স্ত্রীর গাড়ি জালিয়াতি মামলায় ব্যবসায়ীর কারাদণ্ড
jugantor
স্ত্রীর গাড়ি জালিয়াতি মামলায় ব্যবসায়ীর কারাদণ্ড

  রাজশাহী ব্যুরো  

০৩ মার্চ ২০২১, ১৪:১২:২৮  |  অনলাইন সংস্করণ

কারাদণ্ড

রাজশাহীতে স্ত্রীর প্রাইভেটকার জালিয়াতি করে নিজের নামে করে নেওয়ায় ব্যবসায়ী নুরুজ্জামান পিটারকে তিন বছরের সশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। এ সময় তাকে ১৫ হাজার টাকা জরিমানা, অনাদায়ে আরও তিন মাসের সশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।

মঙ্গলবার রাজশাহীর অতিরিক্ত সিএমএম আদালতের বিচারক রেজাউল করিম এ সাজা প্রদান করেন।

মামলার এজাহার সূত্রে জানা গেছে, রাজশাহীর ব্যবসায়ী নুরুজ্জামান পিটার ২০১১ সালে তার সাবেক স্ত্রী সাবিনা আনজুম শাপলার সাদা রঙের একটি টয়োটা প্রাইভেটকার জালিয়াতি করে নিজের নামে রেজিস্ট্রেশনের জন্য বিআরটিএ অফিসে কাগজপত্র জমা দেন।

তবে তার স্ত্রী শাপলা বিষয়টি জানতে পেরে তার বিরুদ্ধে ওই বছরের এপ্রিল মাসে একটি জালিয়াতি মামলা করেন। এর পর মামলার সাক্ষ্যগ্রহণ করা হয় এবং উভয়পক্ষের শুনানি শেষে মামলার আসামি পিটার দোষী প্রমাণিত হওয়ায় মঙ্গলবার আদালত তাকে এ সাজা প্রদান করেন। রায় ঘোষণার পর নুরুজ্জামান পিটারকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

তার এ সাজায় রাজশাহীর ব্যবসায়ী মহলে বেশ আলোচনা সৃষ্টি হয়েছে। অনেকেই সন্তোষ প্রকাশ করেছেন; জানিয়েছেন নুরুজ্জামান পিটার অনেকের সঙ্গে বিভিন্ন সময়ে প্রতারণা করেছেন।

এ ছাড়া প্রাইভেটকার জালিয়াতি মামলায় এমন সাজায় মামলার বাদী সাবিনা আনজুম শাপলা ন্যায়বিচার পেয়েছেন বলে জানিয়ে তিনিও সন্তোষ প্রকাশ করেছেন।

স্ত্রীর গাড়ি জালিয়াতি মামলায় ব্যবসায়ীর কারাদণ্ড

 রাজশাহী ব্যুরো 
০৩ মার্চ ২০২১, ০২:১২ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
কারাদণ্ড
ফাইল ছবি

রাজশাহীতে স্ত্রীর প্রাইভেটকার জালিয়াতি করে নিজের নামে করে নেওয়ায় ব্যবসায়ী নুরুজ্জামান পিটারকে তিন বছরের সশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। এ সময় তাকে ১৫ হাজার টাকা জরিমানা, অনাদায়ে আরও তিন মাসের সশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।

মঙ্গলবার রাজশাহীর অতিরিক্ত সিএমএম আদালতের বিচারক রেজাউল করিম এ সাজা প্রদান করেন।

মামলার এজাহার সূত্রে জানা গেছে, রাজশাহীর ব্যবসায়ী নুরুজ্জামান পিটার ২০১১ সালে তার সাবেক স্ত্রী সাবিনা আনজুম শাপলার সাদা রঙের একটি টয়োটা প্রাইভেটকার জালিয়াতি করে নিজের নামে রেজিস্ট্রেশনের জন্য বিআরটিএ অফিসে কাগজপত্র জমা দেন।

 তবে তার স্ত্রী শাপলা বিষয়টি জানতে পেরে তার বিরুদ্ধে ওই বছরের এপ্রিল মাসে একটি জালিয়াতি মামলা করেন। এর পর মামলার সাক্ষ্যগ্রহণ করা হয় এবং উভয়পক্ষের শুনানি শেষে মামলার আসামি পিটার দোষী প্রমাণিত হওয়ায় মঙ্গলবার আদালত তাকে এ সাজা প্রদান করেন। রায় ঘোষণার পর নুরুজ্জামান পিটারকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

তার এ সাজায় রাজশাহীর ব্যবসায়ী মহলে বেশ আলোচনা সৃষ্টি হয়েছে। অনেকেই সন্তোষ প্রকাশ করেছেন; জানিয়েছেন নুরুজ্জামান পিটার অনেকের সঙ্গে বিভিন্ন সময়ে প্রতারণা করেছেন।

এ ছাড়া প্রাইভেটকার জালিয়াতি মামলায় এমন সাজায় মামলার বাদী সাবিনা আনজুম শাপলা ন্যায়বিচার পেয়েছেন বলে জানিয়ে তিনিও সন্তোষ প্রকাশ করেছেন।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন