ছোট্ট শিশু কোলে নিয়ে ভাইরাল ইউএনও দিলারা
jugantor
ছোট্ট শিশু কোলে নিয়ে ভাইরাল ইউএনও দিলারা

  দামুড়হুদা (চুয়াডাঙ্গা) প্রতিনিধি  

০৮ মার্চ ২০২১, ১৮:১৭:০২  |  অনলাইন সংস্করণ

চুয়াডাঙ্গা জেলার দামুড়হুদা উপজেলার ছোট্ট শিশু নীরবকে (৬ মাস) কোলে নেন ইউএনও দিলরা রহমান। আর এ ছবি ফেসবুকে ভাইরাল হয়ে গেছে।

প্রধানমন্ত্রীর উপহার হিসেবে সরকারি ঘর পাচ্ছে বাগদী সম্প্রদায়। ১ মার্চ বিকালে দামুড়হুদা উপজেলার নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) দিলরা রহমান উপজেলার দর্শনা রামনাগর কালিদাস পাড়ায় পরিদর্শনে যায়। এ সময় টোকুল বিশ্বাসের বাড়িতে গেলে তার ছোট্ট শিশু সন্তান নীরব (৬) মাস চলে আসে ইউএনও দিলারা রহমানের কাছে।

কোলে নিলে একরাশ হাসি দিলে মুগ্ধ হয়ে পড়েন ইউএনও। এই ছোট্ট শিশু নীরবকে কোলে নেওয়া ছবি তোলেন তার অফিস সহকারী। তিনি ইউএনও দামুড়হুদা ফেসবুক পেজে পোস্ট করলে এই ছবিটি ফেসবুকে ভাইরাল হয়ে যায়। ছবিগুলো ফেসবুকে আপলোড হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে ছবিতে হাজারো লাইক, কমেন্ট ও শেয়ার পড়ে।

জান গেছে, দামুড়হুদা উপজেলায় এই প্রথমবারের মতো মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর উপহার বাগদী সম্প্রদায় ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীদের জন্য পাঁচটি ঘরের বরাদ্দ এসেছে। প্রধানমন্ত্রীর এ উদ্যোগের জন্য তারা অসীম কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে। খুব শিগগিরই সুসম্পন্ন হবে এসব গৃহের নির্মাণ কাজ।

এই কাজ দামুড়হুদা উপজেলা নির্বাহী অফিসার দিলারা রহমান সরাসরি ঘটনাস্থলে পরিদর্শন করে তাদেরকে নির্বচন করে প্রধানমন্ত্রীর উপহার তুলে দিচ্ছেন।

এ বিষয়ে দামুড়হুদা উপজেলার নির্বাহী অফিসার দিলরা রহমান বলেন, গৃহ নির্বাচনের জন্য দর্শনা হিন্দু অধিবাসী বাগদী সম্প্রদায়ের বাড়ি সরেজমিনে না গেলে হয়তো তাদের প্রকৃত অবস্থা কখনোই এভাবে উপলব্ধি করতে পারতাম না। নিতান্ত মানবেতর জীবন তাদের। মাটির ঘরে, মলিন বস্ত্রে কোনরকম কেটে যায় দিন।

তিনি বলেন, টোকুল বিশ্বাসের ছোট্ট শিশু সন্তান নীরব (৬ মাস)। আমাকে দেখেই লাফ দিয়ে চলে এলো আমার কোলে। একরাশ হাসি দিয়ে অভিবাদন জানালো আমাদের। মনে হলো যেনো ভাঙ্গা ঘরে চাঁদের আলো। আঁ, উঁ করে প্রকাশ করতে চাইলো অনেক অব্যক্ত কথা। দোয়া করি আগামীর দিনগুলো যেন উন্নত জীবনের ছোঁয়া পায় হাজারো ‘নীরব’।

ছোট্ট শিশু কোলে নিয়ে ভাইরাল ইউএনও দিলারা

 দামুড়হুদা (চুয়াডাঙ্গা) প্রতিনিধি 
০৮ মার্চ ২০২১, ০৬:১৭ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

চুয়াডাঙ্গা জেলার দামুড়হুদা উপজেলার ছোট্ট শিশু নীরবকে (৬ মাস) কোলে নেন ইউএনও দিলরা  রহমান। আর এ ছবি ফেসবুকে ভাইরাল হয়ে গেছে।

প্রধানমন্ত্রীর উপহার হিসেবে সরকারি ঘর পাচ্ছে বাগদী সম্প্রদায়। ১ মার্চ বিকালে দামুড়হুদা উপজেলার নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) দিলরা রহমান উপজেলার দর্শনা রামনাগর কালিদাস পাড়ায় পরিদর্শনে যায়। এ সময় টোকুল বিশ্বাসের বাড়িতে গেলে তার ছোট্ট শিশু সন্তান নীরব (৬) মাস চলে আসে ইউএনও দিলারা রহমানের কাছে।

কোলে নিলে একরাশ হাসি দিলে মুগ্ধ হয়ে পড়েন ইউএনও। এই ছোট্ট শিশু নীরবকে কোলে নেওয়া ছবি তোলেন তার অফিস সহকারী। তিনি ইউএনও দামুড়হুদা ফেসবুক পেজে পোস্ট করলে এই ছবিটি ফেসবুকে ভাইরাল হয়ে যায়। ছবিগুলো ফেসবুকে আপলোড হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে ছবিতে হাজারো লাইক, কমেন্ট ও শেয়ার পড়ে।

জান গেছে, দামুড়হুদা উপজেলায় এই প্রথমবারের মতো মাননীয়  প্রধানমন্ত্রীর উপহার বাগদী সম্প্রদায় ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীদের জন্য পাঁচটি ঘরের বরাদ্দ এসেছে। প্রধানমন্ত্রীর এ উদ্যোগের জন্য তারা অসীম কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে। খুব শিগগিরই সুসম্পন্ন হবে এসব গৃহের নির্মাণ কাজ।

এই কাজ দামুড়হুদা উপজেলা নির্বাহী অফিসার দিলারা রহমান সরাসরি ঘটনাস্থলে পরিদর্শন করে তাদেরকে নির্বচন করে প্রধানমন্ত্রীর উপহার তুলে দিচ্ছেন।

এ বিষয়ে দামুড়হুদা উপজেলার নির্বাহী অফিসার দিলরা রহমান বলেন, গৃহ নির্বাচনের জন্য দর্শনা হিন্দু অধিবাসী বাগদী সম্প্রদায়ের বাড়ি সরেজমিনে না গেলে হয়তো তাদের প্রকৃত অবস্থা কখনোই এভাবে উপলব্ধি করতে পারতাম না। নিতান্ত মানবেতর জীবন তাদের। মাটির ঘরে, মলিন বস্ত্রে কোনরকম কেটে যায় দিন।

তিনি বলেন, টোকুল বিশ্বাসের ছোট্ট শিশু সন্তান নীরব (৬ মাস)। আমাকে দেখেই লাফ দিয়ে চলে এলো আমার কোলে। একরাশ হাসি দিয়ে অভিবাদন জানালো আমাদের। মনে হলো যেনো ভাঙ্গা ঘরে চাঁদের আলো। আঁ, উঁ করে প্রকাশ করতে চাইলো অনেক অব্যক্ত কথা। দোয়া করি আগামীর  দিনগুলো যেন উন্নত জীবনের ছোঁয়া পায় হাজারো ‘নীরব’।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন