিও উদ্ধার করা হয়। বর্তমানে মামলাটি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। ওই অপহরণ মামলাটি এখন হত্যা মামলায় রূপ নেবে বলেও জানান কাশিয়াডাঙ্গা থানার এই পুলিশ কর্মকর্তা।

নিখোঁজের চারদিন পর ডোবায় মিলল যুবকের লাশ

 রাজশাহী ব্যুরো 
০১ মার্চ ২০২১, ০৫:৪১ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

নিখোঁজের চারদিন পর রাজশাহীর গোদাগাড়ীতে শমসের শেখ (২০) নামে এক রিকশাচালকের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। সোমবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে উপজেলার দেওপাড়া ইউনিয়নের পলাশবাড়ী গ্রামের একটি ডোবা থেকে লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য রাজশাহী মেডিকেল কলেজের (রামেক) মর্গে পাঠানো হয়।

নিহত শমসের শেখের বাড়ি রাজশাহী মহানগরীর কোর্ট বাজার এলাকায়। তিনি ওই এলাকার চাঁদ মিয়া শেখের ছেলে।

গোদাগাড়ী উপজেলার প্রেমতলী পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ মো. কামরুজ্জামান মিয়া এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, সকালে পলাশবাড়ী গ্রামের ওই ডোবার মধ্যে এক ব্যক্তির মরদেহ দেখতে পেয়ে স্থানীয়রা পুলিশকে খবর দেয়। পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশটি উদ্ধার করে। পরে তার পরিচয় শনাক্ত করা হয়। এ সময় জানা যায় তিনি পেশায় রিকশাচালক। গত ২৪ ফেব্রুয়ারি থেকে তিনি নিখোঁজ ছিলেন।

তার পরিবারের লোকজন পুলিশকে জানিয়েছেন, ২৪ ফেব্রুয়ারি রাতে রিকশা নিয়ে বাড়ি থেকে বের হয়ে তিনি আর ফেরেননি। বিভিন্ন এলাকায় খোঁজাখুঁজি করে না পেয়ে গত ২৫ ফেব্রুয়ারি রাতে রাজশাহী মহানগরীর কাশিয়াডাঙ্গা থানায় একটি অপহরণের মামলা দায়ের করেন।

কাশিয়াডাঙ্গা থানার ওসি এসএম মাসুদ পারভেজ জানান, লাশ দেখে অনুমান করা যাচ্ছে তিন-চার দিন আগেই তাকে ডোবার পানিতে ফেলা হয়েছে। গত ২৪ ফেব্রুয়ারি শমসের শেখ নিখোঁজ হওয়ার পরে ২৫ ফেব্রুয়ারি অপহরণ মামলা দায়ের করে তার পরিবার।

তিনি বলেন, এই মামলায় তিনজন আসামিকেও এরই মধ্যে গ্রেফতার করা হয়েছে। পরে তার ব্যাটারি চালিত অটোরিকশাটিও উদ্ধার করা হয়। বর্তমানে মামলাটি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। ওই অপহরণ মামলাটি এখন হত্যা মামলায় রূপ নেবে বলেও জানান কাশিয়াডাঙ্গা থানার এই পুলিশ কর্মকর্তা।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন