দেড় ঘণ্টার ব্যবধানে স্বামী-স্ত্রীর মৃত্যু, জানাজা একইসঙ্গে
jugantor
দেড় ঘণ্টার ব্যবধানে স্বামী-স্ত্রীর মৃত্যু, জানাজা একইসঙ্গে

  গোলাপগঞ্জ (সিলেট) প্রতিনিধি  

০১ মার্চ ২০২১, ১৮:৫৬:৩৩  |  অনলাইন সংস্করণ

সিলেটের গোলাপগঞ্জে বীর মুক্তিযোদ্ধা ফয়জুর রহমান কটই মিয়ার মৃত্যুর দেড় ঘণ্টা ব্যবধানে শোকে মারা গেলেন তার স্ত্রী সুনারুন বেগম! তাদের জানাজাও হয়েছে একসঙ্গে।

একইসঙ্গে স্বামী-স্ত্রীর মৃত্যুর ঘটনায় মুক্তিযোদ্ধাসহ গোটা এলাকায় নেমে এসেছে শোকের ছায়া। উপজেলার বুধবারীবাজার ইউনিয়নের বাণীগ্রামে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনার পর রোববার রাতে উভয় লাশের একসঙ্গে জানাজার পর লাশ দাফন করা হয়েছে।

জানা যায়, উপজেলার বুধবারীবাজার ইউনিয়নের বাণীগ্রাম গ্রামের মধ্যম মহল্লার মৃত তফজ্জুল আলীর ছেলে বীর মুক্তিযোদ্ধা ফয়জুর রহমান কটই মিয়া মারা যান রোববার দুপুরে। তিনি মারা যাওয়ার পর শোকে দুই ঘণ্টা পর মারা যান তার স্ত্রী সোনারুন বেগমও। একই সাথে স্বামী-স্ত্রী মারা যাওয়ার সংবাদ দ্রুত এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে মুক্তিযোদ্ধাসহ গোটা এলাকায় নেমে আসে শোকের ছায়া।

রোববার রাতে বাণীগ্রাম শাহী ঈদগাহ মাঠে মরহুমের জানাজার নামাজ শেষে বীর মুক্তিযোদ্ধাকে রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় দাফন করা হয় স্থানীয় গোরস্তানে। এ সময় একসঙ্গে স্ত্রীর জানাজার পর উভয় লাশ স্থানীয় গোরস্তানে দাফন করা হয়।

মৃত্যুকালে বীর মুক্তিযোদ্ধা ফয়জুর রহমান কটাই মিয়ার বয়স হয়েছিল ৬৫ বছর। তার স্ত্রীর বয়স হয়েছিল ৫৯ বছর। মৃত্যুকালে তারা এক ছেলে ও এক মেয়েসহ অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন।

দেড় ঘণ্টার ব্যবধানে স্বামী-স্ত্রীর মৃত্যু, জানাজা একইসঙ্গে

 গোলাপগঞ্জ (সিলেট) প্রতিনিধি 
০১ মার্চ ২০২১, ০৬:৫৬ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

সিলেটের গোলাপগঞ্জে বীর মুক্তিযোদ্ধা ফয়জুর রহমান কটই মিয়ার মৃত্যুর দেড় ঘণ্টা ব্যবধানে শোকে মারা গেলেন তার স্ত্রী সুনারুন বেগম! তাদের জানাজাও হয়েছে একসঙ্গে।

একইসঙ্গে স্বামী-স্ত্রীর মৃত্যুর ঘটনায় মুক্তিযোদ্ধাসহ গোটা এলাকায় নেমে এসেছে শোকের ছায়া। উপজেলার বুধবারীবাজার ইউনিয়নের বাণীগ্রামে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনার পর রোববার রাতে উভয় লাশের একসঙ্গে জানাজার পর লাশ দাফন করা হয়েছে।

জানা যায়, উপজেলার বুধবারীবাজার ইউনিয়নের বাণীগ্রাম গ্রামের মধ্যম মহল্লার মৃত তফজ্জুল আলীর ছেলে বীর মুক্তিযোদ্ধা ফয়জুর রহমান কটই মিয়া মারা যান রোববার দুপুরে। তিনি মারা যাওয়ার পর শোকে দুই ঘণ্টা পর মারা যান তার স্ত্রী সোনারুন বেগমও। একই সাথে স্বামী-স্ত্রী মারা যাওয়ার সংবাদ দ্রুত এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে মুক্তিযোদ্ধাসহ গোটা এলাকায় নেমে আসে শোকের ছায়া।

রোববার রাতে বাণীগ্রাম শাহী ঈদগাহ মাঠে মরহুমের জানাজার নামাজ শেষে বীর মুক্তিযোদ্ধাকে রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় দাফন করা হয় স্থানীয় গোরস্তানে। এ সময় একসঙ্গে স্ত্রীর জানাজার পর উভয় লাশ স্থানীয় গোরস্তানে দাফন করা হয়।

মৃত্যুকালে বীর মুক্তিযোদ্ধা ফয়জুর রহমান কটাই মিয়ার বয়স হয়েছিল ৬৫ বছর। তার স্ত্রীর বয়স হয়েছিল ৫৯ বছর। মৃত্যুকালে তারা এক ছেলে ও এক মেয়েসহ অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন